বাজারের সবচেয়ে ভালো ৬ গেমিং ফোন – ২০২১

সেরা গেমিং মোবাইল ফোন

আপনি কি ভালো গেমিং ফোন খুঁজছেন? গেম খেলতে কার না ভালো লাগে আর আপনি যদি হয়ে থাকেন প্রকৃত গেমিং পাগল তবে আমাদের আজকের বিষয়টি আপনাকে ভালো গেমিং ফোন ২০২১ সম্পর্কে জানতে সাহায্য করবে।

সব ভালো স্মার্টফোন গুলোই গেমিং ফোন তবে সকল ফোনের গেমিং পারফরম্যান্স একই রকম নয়। আপনি যেকোন মোবাইল দিয়েই গেমস খেলতে পারবেন তবে এক্ষেত্রে আপনি বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন যেমন- স্টোরেজ কম থাকা, স্পিড কমে যাওয়া, চার্জ তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যাওয়া বা ফোন হ্যাং হওয়া সহ নানা সমস্যা দেখা দেয়।

কিন্তু আপনি যখন একটি ভালো গেমিং ফোন ব্যবহার করবেন সে ফোন এর গেমিং পারফরম্যান্স আপনাকে মুগ্ধ করতে বাধ্য করবে।

ভালো গেমিং ফোন কিনতে গেলে অবশ্যই আপনাকে সে সব ফোন সম্পর্কে ভালো ধারনা রাখতে হবে, যা আপনাকে সঠিক ফোন বাছায়ের ক্ষেত্রে  সাহায্য করবে। আপনার এই কাজকে আরও সহজ করে তুলতে আমরা আজকে হাজির হয়েছি এমনই কিছু বাজারের সেরা গেমিং ফোনের তালিকা নিয়ে, যা কিনা আপনাকে সঠিক ফোন বাছাই সহ গেমিং এর দিক দিয়ে সেরা পারফরম্যান্স এর কথা চিন্তা করে তৈরি করা হয়েছে।

৬টি ভালো গেমিং ফোন এর তালিকা ২০২১

গেমিং ছাড়াও এসব ফোনের নানা ধরনের ফিচার গুলো সম্পর্কে ধারণা পেতে চলুন আমাদের আজকের আর্টিকেলের মূল আলোচনায় আসা যাক। চলুন আর দেরি না করে জেনে আসা যাক ২০২১ সালের সেরা কিছু গেমিং ফোন সম্পর্কে।

1. Lenovo Legion Duel 2 Phone

সেরা গেমিং মোবাইলLenovo Legion Phone Duel 2 গেমিং ফোনের দুনিয়ায় যেন অন্য মাত্রা যুক্ত করেছে। Lenovo’র এই ফোনটিতে তাদের মোবাইল গেমিং পিসি তৈরির চিন্তা ভাবনাকে কাজে লাগানো হয়েছে, তাই গেমিং এর জন্য মোবাইল জগতে বেশ সাড়া ফেলেছে Lenovo Legion Phone Duel 2 নামক ফোনটি।

এ ফোনের হার্ডওয়্যার গুলোকে কুলিং ফ্যান এর কাছাকাছি রাখা হয়েছে যেন গেমিং এর সময় আপনার মোবাইলটি সহজে গরম না হয়।

সবচেয়ে আকর্ষনীয় বিষয় হলো লেনেভোর এই গেমিং মোবাইলে দুইটি কুলিং ফ্যান ব্যবহার করা হয়েছে ফলে, হাই গ্রাফিকস গেমগুলোর ক্ষেত্রে ভালো পারফরম্যান্স পাওয়ার পাশাপাশি মোবাইলটি সহজে গরম হওয়ার সম্ভাবণা নেই বললেই চলে। যেকারনে এই ফোনটাকে সেরাদের সেরা গেমিং ফোন হিসেবে ধরা যেতে পারে।

বর্তমানে গেমিং ফোনগুলোতে ট্রিগার এর সিস্টেমটি অসাধারণ বলা চলে সেসব কথা ভাবেই এ ফোন টিতেও ৪ টি শোল্ডার ট্রিগারের ব্যবস্থা করা হয়েছে যা গেমারদের জন্য আরও রোমাঞ্চকর করে তুলেছে। পারফরম্যান্স কিংবা ডিজাইন! গেমারদের জন্য তৈরি করা ফোনটি কোনো অংশেই কম নয়। ফোনটিতে ৫জি নেটওয়ার্ক সুবিধাও যুক্ত করা হয়েছে।

লেনেভো লেজিয়ন ডুয়েল ২ গেমিং ফোনের ফিচার ও মূল্য:

  • ডিসপ্লে: 6.92-inch, অ্যামেলেড ক্যাপাসিটিভ টাচস্কিন
  • প্রসেসর: Snapdragon 888
  • র্যাম: 12/16/18GB
  • স্টোরেজ: 128/256/512GB
  • ফ্রন্ট ক্যামেরা: 44 মেগা পিক্সেল
  • ব্যাক ক্যামেরা: 64, এবং 16 মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারী: ৫০০০ মিলি. অ্যাম্পিয়ার
  • ওজন: ২৫৯ গ্রাম
  • মূল্য: ৮৫,০০০ টাকা

2. Asus ROG 5

Asus গেমিং মোবাইলAsus ROG 5 যেটি কিনা বর্তমান বাজারের সেরা গেমিং ফোন এর তালিকায় শীর্ষ স্থান দখল নিয়েছে। এই ফোনটির ডিজাইন, কোয়ালিটি বা লোড নেয়ার ক্যাপাসিটি সবকিছুই যেন অসাধারণ এবং বেশ চমকপ্রদ। গেমারদের কথা চিন্তা করেই এই মডেলটি তৈরি করা হয়েছে, যেন তারা সর্বোচ্চ লেভেলের গেমিং পারফরম্যান্স পেতে পারে।

এই ফোনটিতে 144Hz রিফ্রেশ রেট এর স্ক্রিন এর সাথে ব্যবহার করা হয়েছে Snapdragon 888 এর প্রসেসর। আরও রয়েছে RAM ১৮GB এবং গেম খেলার জন্য তৈরি সেরা এই ফোনটিতে স্টোরেজ হিসেবে দেওয়া হয়েছে ৫১২জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ।

চলতি বছরে এই Asus ROG 5 ফোনটির মোট তিনটি মডেল বের হয়েছে। মডেল ৩টি হলো-

  1. Asus ROG 5,
  2. Asus ROG 5 Pro ও
  3. Asus ROG 5 Unlimited

এধরনের মোবাইল গুলোর মডেল সাধারণত একই, শুধুমাত্র ফোনটির পেছনের ডিজাইন গুলো আলাদা বললেই চলে।এই ফোন ২টির পিছনের ডিজাইনের পরিবর্তন সরূপ আলাদা একটি স্ক্রিন এবং ২ টা অতিরিক্ত টাচ সেন্সর দেওয়া হয়েছে।

বিগত বছরগুলোর মতো ROG 5 ফোনের মডেলটিতে রয়েছে বিভিন্ন মোবাইল গেমিং এক্সেসরিস। তবে যা কিনা আগের বা পুরতন মডেল গুলোর তুলনায় অনেক বেশি কার্যক্ষম হিসেবে প্রমানিত হয়েছে যা গেমারদের গেমিং এক্সপেরিয়েন্স বাড়াতে অনেক বেশী সাহায্য করে।

এক্টিভ কুলার, আরজিবি কভার এর মতো আরো দারুন কিছু নিয়ে সাজানো হয়েছে এর প্রোগ্রাম গুলো। ফোনটির 6,000 মিলি. অ্যাম্পিয়ার ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যাটারী যা এসব প্রোগ্রামকে খুবই সাচ্ছন্দ্যে অনেক সময় ধরে চালাতে সাহায্য করবে।

Asus ROG 5 গেমিং ফোনটির ফিচার ও মূল্য-

  • ডিসপ্লে: 6.78-inch, 144Hz FHD+
  • প্রসেসর: Snapdragon 888
  • র্যাম: 8/16GB
  • স্টোরেজ: 128/256GB
  • ফ্রন্ট ক্যামেরা: 24MP
  • ব্যাক ক্যামেরা: 64, 13, and 5MP
  • ব্যাটারী: 6,000mAh
  • ৫জি: Yes
  • ওজন: ২৩৮ গ্রাম
  • মূল্য: ৫৮,০০০ টাকা

3. Poco F3 GT

ভালো গেমিং মোবাইল পোকো F3-GTবর্তমান বাজারে বেশ সাড়া ফেলেছে Redmi স্পিনঅফ Poco ফোনটি। ইন্ডিয়া ও বাংলাদেশ এ ২টি দেশের গেমারদের কথা ভেবেই এই ফোনটি তৈরি বা লোন্স করা হয়। Poco F3 GT ফোন টির কথা বলতে গেলে Redmi K40 নামক গেমিং ফোনের নতুন ভার্সন। নানা চমকপ্রদ সব ফিচার নিয়ে গেমিং প্রিয় মানুষ গুলোর পছন্দের তালিকায় নাম করে নিয়েছে এই Poco F3 GT ফোনটি।

পোকো এফ থ্রি ফোনে শুটিং গেমের জন্য রয়েছে দুইটি চৌম্বকীয় ট্রিগার। তাই, ফোনটির কাস্টমাইজিং সিস্টেম পরিবর্তন করার মতো দারুন সুবিধা। গেমাররা চাইলেই তাদের পছন্দ অনুযায়ী গেম কাস্টমাইজ করে খেলতে পারবেন। ফোনটিতে রয়েছে 5,065 মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি যা খুবই ভালো ব্যাকাপ দিয়ে থাকে যেন দীর্ঘসময় গেম খেলা সম্ভব হয়।

স্ন্যাপড্রাগন নামক প্রসেসরটিকে মনে করা হয় গেমারদের জন্য সেরা প্রসেসর কিন্তু এই ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে MediaTek 1200 Chipset. তবে এ নিয়ে চিন্তিত হবার কারণ নেই কেননা, Media Tek 1200 Chipset প্রসেসরটিও snapdragon 865 এর মতো পারফরম্যান্স দিতে সক্ষম।

Poco F3 GT ফোনের ফিচার ও মূল্য:

  • ডিসপ্লে: 6.67-inch, Full HD + 120Hz
  • প্রসেসর: MediaTek Dimensity 1200
  • র্যাম: 6/8 GB
  • স্টোরেজ: 128/256 GB
  • ফ্রন্ট ক্যামেরা: 16MP
  • ব্যাক ক্যামেরা: 64, 8, and 2MP
  • ব্যাটারী: 5,065 মিলি অ্যাম্পিয়ার
  • ৫জি: Yes
  • ওজন: ২০৫ গ্রাম
  • মূল্য: ৩৭,০০০ টাকা

4. OnePlus 9 Pro

Poco F3 GT এর পরে যে ফোনটি সেরা গেমিং ফোন এর তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে তা হলো OnePlus 9 Pro. OnePlus এর ফোন গুলো বর্তমানে বেশ জনপ্রিয়তা পাচ্ছে যার অন্যতম কারণ ফোন গুলোর হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার এমন ভাবে তৈরী করা হয় যাতে করে ফোন গুলার পারফরম্যান্স, ডিজাইন সহ সব কিছুই ক্রেতাকে বিমোহিত করতে বাধ্য করে।

গেমিং ফোনের তালিকায় জায়গা করে নেওয়া এই অনপ্লাস ফোনটির প্রসেসর স্ন্যাপড্রাগন ৪৪৪, RAM 12GB এবং 120Hz এর অসাধারণ ডিসপ্লে নিয়ে বাজারে হাজির হয়েছে। ফোনটিতে 65W ফাস্ট চার্জ এর ব্যবস্থা থাকায় ফোনটির 4,500Ah এর ব্যাটারি মাত্র ২৯ মিনিটে ফুল চার্জ করা যায়। ফোনটির ব্যাটারী খুবই ভালো ব্যাকাপ দিয়ে থাকে তাই, গেমাররাও হতাশ হবেন না।

ক্যামেরা পারফরম্যান্স এর দিকে যদি নজর দেই, তাহলে দেখা যাচ্ছে OnePlus 9 Pro এর চারটি ক্যামেরা বিশিষ্ট মডেলটিকে অন্য সকল মডেলের চেয়ে একধাপ এগিয়ে রেখেছে।

OnePlus 9 Pro মোবাইল ফিচার ও মূল্য:

  • ডিসপ্লে: 6.7-inch, 120Hz
  • প্রসেসর: Snapdragon 888
  • র্যাম: 8/12GB
  • স্টোরেজ: 128/256GB
  • ফ্রন্ট ক্যামেরা: 16MP
  • ব্যাক ক্যামেরা: 48, 50, 8, and 2MP
  • ব্যাটারী: 4,500 মিলি অ্যাম্পিয়ার
  • ওজন: ১৯৭ গ্রাম
  • ৫জি: Yes
  • মূল্য: ৬৫,০০০ টাকা

5. Xiaomi Black Shark 4 series

শাওমি ব্লাক শার্ক গেমিং ফোন

Xiaomi Black Shark স্মার্টফোন গুলো তাদের বিভিন্ন ফিচার আপডেটের মাধ্যমে লোকমুখে বেশ জনপ্রিয়তা পাচ্ছে বিশেষ করে গেমারদের কাছে। Xiaomi Black Shark 4 ফোনটিতে রয়েছে 6.67 ইঞ্চি FHD ডিসপ্লে এবং E4 Oled স্ক্রিন সহ 144Hz এর স্ক্রিন ব্যবস্থা। সকল গেমিং ফোনের মতো এই ফোনের স্ক্রিনটিও 720Hz রাখা হয়েছে যা গেমিং প্রিয় মানুষের পছন্দের তালিকার শীর্ষে  রয়েছে।

রিমোট কন্ট্রোল গেমিং প্লেয়ার বাটনগুলোর সাথে মিল রেখে এই ফোনের বাটন ডিজাইন করা হয়েছে। তাই, গেমিং এর ক্ষেত্রে খুবই স্মুথলি বা কম সময়ের মাঝে গেম ওপেন সহ খেলায় কোনো রকম বাধা বিপত্তি সম্মুখীন হতে হয় না।

এছাড়া এই ফোনটিতে 120W এর ফাস্ট চার্জিং ব্যবস্থা রয়েছে যা কিনা ব্ল্যাক শার্ক হিসেবে দাবি রাখে কারন ফোনটি মাত্র ১৫ মিনিট সময় নেয় 100% চার্জিং এর জন্য।

ট্রিপল ক্যামেরার এই ফোন টির মেইন ক্যামেরাটি ৬৪ মেগাপিক্সেল এবং মেইন শুটার ক্যামেরা ৪৮ মেগাপিক্সেল এর সুবিধা দিচ্ছে।

শাওমি ব্লাক শার্ক ৪ সিরিজ ফোনের ফিচার ও মূল্য:

  • ডিসপ্লে: 6.67-inch, Full HD+
  • প্রসেসর : Snapdragon 870
  • র্যাম: 8/12GB
  • স্টোরেজ: 128/256GB
  • ফ্রন্ট ক্যামেরা: 20MP
  • ব্যাক ক্যামেরা: 48, 8, and 5MP
  • ব্যাটারী: 4,500 মিলি অ্যাম্পিয়ার
  • ওজন: ২১০ গ্রাম
  • ৫ জি: Yes
  • মূল্য: ৩৫,০০০ টাকা

6. Xiaomi Redmi 9

শাওমি রেডমি ৯

কম দামে যারা একটি ভালো গেমিং মোবাইল খুঁজছেন, তাদের জন্য রয়েছে Xiaomi Redmi9. ফোনটি বাজারে ছাড়া হয় ২০২০ সালের জুনের ১০ তারিখ। 6.53 inches ডিসপ্লে সহ ফোনটির রয়েছে ফুল এইচডি প্লাস 1080*2340 pixels এর সেটিং।

শাওমির এই ফোনটির সেটটির অপারেটিং সিস্টেম Android 10, MIUI 11. প্রসেসর হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে MediaTek Helio G80 এবং গ্রাফিক্স প্রসেসিং ইউনিট Mail-G52 MC2. Ram এর পরিমাণ 4GB এবং 64GB ইন্টার্নাল স্পেস।

ফোনটিতে 5020 mAh এর লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। সাথে আছে 18W এর দ্রুত চার্জিং ব্যবস্থা। বর্তমানে কার্বন গ্রে, সানসেট পার্পল, ওশান গ্রিন, পিংক ব্লু এই চারটি কালারে পাওয়া যাচ্ছে গেমিং এর জন্য পারফেক্ট এই ফোনটি।

শাওমির এই গেমিং মোবাইলের ক্যামেরা কোয়ালিটিও বেশ ভালো। 13MP+8MP+5MP+2MP এর ব্যাক ক্যামেরা সেটিংসের পাশাপাশি রয়েছে 8MP এর সেলফি ক্যামেরা।

Xiaomi Redmi 9 ফোনের ফিচার ও মূল্য:

  • ডিসপ্লে: 6.53 inches ফুল এইচডি প্লাস 1080*2340 pixels
  • এই সেটটির অপারেটিং সিস্টেম: Android 10, MIUI 11
  • প্রসেসর: MediaTek Helio G80
  • ব্যাটারি: 5020 মিলি অ্যাম্পিয়ার
  • ক্যামেরা: 13MP+8MP+5MP+2MP ব্যাক ক্যামেরা  এবং 8MP এর সেলফি ক্যামেরা
  • র্যাম: 4GB
  • ইন্টার্নাল স্পেস: 64GB
  • ওজন: ১৯৮ গ্রাম
  • 5G: No
  • বাজার মূল্য: ১৪৯৯৯ টাকা।

গেমিং ফোন নিয়ে পরিশেষ

গেমিং ফোন সাধারণত একটু বেশি দামের হয়ে থাকে। কম দামে ভালো গেমিং মোবাইল যে পাওয়া যায় না তা নয়, তবে পারফরম্যান্স, ক্যাপাসিটি এবং দ্রুত গরম হওয়ার মতো সমস্যাগুলোও দেখা দিতে পারে।

তাই, আপনি যদি সত্যিকার গেমিং পারফরম্যান্স এবং রোমাঞ্চকর অনুভূতি পেতে চান, তবে ফোন কোনার আগে উপরে উল্লেখ করা ৬ টি ভালো মানের গেমিং ফোনগুলো অবশ্যই একবার টেস্ট করে দেখবেন।

Leave a Comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

three + 11 =

error: Content is protected !!