সেরা ১৫টি 15000 টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বাংলাদেশ ২০২২

১৫ হাজার টাকায় ভালো ফোন বাংলাদেশ

15000 টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বাংলাদেশ ( Best phone under 15000 ): বর্তমান সময়ে Smartphone অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিভিন্ন ব্রান্ডের ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকার ফোন ২০২২ বাজারে রয়েছে। আপনিও কি ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল খুঁজছেন? আপনি যদি Best phone under 15000 কোনগুলো জানতে চান, তবে আর্টিকেলটির শেষ পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে থাকুন।

ব্রান্ডের পাশাপাশি বাজারে বিভিন্ন ক্যাটাগরির Smartphone ও রয়েছে যেগুলো ১২ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকায় পাওয়া যায়। কিন্তু সকল ফোন সবার জন্য সঠিক পছন্দ নয় কারণ, আমাদের সকলের প্রয়োজন এক রকম নয়। কারো ভালো ক্যামেরা দরকার, তো কারো ভালো ব্যাটারী ব্যাক-আপ। আবার কারো ভালো র‌্যাম এবং প্রসেসর। তাছাড়া বাজেট একটি বড় ফ্যাক্টর অবশ্যই।

তাই আপনার কাজকে সহজ করার লক্ষ্যে আমাদের আজকের আলোচনায় থাকছে 15 হাজার টাকার মধ্যে সেরা ফোন ২০২২, যেগুলো আপনাকে সত্যিকারের স্মার্টফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতা দিতে পারে।

Normal User থেকে শুরু করে Gamer, প্রত্যেকের কথা বিবেচনা করেই ফোনগুলো Suggest করা হয়েছে। আশা করি, আমাদের 15000 টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বাংলাদেশ 2022 এর তালিকা থেকে আপনার পছন্দ মত যেকোন একটি ফোন আপনি কিনে সকল চাহিদা পূরণ করতে পারবেন।

১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল ২০২২ বাংলাদেশ : best phone under 15000

নতুন মোবাইল ফোন কেনার আগে কিছু জিনিস দেখে নেওয়া জরুরী। এখানে যে ১৫টি ১৫০০০ টাকার মধ্যে ভালো ফোন ২০২২ বাংলাদেশ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে, তা পড়লেই আপনি বুঝতে পারবেন কোন ফোনটি আপনার জন্য।

এখন যেহেতু আন-অফিশিয়াল ফোন বাংলাদেশে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে তাই, এখানে আমি শুধুমাত্র অফিশিয়াল ফোনগুলি নিয়েই আলোচনা করব।

15000 টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বাংলাদেশ এর বাজারে পাওয়া যাচ্ছে এমন সেরা ফোনগুলোর তালিকা একনজরে দেখে নেওয়া যাক-

  1. ইনফিনিক্স হট ১১এস
  2. ওয়ালটন আরএক্স ৮ মিনি
  3. পোকো এম২ রিলোডেড
  4. রিয়েলমি সি২৫এস
  5. টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো
  6. অপো এ১৬
  7. স্যামসাং গ্যালাক্সি এ১২
  8. টেকনো স্পার্ক ৭
  9. ভিভো ওয়াই২০ ২০২১
  10. রিয়েলমি সি২৫ওয়াই
  11. রিয়ালমি C12
  12. ভিভো Y20
  13. অপ্পো A33
  14. ইনফিনিক্স হট 10
  15. রিয়ালমি নারজো 20

এই ১৫টি ১৫০০০ টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল ফোনের মধ্য থেকে কোনটি আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো হবে? আপনার চাহিদার সাথে কোনটি মিলবে? আসুন ফোনগুলোর ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য জেনে নিই।

১. ইনফিনিক্স হট ১১এস

ইনফিনিক্স হট ১১এস১৫ হাজার টাকা বাজেটে আমাদের পছন্দের তালিকার শীর্ষে আছে ইনফিনিক্স হট ১১এস। থাকবেই বা না কেন? এই বাজেটে এই ফোনটিকে পেছনে ফেলার মত ফোন নেই বললেই চলে। মিডিয়াটেকের হেলিও জি৮৮ গেমিং প্রসেসর আর ৯০ হার্জের ফুলএইচডি প্লাস আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লের সমন্বয়ে গেমারদের জন্য ফোনটি একটি দারুণ কম্বিনেশন।

যারা গেমার নন তাদের জন্যও এই ফোনটি একটি চমৎকার ডিভাইস। ৬.৭৮ ইঞ্চির বিশাল ডিসপ্লে, স্টেরিও স্পিকার, ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জার- কী নেই এতে?

আছে ৫০ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরার সাথে ৮ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। ৫০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার আওয়ারের বিগ ব্যাটারি। best phone under 15000 বাজেটে একমাত্র এই ফোনটিতেই পাবেন ১২৮ জিবি বিল্ট ইন স্টোরেজ।

এক নজরে ইনফিনিক্স হট ১১এস ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসর: মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৮।
  • ডিসপ্লে: ৬.৭৮ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোলিউশন: ১০৮০*২৪৮০।
  • ব্যাটারি: ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • মেইন ক্যামেরা: ৫০ মেগাপিক্সেল।
  • সেলফি ক্যামেরা: ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটি: ফিঙ্গারপ্রিন্ট, ফেইস আনলক।
  • অপারেটিং সিস্টেম: অ্যান্ড্রয়েড ১১।
  • ডাইমেনশন: ১৬৮.৯*৭৭*৮.৮ মিলিমিটার।
  • ওজন: ২০৫ গ্রাম।
  • ফোনটির ৪/১২৮ ভ্যারিয়্যান্টটি পাওয়া যাচ্ছে ১৪৯৯০ টাকায়।

২. ওয়ালটন আরএক্স ৮ মিনি

ওয়ালটন আরএক্স ৮ মিনি১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল গুলোর মধ্যে দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটনের অন্যতম সেরা অফার বলা চলে ওয়ালটন আরেক্স ৮ মিনি ফোনটিকে। আরএক্স ৭ মিনির দুর্দান্ত সাফল্যের পরে আরএক্স ৮ মিনি ফোনটিও বেশ প্রশংসিত হয়েছে।

কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬০ প্রসেসরের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের সাথে স্টাইলিশ গ্লাস বডির ডিজাইন আর অসাধারণ ডিসপ্লের কম্বিনেশনে ফোনটিকে এককথায় অসাধারণ বলা চলে। ১৩ মেগাপিক্সেলের সনির মেইন ক্যামেরার সাথে আল্ট্রাওয়াইড আর ডেপথ সেন্সর তো আছেই। কম দামে যারা ভালো গেমিং ফোন খুঁজছেন, সেসব গেমারদের জন্য ১৩ হাজার টাকার মধ্যে এই ফোনটি একটি ভালো চয়েস হতে পারে।

এক নজরে ওয়ালটন আরএক্স ৮ মিনি ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসর: কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬০।
  • ডিসপ্লে: ৬.৩ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোলিউশন: ১০৮০ * ২৩৪০।
  • ব্যাটারি: ৩৬০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • মেইন ক্যামেরা: ১২ মেগাপিক্সেল।
  • সেলফি ক্যামেরা: ১৩ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটি: ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক।
  • অপারেটিং সিস্টেম: অ্যান্ড্রয়েড ১১।
  • ডাইমেনশন: ১৫৮.৯ * ৭৫.৫ * ৮.৪ মিলিমিটার।
  • ওজন: ১৭৮ গ্রাম।
Related:  রিয়েলমি ফোনের দাম ২০২২ - Best 10 Realme phone price

ওয়ালটন আরএক্স ৮ মিনি ফোনটির ৪/৬৪ জিবি ভ্যারিয়ান্টটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ১২৯৯৯ টাকায়।

৩. পোকো এম২ রিলোডেড

15000 টাকায় ভালো ফোনbest phone under 15000 বাজেটে বর্তমানে শাওমির খুব বেশি ফোন নেই। পোকো এম২ রিলোডেড ফোনটি ভালো একটি অপশন হতে পারে এই ফোনটি। যারা শাওমি ফোন এবং মিইউআই পছন্দ করেন তাদের জন্য এই ফোনটি একমাত্র অপশন বলা চলে। মিডিয়াটেকের হেলিও জি৮০ প্রসেসরের সাথে রয়েছে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের বিশাল ব্যাটারি।

ফোনটির পেছনে আছে ১৩ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরাসহ কোয়াড ক্যামেরার সেটআপ।

এক নজরে পোকো এম২ রিলোডেড ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসর: মিডিয়াটেক হেলিও জি৮০।
  • ডিসপ্লে: ৬.৫৩ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোলিউশন: ১০৮০ * ২৩৪০।
  • ব্যাটারি: ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • মেইন ক্যামেরা: ১৩ মেগাপিক্সেল।
  • সেলফি ক্যামেরা: ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটি: ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক।
  • অপারেটিং সিস্টেম: অ্যান্ড্রয়েড ১১।
  • ডাইমেনশন: ১৬৩.৩ * ৭৭ * ৯.১ মিলিমিটার।
  • ওজন: ১৯৮ গ্রাম।

পোকো এম২ রিলোডেড ফোনটির ৪/৬৪ জিবি ভ্যারিয়ান্টটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ১৪৯৯৯ টাকায়।

৪. রিয়েলমি সি২৫এস

রিয়েলমি সি২৫এস15000 টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বাংলাদেশ তালিকায় রিয়েলমির অন্য ফোনটি হচ্ছে রিয়েলমি সি২৫এস। বাজেট গেমারদের জন্য তৈরি এই ফোনটির প্রসেসর হিসেবে আছে মিডিয়াটেকের হেলিও জি৮৫ প্রসেসর। ৬.৫ ইঞ্চির ডিসপ্লেটির রেজোলিউশন এইচডি প্লাস। ৪৮ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরা আর ৬০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারির সাথে আছে ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জার।

এক নজরে রিয়েলমি সি২৫এস ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসর: মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৫।
  • ডিসপ্লে: ৬.৫ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোলিউশন: ৭২০ * ১৬০০।
  • ব্যাটারি: ৬০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • মেইন ক্যামেরা: ৪৮ মেগাপিক্সেল।
  • সেলফি ক্যামেরা: ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটি: ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক।
  • অপারেটিং সিস্টেম: অ্যান্ড্রয়েড ১১।
  • ডাইমেনশন: ১৬৪.৫ * ৭৫.৯ * ৯.৬ মিলিমিটার।
  • ওজন: ২০৯ গ্রাম।

রিয়েলমি সি২৫এস ফোনটির ৪/৬৪ জিবি ভ্যারিয়ান্টটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ১৪৪৯০ টাকায়।

৫. টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো

টেকনো স্পার্ক ৭ প্রোটেকনো বাংলাদেশে best phone under 15000 taka বাজেট রেঞ্জে দিনদিন বেশ জনপ্রিয় ব্র্যান্ড হয়ে উঠছে। টেকনোর স্পার্ক সিরিজ বরাবরই বাজেটে জনপ্রিয়। মিডিয়াটেকের হেলিও জি৮০ প্রসেসর, ৯০ হার্জের ডিসপ্লে, ৪৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা- সবমিলিয়ে বেশ ভালো একটি প্যাকেজ অফার করছে ফোনটি। আছে বড়সড় ব্যাটারি আর স্টাইলিশ ডিজাইন।

এক নজরে টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসর: মিডিয়াটেক হেলিও জি৮০।
  • ডিসপ্লে: ৬.৬ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোলিউশন: ৭২০*১৬০০।
  • ব্যাটারি: ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • মেইন ক্যামেরা: ৪৮ মেগাপিক্সেল।
  • সেলফি ক্যামেরা: ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটি: ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।
  • অপারেটিং সিস্টেম: অ্যান্ড্রয়েড ১১।
  • ডাইমেনশন: ১৬৪.৯ * ৭৬.৬ * ৮.৮ মিলিমিটার

টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো ফোনটির ৪/৬৪ জিবি ভ্যারিয়ান্টটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ১৩৪৯০ টাকায়।

৬. অপ্পো এ১৬

১৫০০০ টাকার মাঝে সেরা ফোনbest phone under 15000 বাজেটে ক্যামেরা প্রিয় ব্যবহারকারীদের অন্যতম পছন্দের নাম অপো। মিডিয়াটেকের হেলিও জি৩৫ প্রসেসর, ১৩ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরার সাথে স্টাইলিশ ডিজাইন- যেকোনো লাইট ইউজারের জন্য বেশ ভালো একটি ফোন।

এছাড়াও ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারিটি বেশ ভালো ব্যাকআপ দিবে বলা যায়।

এক নজরে অপো এ১৬ ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসর: মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫।
  • ডিসপ্লে: ৬.৫২ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোলিউশন: ৭২০ * ১৬০০।
  • ব্যাটারি: ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • মেইন ক্যামেরা: ১৩ মেগাপিক্সেল।
  • সেলফি ক্যামেরা: ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটি: ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক।
  • অপারেটিং সিস্টেম: অ্যান্ড্রয়েড ১১।
  • ডাইমেনশন: ১৬৩.৮ * ৭৫.৬ * ৮.৪ মিলিমিটার।
  • ওজন: ১৯০ গ্রাম।

অপ্পো এ১৬ ফোনটির ৩/৩২ জিবি ভ্যারিয়ান্টটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ১২৯৯০ টাকায়।

৭. স্যামসাং গ্যালাক্সি এ১২

১৫ হাজার টাকায় স্যামসাং এ১২ মোবাইল১৫ হাজার টাকার মধ্যে স্যামসাংয়ের সবচেয়ে সেরা ফোনগুলোর একটি হচ্ছে স্যামসাং গ্যালাক্সি এ১২। মিডিয়াটেকের হেলিও পি৩৫ প্রসেসর চালিত এই ফোনটিতে রয়েছে সাড়ে ছয় ইঞ্চির এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। পেছনে ৪৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরার সাথে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড ক্যামেরাসহ কোয়াড ক্যামেরার সেটআপ।

যাদের স্যামসাং ফোন পছন্দ তারা ১৫০০০ টাকার মধ্যে ভালো ফোন ২০২২ বাংলাদেশ লিস্ট থেকে এই ফোনটি বেছে নিতে পারেন।

এক নজরে স্যামসাং গ্যালাক্সি এ১২ ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসর: মিডিয়াটেক হেলিও পি৩৫।
  • ডিসপ্লে: ৬.৫ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজ্যুলিউশন: ৭২০ * ১৬০০।
  • ব্যাটারি: ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • মেইন ক্যামেরা: ৪৮ মেগাপিক্সেল।
  • সেলফি ক্যামেরা: ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটি: ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক।
  • অপারেটিং সিস্টেম: অ্যান্ড্রয়েড ১০।
  • ডাইমেনশন: ১৬৪ * ৭৫.৮ * ৮.৯ মিলিমিটার।
  • ওজন: ২০৫ গ্রাম।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ১২ ফোনটির ৪/৬৪ জিবি ভ্যারিয়ান্টটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ১৪৯৯৯ টাকায়।

৮. টেকনো স্পার্ক ৭

টেকনো স্পার্ক ৭ প্রাইসbest mobile under 15000 তালিকায় টেকনোর দ্বিতীয় যে ফোনটি আছে তা হচ্ছে টেকনো স্পার্ক ৭। মিডিয়াটেকের হেলিও এ২৫ প্রসেসরের সাথে সাড়ে ছয় ইঞ্চির ডিসপ্লে আর ৬০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের বিশাল ব্যাটারি সহ মিলিয়ে তুলনামূলক কম বাজেটে ভালো একটি অপশন হত পারে এই ডিভাইসটি।

এক নজরে টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসর: মিডিয়াটেক হেলিও এ২৫।
  • ডিসপ্লে: ৬.৫ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোলিউশন: ৭২০ * ১৬০০।
  • ব্যাটারি: ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • মেইন ক্যামেরা: ১৬ মেগাপিক্সেল।
  • সেলফি ক্যামেরা: ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটি: ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।
  • অপারেটিং সিস্টেম: অ্যান্ড্রয়েড ১১।
  • ডাইমেনশন: ১৬৪.৮ * ৭৬.১ * ৯.৫ মিলিমিটার।
Related:  ২০টি কম দামে ভালো ফোন 2022 বাংলাদেশ : ১২ হাজার টাকার মধ্যে ফোন

টেকনো স্পার্ক ৭ ফোনটির ৪/৬৪ জিবি ভ্যারিয়ান্টটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ১১৯৯০ টাকায়।

৯. ভিভো ওয়াই২০ ২০২১

১৫০০০ টাকায় ভালো ফোন15 হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে এমন ফোনের তালিকায় ভিভোর একমাত্র ফোন ভিভো ওয়াই২০ ২০২১। বেশ স্লিম বডির সাথে আছে অসাধারণ নজরকাড়া ডিজাইনের সমন্বয়। মিডিয়াটেকের হেলিও পি৩৫ প্রসেসরের ফোনটিতে রয়েছে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারি। ফোনটির ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরটি সাইড মাউন্টেড যা ফোনটির লুকে ভিন্নমাত্রা এনে দিয়েছে।

এক নজরে ভিভো ওয়াই২০ ২০২১ ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসর: মিডিয়াটেক হেলিও পি৩৫।
  • ডিসপ্লে: ৬.৫১ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোলিউশন: ৭২০ * ১৬০০।
  • ব্যাটারি: ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • মেইন ক্যামেরা: ১৩ মেগাপিক্সেল।
  • সেলফি ক্যামেরা: ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটি: ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক।
  • অপারেটিং সিস্টেম: অ্যান্ড্রয়েড ১১।
  • ডাইমেনশন: ১৬৪.৪ * ৭৬.৩ * ৮.৪ মিলিমিটার।
  • ওজন: ১৯২ গ্রাম।

ভিভো ওয়াই ২০ ২০২১ ফোনটির ৪/৬৪ জিবি ভ্যারিয়ান্টটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ১৩৯৯০ টাকায়।

১০. রিয়েলমি সি২৫ ওয়াই

১৫ হাজার টাকায় রিয়ালমি ফোন১৫ হাজার টাকা বাজেটে রিয়েলমি বেশ ভালো কিছু ফোন অফার করছে। বিশেষত সি২৫ ফোনটি বেশ জনপ্রিয় হওয়ার পরে সি২৫ওয়াই ফোনটি রিলিজ করে রিয়েলমি। ইউনিএসওসি টি৬১০ প্রসেসরের ফোনটিতে রয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরা ও ৮ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। ফোনটির ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারির সাথে বক্সেই রয়েছে ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জার।

এক নজরে রিয়েলমি সি২৫ওয়াই ফোনটির ফিচারসমূহ:

  • প্রসেসর: ইউনিএসওসি টি৬১০।
  • ডিসপ্লে: ৬.৫ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি।
  • ডিসপ্লে রেজোলিউশন: ৭২০ * ১৬০০।
  • ব্যাটারি: ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার।
  • মেইন ক্যামেরা: ৫০ মেগাপিক্সেল।
  • সেলফি ক্যামেরা: ৮ মেগাপিক্সেল।
  • সিকিউরিটি: ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক।
  • অপারেটিং সিস্টেম: অ্যান্ড্রয়েড ১১।
  • ডাইমেনশন: ১৬৪.৫ * ৭৬.০ * ৯.১ মিলিমিটার।
  • ওজন: ২০০ গ্রাম।

রিয়েলমি সি২৫ওয়াই ফোনটির ৪/৬৪ জিবি ভ্যারিয়ান্টটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ১৩৯৯০ টাকায়।

15000 টাকার মাঝে ভালো মোবাইল, তবে কিছুটা পুরাতন মডেল এমন আরো ৫টি best phone under 15000 দেখে নেওয়া যাক।

১৫০০০ টাকার মধ্যে ৫ টি ভালো মোবাইল

বাজারে অন্যতম জনপ্রিয় সেগমেন্ট হচ্ছে ১৫ হাজার টাকা বাজেটে ফোনের সেগমেন্ট। এই বাজেট সেগমেন্টটি যেমন জনপ্রিয় তেমনই প্রতিযোগিতাপূর্ণ।

দৈনন্দিন ব্যবহারে ভালো পারফরম্যান্স, মোটামুটি ভালো ক্যামেরা, ভালো ব্যাটারি ব্যাকআপ, স্টাইলিশ ডিজাইন- এগুলোই মূলত এই বাজেটের গ্রাহকদের চাওয়া। এইসব চাওয়ার কথা মাথায় রেখে ১৫ হাজার টাকা বাজেটে সেরা ৫টি ফোন এই তালিকায় স্থান পেয়েছে।

১১. Realme C12

কম-দামে-ভালো-ফোন

আমাদের ১৫০০০ টাকার মধ্যে ভালো ফোন ২০২২ বাংলাদেশ এর বাজারে বেশ জনপ্রিয় রিয়ালমি কোম্পানীর Realme C12 Smartphone টি। এটি যদিও কিছুটা আগের ফোন তবে এটি এই বাজেটে অনেক ভালো একটি ফোন। এটি বর্তমান অফিশিয়াল Price = 10999 Taka। চলুন প্রথমেই আমরা এই ফোনটির Specification সম্পর্কে জেনে নেই।

SPECIFICATION:

  • DISPLAY : 6.5″ IPS LCD
  • RESOLUTION : HD+
  • PROCESSOR : MEDIATEK HELIO G35
  • GPU : POWERVR GE8320
  • MAIN CAMERA : 13MP + 2MP + 2MP
  • FRONT CAMERA : 5MP
  • RAM : 3GB
  • STORAGE : 32GB
  • BATTERY : 6000mAh
  • CHARGER :10 W
  • PRICE : 10999 TAKA 

১২ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল ফোন’টিতে আপনি পেয়ে যাবেন বিশাল 6000mAh এর একটি ব্যাটারি সাথে একটি বিশাল Display। তাই যারা অনলাইন ক্লাস করেন বা প্রচুর ভিডিও দেখেন তাদের জন্য এটি অনেক ভালো একটি Smartphone।

তাছাড়া, Smartphoneটিতে আপনারা Gamingও করতে পারবেন কারণ, এখানে রয়েছে Gaming এর জন্য Mediatek Helio G35 Processor।

তাই যাদের বাজেট ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা তাদের জন্য এটা One Of The Best Phone For Gaming.

১২. VIVO Y20

১৫ হাজার টাকার মধ্যে স্মার্টফোন

Best Phone Under 15000 এ বাজারে এখনো বেশ ভালো অবস্থান বজায় রেখেছে Vivo Y20 Smartphone টি। প্রথমে চলুন আমরা এই ফোনটির Specification সম্পর্কে জেনে নেই।

SPECIFICATION:

  • DISPLAY: 6.51″ IPS LCD
  • RESOLUTION: HD+
  • PROCESSOR: SNAPDRAGON 460
  • GPU: ADRENO 610
  • MAIN CAMERA: 13MP+2MP+2MP
  • FRONT CAMERA: 8MP
  • RAM: 4GB
  • STORAGE: 64GB
  • BATTERY: 5000mAh
  • CHARGER: 18W
  • PRICE: 14999TAKA

Vivo Y20 Smartphone টির প্রসেসর Gaming Processor না হলেও এটি দিয়ে টুকটাক Gaming করা যাবে। তবে এই ফোনটির সবচেয়ে ভালো দিক হচ্ছে এর UI।

এই ফোনের ইন্টারফেইসটা এতটাই ভালো যে যারা নরমাল User আছেন তারা এই ফোনটি চালিয়ে বেশ মজা পাবেন।

তাছাড়া এতে রয়েছে 5000mAh এর বিশাল ব্যাটারি যা আপনাকে অনায়াসে এক থেকে দেড় দিনের ব্যাটারি ব্যকআপ দিবে আর ফোনটিকে চার্জ করার জন্য রয়েছে 18W এর ফাস্ট চার্জিং সিস্টেম। যা আপনার ফোনকে খুব দ্রুত চার্জ হতে সাহায্য করবে।

তাই যারা ১৫০০০ টাকা বাজেটে অনলাইন ক্লাস বা ভিডিও দেখার জন্য স্মার্টফোন খুঁজছেন, তাদের জন্য এটা হতে পারে বেস্ট চয়েস।

১৩. OPPO A33 [2020 edition]

Best Smartphone Under 15000 এ তৃতীয় স্থানে যে Smartphone টি আছে সেটি হচ্ছে Oppo A33 2020 edition.

Related:  ১০টি কম দামে ভালো ট্যাব ২০২২ : tab price in bangladesh

১০ থেকে ১৫ হাজার টাকার ফোন

এই ফোনটির আগের একটি  edition আছে যেটা একই মডেলের। তাই আপনারা 2020 সালের Edition কিনা তা দেখে নিবেন। চলুন এখন আমরা এর Specification সম্পর্কে জেনে নেই।

SPECIFICATION:

  • DISPLAY: 6.5″ IPS LCD with 90 Hz refresh Rate!
  • PROCESSOR: SNAPDRAGON 460
  • GPU: ADRENO 610
  • MAIN CAMERA: 13MP+2MP+2MP
  • FRONT CAMERA: 8MP
  • RAM: 3GB
  • ROM: 32GB
  • BATTERY: 5000mAh
  • CHARGER: 18W
  • PRICE: 13999 TAKA

Oppo A33(2020) Smartphone টি অনেকটা পূর্বের Vivo Y20 এর মত হলেও এই ফোনটিতে রয়েছে 90Hz Refresh Rate যা এই বাজেটে অন্য কোনো ফোন আপনাকে দিচ্ছে না।

Display তে 90Hz Refresh Rate থাকার কারণে আপনি যখন ফোনটি চালাবেন তখন ফোনটি আপনার কাছে অনেক Smooth মনে হবে। তাছাড়া Animation গুলোও হয়ে যাবে অনেক সুন্দর এই 90Hz Refresh Rate এর কারনে।

এই ফোন দিয়েও আপনারা টুকটাক গেমিং করতে পারবেন। আর সাথে 5000mAh এর বিশাল ব্যাটারি এবং 18W এর Fast Charging System তো আছেই।

তাই যারা ১৫০০০ টাকার মধ্যে মোবাইল চাচ্ছেন যেটিতে 90Hz Refresh Rate থাকবে, তারা অবশ্যই এই ফোনটি কিনতে পারেন।

১৪. INFINIX HOT 10

best phone in low price

আমাদের ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল ২০২২ এ জনপ্রিয়তার দিক দিয়ে বেশ শক্ত অবস্থায় রয়েছে Infinix Hot 10। এই ফোনটি দিয়ে আপনি গেমিং করা, ভিডিও দেখা, অনলাইনে ক্লাস করা সহ সব ধরনের কাজই করতে পারবেন। তাহলে চলুন প্রথমে আমরা ফোনটির Specification সম্পর্কে জেনে নেই।

SPECIFICATION:

  • DISPLAY: 6.78″ IPS LCD
  • RESOLUTION: HD+
  • PROCESSOR: MEDIATEK HELIO G70
  • GPU: MALI G52
  • MAIN CAMERA: 16MP+2MP+2MP+LOW LIGHT SENSOR
  • FRONT CAMERA: 8MP
  • RAM: 4GB
  • STORAGE: 128GB
  • BATTERY: 5200mAh
  • CHARGER: 10W
  • PRICE: 12990TAKA

১৫ হাজার টাকা বাজেটে যারা একটি গেমিং ফোন খুঁজছেন তাদের জন্য এটি একটি ভালো চয়েস হতে পারে।

কারণ এই ফোনটিতে রয়েছে মিডিয়াটেক এর Helio G70 Processor যা একটি গেমিং প্রসেসর। তাছাড়া এখানে আছে 128GB Storage. যার ফলে আপনারে এখানে আপনাদের পছন্দের সকল ভিডিও সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন। এই ফোনটির ক্যামেরাটিও তুলনামূলকভাবে ভালো।

এতে রয়েছে 5200mAh এর বিশাল ব্যাটারি। যদিও এতে চার্জিং এর জন্য মাত্র 10W এর চার্জার দেয়া হয়েছে তবে ফোনটিকে একবার ফুল চার্জ করে ফেললে চার্জ দেয়ে নিয়ে আর চিন্তা করতে হবে না।

তাই যারা কম দামে ভালো একটি গেমিং ফোন খুঁজছেন তারা এই ফোনটি কিনতে পারেন।

১৫. REALME NARZO 20:

BEST PHONE UNDER 15000 TAKA

15000 টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বাংলাদেশ এর সেরা ফোনটি হচ্ছে REALME NARZO 20। এই ফোনটি দিয়ে আপনি Gaming,Video Recording, Online Class সহ সকল ধরনের কাজই করতে পারবেন।

চলুন তাহলে প্রথমে আমরা Realme Narzo 20 এর Specification গুলো একনজরে দাখে আসি।

SPECIFICATION:

  • DISPLAY: 6.52″ IPS LCD
  • RESOLUTION: HD+
  • PROCESSOR: MEDIATEK HELIO G85
  • GPU: MALI G52
  • MAIN CAMERA: 48MP+8MP+2MP
  • FRONT CAMERA: 8MP
  • RAM: 4GB
  • STORAGE: 64GB
  • BATTERY: 6000mAh
  • CHARGER : 18W
  • PRICE: 13999 TAKA

Best Phone Under 15000 এর সেরা ফোনটি হচ্ছে Realme Narzo 20। কারণ এই ফোনটি আপনার প্রতিদিনের সকল কাজই করতে পারবে অতি সহজে।

এটিতে রয়েছে Mediatek এর G85 Processor যা একটি গেমিং প্রসেসর। তাই এই মোবাইল দিয়ে আপনারা যেকোনো হাই ডেফিনেশন গেম থেকে শুরু করে সকল ধরনের Game-ই খেলতে পারবেন।

এই ফোনে রয়েছে 6000mAh এর একটি বিশাল ব্যাটারী। তাই চার্জ শেষ হয়ে যাওয়া  নিয়েও আপনাকে কোনো চিন্তা করতে হবে না। তাছাড়া চার্জ দেয়ার জন্য 18W এর ফাস্ট চার্জিং এর সুবিধা তো আছেই।

তাছাড়া Realme Narzo 20 এর একটি অন্যতম ফিচার হল এর 48 Magapixel এর ক্যামেরা যা দিয়ে আপনারা অসাধারণ কিছু ছবি তুলতে পারবেন।

ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন 1080p 60Fps এ, ফলে এই ফোন দিয়ে চাইলে আপনি ভিডিও রেকর্ডিংও করতে পারবেন, যা এই বাজেটের অন্য কোনো ফোনে আপনি পাবেন না।

15000 টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বাংলাদেশ নিয়ে শেষ কথা

বাজারে ১৫০০০ টাকা বাজেটে অনেকগুলো ফোন থাকলেও এই দশটি ফোন আমাদের দৃষ্টিতে বেশ ভালো লেগেছে। এগুলোর মধ্য থেকে আপনার চাহিদা ও পছন্দের সাথে মিল রেখে খুঁজে নিন আপনারটি!

আপনি কি আরো কম দামে ভালো গেমিং ফোন চান? তবে আপনাকে আরো একটু কষ্ট করে শুধুমাত্র গেমিং ফোনগুলো দেখে নিতে হবে।

তবে যদি 15 হাজার টাকার মধ্যে সেরা ফোনটি নিতে চান তাহলে অবশ্যই Realme Narzo 20 হবে আপনার জন্য সেরা পছন্দ।

আশা করি, আপনারা 15000 টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বাংলাদেশ এর বাজার থেকে আপনার পছন্দের ফোনটি খুঁজে পেয়েছেন। আমাদের লিস্টের বাইরে best phone under 15000 এর মধ্যে কোনো মোবাইল ব্যবহার করে আপনার ভালো লেগে থাকলে কমেন্ট করে শেয়ার করতে ভুলবেননা কিন্তু।

4 thoughts on “সেরা ১৫টি 15000 টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বাংলাদেশ ২০২২”

    1. আমাদের সাইটে কপিরাইট ফ্রি ছবি ডাউনলোড করার ওয়েবসাইট সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে, দেখে নিবেন দয়া করে। ধন্যবাদ।

Leave a Comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।