৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন ২০২৩ | 8000 price mobile in Bangladesh

৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন বাংলাদেশ

৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন ২০২৩ সালে এসে খুঁজে পাওয়া একটু কঠিনই বটে। তবে অনেকেই শুধু নরমাল কাজের জন্য 8000 price mobile in Bangladesh ও দশ হাজার টাকার মধ্যে ফোন সার্চ করে থাকেন। তাই গ্রাহকের চাহিদা মাথায় রেখে বিভিন্ন ব্র্যান্ড নিয়মিত কম দামে ভালো ফোন রিলিজ করে যাচ্ছে। আপনিও যদি ৮০০০ টাকার মধ্যে ভালো ফোন কিনতে চান তবে এই তালিকাটি আপনার জন্যই।

৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন তালিকায় ২০২৩ সালে বাজারে আসা সেরা ফোনগুলোকে একসাথে তুলে ধরেছি। ৭ হাজার থেকে ৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন তালিকায় থাকা ফোনগুলো শুধুমাত্র নরমাল ইউজারদের জন্য। Best Phone Under 8000 in Bangladesh তালিকা করার সময় ব্রান্ড, হিটিং ইস্যু, ডিসপ্লে এবং ইউজার এক্সপেরিয়েন্সকেই শুধু গুরুত্ব দিয়ে দেখেছি।

তাই, আপনি যদি ফোনে হেভী গেমিং ও মাল্টিটাস্কিং করতে চান তবে আপনার বাজেট একটু বাড়িয়ে ২০-২৫ হাজার টাকার বাজেটের ফোন কিনতে হবে।

এবার তাহলে চলুন ৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন ২০২৩ তালিকায় স্থান পাওয়া ফোনগুলোর মূল্য এবং ফিচার সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন ২০২৩। 8000 price mobile in Bangladesh

একনজরে ৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন ২০২৩ ;

৮০০০ টাকার ফোন ফোনের দাম
Walton Primo GH10i ৭,৯৯৯/=
Walton Primo GH11 ৮,৭৯০/=
Nokia C2 2nd Edition ৮,৪৯৯/=
Symphony i73 ৭,৪৯৯/=
Symphony V139 ৭,০০০/=
Symphony i85 ৮,২৯৯/=
Symphony i80 ৭,৯৯০/=
Lava X2 ৭,৯৯০/=
itel A49 Play ৭,৯৯০/=
itel P38 ৮,০০০/=

1. Walton Primo GH10i

৮ হাজার টাকার মধ্যে ওয়ালটন ফোন

৮০০০ টাকার মধ্যে ভালো ফোন বাংলাদেশ তালিকায় প্রথমেই রয়েছে দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটনের তৈরি প্রিমিও GH10i ফোনটি। ফোনটির ব্যাকসাইডে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার সহ আকর্ষণীয় ডিজাইন করা হয়েছে।

সামনের অংশে ৬.৫২ ইঞ্চির এইচডি+ রেজ্যুলেশনের IPS INCELL ডিসপ্লে রয়েছে। ফুল এইচডি+ ডিসপ্লে না থাকায় কিছুটা শার্পনেসের ঘাটতি অনুভব করবেন। তবে ডিসপ্লেতে ব্রাইটনেস মোটামুটি পাওয়া যায়। মিডিয়াম ইউজাররা বাজেটের তুলনায় ডিসপ্লে থেকে আশানুরূপ পারফর্মেন্স পাবেন ।

প্রসেসরের দিকে নজর দিলে দেখা যায় এখানে Unisoc এর টাইগার সিরিজের T310 SoC ব্যবহৃত হয়েছে। এই প্রসেসরের মাধ্যমে বেসিক 2 Dimension গেমগুলো ভালোভাবে খেলতে পারবেন। তাই যারা গেমিংয়ের জন্য ফোন কিনতে চান তাদের জন্য এই ফোনটি রিকমেন্ড করার মতো নয়।

ফোনটিতে ২জিবি RAM এবং ৩২জিবি ROM রয়েছে। স্টোরেজ কম থাকার কারনে একসাথে ৩/৪টি অ্যাপ রান করালে পারফর্মেন্স কমে যেতে পারে। তবে নরমাল ব্যবহার করলে এই ফোনটি থেকেও ভালো পারফর্মেন্স পাবেন।

ফোনের ব্যাকপার্টে ট্রিপল ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। এর মধ্যে ৮ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরা দিয়ে এভারেজ মানের ছবি পাওয়া যাবে। ৫ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরার পারফর্মেন্সও প্রায় একইরকম পাবেন। তবে প্রোপার লাইটিংয়ে উভয় ক্যামেরা থেকেই চলনসই ছবি পাওয়া যাবে।

ফোনে পাওয়ার ব্যাকআপ দেওয়ার জন্য 4000 mAh এর একটি লিথিয়াম ব্যাটারি রয়েছে। যেহেতু ফোনের প্রসেসরটি কম পরিমাণে পাওয়ার বার্ণ করে তাই অনায়াসে ১ দিনের বেশি ব্যাকআপ পেয়ে যাবেন।

ওয়াল্টনের এই ফোনটি Royal Blue, Emerald Green দুটি আকর্ষণীয় কালারে মার্কেটে পাওয়া যাবে।

বর্তমানে Walton Primo GH10i মোবাইলের দাম ৭৯৯৯ টাকা।

Walton Primo GH10i মোবাইল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর Unisoc Tiger T310 SoC, Quad-Core
ডিসপ্লে 6.52 inches IPS INCELL
ব্যাক ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল
ভিডিও রেজ্যুলেশন ১০৮০ পিক্সেল
সেলফি ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি Lithium Polymer 4000 mAh
স্টোরেজ ২/৩২ জিবি
কালার Royal Blue, Emerald Green

2. Walton Primo GH11

৮০০০ টাকার মধ্যে ওয়ালটন ফোন

৮০০০ টাকার মধ্যে ভালো ফোন বাংলাদেশ ২০২৩ তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ওয়ালটন প্রিমো সিরিজের GH11 স্মার্টফোনটি। ব্যাকপার্ট প্লাস্টিকের তৈরি এবং টেক্সচার ডিজাইন দেওয়া হয়েছে। ফোনের  বাড়তি সিকিউরিটির জন্য মাঝামাঝি স্থানে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার স্থাপন করা আছে যেন সহজে আনলক করা যায়।

ফোনটিতে ৬.৫২ ইঞ্চির একটি এইচডি+ IPS ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। ডিসপ্লের কালার, ব্রাইটনেস এবং শার্পনেস কোয়ালিটি বেশ ভালো ও বাজেটের তুলনায় সন্তোষজনক। ফোনের স্পিকার নীচের অংশে থাকায় সাউন্ড বাঁধাগ্রস্ত হয় না, তাই অডিও কোয়ালিটিও বেশ ভালো পাবেন।

ফোনের ২/৩২ জিবি ও ৪/৩২ জিবি দুটি ভ্যারিয়েন্ট বাজারে আছে। দুটোতেই মিডিয়াটেকের Helio A22 প্রসেসরটি ব্যবহার করা হয়েছে। তবে ২ জিবি ভ্যারিয়েন্টটি রান করছে Android 11 (Go Edition) এ এবং ৪ জিবি ভ্যারিয়েন্টটি Android 12 (Go Edition) অপারেটিং সিস্টেমে রান করছে। তাই যদি ফোন থেকে তুলনামূলক ভালো পারফরমেন্স পেতে চান তাহলে ৪/৩২ জিবি ভ্যারিয়েন্টটি রিকমেন্ড করছি।

আরো পড়ুন:  নতুন মোবাইল ফোন কেনার আগে যেসব জিনিস দেখে নিতে হবে

ফোনের প্রসেসরটি যেহেতু পুরনো মডেলের তাই এই ফোন দিয়ে হেভী মাল্টিটাস্কিং করা যাবে না। গেমিং এর ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য হবে। এটাতে সাধারন গেমগুলো ভালোভাবেই খেলতে পারবেন তবে ভারী গেমগুলো রান করালে সমস্যা ফেস করতে হতে পারে।

ফোনে ১৩+০.৩+০.৩ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা ও সামনে ৫ মেগাপিক্সেলের একটি সেলফি ক্যামেরা রয়েছে। ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন ১০৮০ পিক্সেলে। তবে স্বল্প আলোতে ছবি এবং ভিডিও উভয়ের কোয়ালিটিই ড্রপ করে থাকে।

ব্যাটারি সেকশনে 4200 mAh এর একটি ব্যাটারি রয়েছে। নরমালভাবে ইউজ করলে এর মাধ্যমে ১দিনের বেশি সময় ব্যাকআপ পাওয়া যাবে।

ওয়ালটনের এই ফোনটি Grass Green, Night Blue, Grey Blue তিনটি আকর্ষণীয় কালারে পাওয়া যাচ্ছে ।

Walton Primo GH11  ফোনের বর্তমান দাম ৮৭৯০ টাকা।

Walton Primo GH11 মোবাইল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর MediaTek Helio A22 (12 nm)
ডিসপ্লে 6.52 inches IPS INCELL
ব্যাক ক্যামেরা ১৩+০.৩+০.৩ মেগাপিক্সেল
ভিডিও রেজ্যুলেশন ১০৮০ পিক্সেল
সেলফি ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি Lithium Polymer 4200 mAh
স্টোরেজ ২/৩২ জিবি, ৪/৩২ জিবি
কালার Grass Green, Night Blue, Grey Blue

3. Nokia C2 2nd Edition

৮০০০ টাকার মধ্যে নোকিয়া ফোন

৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন বাংলাদেশ তালিকার ৩নং এ আছে Nokia C2 2nd Edition. টেকসই মোবাইল ফোন তৈরির জন্য সুপরিচিত ব্র্যান্ড নোকিয়া তাদের স্বল্প বাজেটের স্মার্টফোন Nokia C2 2nd Edition লঞ্চ করেছে। Dark Blue, Warm Gray দুটি কালারেই ডিজাইন খুবই সিম্পল রাখা হয়েছে।

ডিসপ্লে হিসেবে পুরনো মডেলের ৫.৭ ইঞ্চি IPS LCD প্যানেল ব্যবহার করা হয়েছে। এটি ৪৮০ x ৯৬০ পিক্সেল রেজ্যুলেশন এবং 188 ppi Density সম্পন্ন। তাই ডিসপ্লের ব্রাইটনেস, কালার ও আনুষঙ্গিক বিষয়গুলো বাজেটের তুলনায় আশানুরূপ পাওয়া যাবে।

ফোনের ব্যাকসাইডে ৫ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা রয়েছে। ক্যামেরাটি কিছুটা ছোট হলেও প্রোপার লাইটিংয়ে কাজ চলার মতো ছবি দিতে পারে। ২ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা দিয়েও এভারেজ মানের ছবি পাওয়া যাবে। আর ভিডিওগ্রাফি করা যাবে সর্বোচ্চ ৭২০ পিক্সেলে।

ফোনের প্রসেসর হিসেবে Quad-core 1.5 GHz ব্যবহার করা হয়েছে। আর এটি Android 11 (Go Edition) অপারেটিং সিস্টেমে রান করছে। ফোনের প্রসেসরটি ততটা পাওয়ারফুল না থাকায় ভারী গেমগুলো খেলা যাবে না। নরমাল গেমগুলো স্মুথলি খেলতে পারবেন। তবে সাধারন কাজগুলো ভালোভাবে করা যাবে।

ফোনটিতে ২৪০০ mAh এর একটি লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। এটি সাধারনত ১ দিনের বেশি সময় ব্যাকআপ দিতে সক্ষম। ফোনের ১/৩২ জিবি, ২/৩২ জিবি দুইটি ভ্যারিয়েন্ট বাজারে রয়েছে।

বর্তমানে Nokia C2 2nd Edition ফোনটি বিক্রয়মূল্য রয়েছে ৮৪৯৯ টাকা।

Nokia C2 2nd Edition মোবাইল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর Quad-core, 1.5 GHz
ডিসপ্লে 5.7 inches IPS LCD
ব্যাক ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল
ভিডিও রেজ্যুলেশন ৭২০  পিক্সেল
সেলফি ক্যামেরা ২ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি Lithium Polymer 2400 mAh
স্টোরেজ ১/৩২ জিবি, ২/৩২ জিবি
কালার Dark Blue, Warm Gray

4. Symphony i73

৮০০০ টাকার মধ্যে সিম্ফনি ফোন

৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন ২০২৩ তালিকার ৪নং এ আছে Symphony i73. কম দামে ভালো ফোনের জন্য দেশের অন্যতম জনপ্রিয় ব্র্যান্ড সিম্ফোনি এবার নিয়ে এসেছে Symphony i73 স্মার্টফোন। ফোনটি নভেম্বর মাসেই লঞ্চ হয়েছে Aqua Green, Forest Green, Cobalt Blue এই তিনটি ভিন্ন কালারে।

ফোনের সামনের অংশে ১৪৪০x৭২০ পিক্সেল রেজ্যুলেশন সম্পন্ন ৬ ইঞ্চি IPS LCD প্যানেলের একটি ডিসপ্লে রয়েছে। 262 ppi ডেনসিটি থাকায় ভিডিও কনটেন্ট দেখার সময় বেটার এক্সপেরিয়েন্স পাওয়া যাবে।

এই ফোনের একটি আকর্ষণীয় দিক হলো এর “ফেইস লক” ফিচারটি! সাধারণত, এই বাজেটের ফোনে এই ফিচার পাওয়া যায় না। তাছাড়া, ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারও রয়েছে।

ব্যাকসাইডে ৮ মেগাপিক্সেলের একটি প্রাইমারি ক্যামেরা রয়েছে। দিনের বেলায় পর্যাপ্ত আলোতে ভালো মানের ছবি পাওয়া যাবে। ৫ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা দিয়েও স্যোশাল মিডিয়ায় আপলোড করার মতো ছবি তুলতে পারবেন। তাছাড়া,  ১০৮০ পিক্সেলে ভিডিওগ্রাফিও করা যাবে।

এই বাজেটের ফোনগুলোর প্রসেসরের দিকে নজর না দেওয়াটাই ভালো। তবে এই ফোনে ১.৪ গিগাহর্জের একটি UNISOC SC9832E (28 nm) প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। যা ততটা পাওয়ারফুল না হলেও বাজেট বিবেচনায় বেশ ভালো একটি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে।

সাধারন মাল্টিটাস্কিং এবং ছোট গেমগুলোও স্মুথলী প্লে করা যাবে। তবে একসাথে ৩/৪ টির বেশি অ্যাপ ব্যবহার না করাই ভালো।

ফোনের পাওয়ার ব্যাকআপ দেওয়ার জন্য ৩১৫০ mAh ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। যা প্রায় ৮ ঘন্টার মতো স্ক্রিন টাইম ব্যাকআপ দিতে পারে।

Symphony i73 ফোন এর বর্তমা মূল্য ৭৪৯৯ টাকা।

Symphony i73 মোবাইল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর UNISOC SC9832E (28 nm)
ডিসপ্লে 6 inches IPS LCD
ব্যাক ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল
ভিডিও রেজ্যুলেশন ১০৮০  পিক্সেল
সেলফি ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি Lithium Polymer 3150 mAh
স্টোরেজ ২/৩২ জিবি
কালার Aqua Green, Forest Green, Cobalt Blue
আরো পড়ুন:  6 Samsung Best Phone | সেরা স্যামস্যাং ফোনের দাম

5. Symphony V139

৮ হাজার টাকার মধ্যে সিম্ফনি ফোন

৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন বাংলাদেশ তালিকার ৫নং এ আছে Symphony V139. ডি সপ্লে সেকশনে ৫.৪৫ ইঞ্চির একটি এচডি+ IPS LCD প্যানেল রয়েছে। ডিসপ্লেতে 295 ppi ডেনসিটি থাকায় কালার কোয়ালিটি, ব্রাইটনেস এবং শার্পনেস যথেষ্ট ভালো পাওয়া যাবে।

এইচডি+ ডিসপ্লে হওয়ায় কনেন্টগুলোও সুন্দরভাবে উপভোগ করা যাবে। তবে ফোনের স্পিকারটি পেছনদিকে থাকায় সমতল জায়গায় ফোন রাখলে সাউন্ড কম পাবেন।

প্রাইমারি ক্যামেরা হিসেবে ৫ মেগাপিক্সেলের একটি শ্যূটার এবং সেলফির জন্য ২ মেগাপিক্সেলের একটি ক্যামেরা রয়েছে। ক্যামেরাগুলো যদিও একটু ছোট হয়ে গিয়েছে তবু বাজেট বিবেচনায় এটা মেনে নিতেই হবে। তবে, যাদের ছবি উঠানোর প্রবণতা আছে তাদের এই ফোনটি না কেনাই ভালো।

ফোনে Unisoc SC9832E এর একটি Quad Core প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। তাই এটাতে ভারী গেমগুলো চালানো যাবে না, ছোট ছোট গেম প্লে করা যাবে।

ফোনটিতে ফেস আনলক ফিচার রয়েছে। একইসাথে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারও রয়েছে। আপনার ‍সুবিধামতো দুটিই ব্যবহার করতে পারবেন।

2600 mAh এর লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে যা তুলনামূলক কমই বটে। তবু এর মাধ্যমে অন স্ক্রিনে প্রায় ৯ ঘন্টা ব্যাকআপ পাওয়া যাবে।

বর্তমানে Symphony V139 ফোনের মূল্য ৭০০০ টাকা।

Symphony V139 মোবাইল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর Unisoc SC9832E (28 nm)
ডিসপ্লে 5.45 inches IPS LCD
ব্যাক ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল
ভিডিও রেজ্যুলেশন ১০৮০  পিক্সেল
সেলফি ক্যামেরা ২ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি Lithium Ion 2600 mAh
স্টোরেজ ২/৩২ জিবি
কালার Dark Blue, Forest Green & Light Blue

6. Symphony i85

Best phone under 8000 in Bangladesh

বাংলাদেশে ৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন তালিকার ৬নং এ আছে Symphony i85. এই ফোনের সামনের অংশে ৬.৬ ইঞ্চির একটি IPS LCD প্যানেল ব্যবহার করা হয়েছে। এটি 269 ppi ডেনসিটি সম্পন্ন একটি এইচডি+ ডিসপ্লে। এজন্য টেক্সট এবং ভিডিও দেখার সময় ভাইব্রেন্ট কালার পাওয়া যাবে।

সিম্ফোনি এই ফোনের ২/৩২ জিবি স্টোরেজের একটি ভ্যারিয়েন্টই বাজারে এনেছে। মাত্র ২ জিবি RAM এর কথা বিবেচনায় নিয়ে বলা যায় এটিও হেভী মাল্টিটাস্কিং করার মতো ফোন না। একসাথে ২/৩ টির বেশি অ্যাপ ব্যবহার না করলে ভালো পারফর্মেন্স পাবেন।

ক্যামেরা মডিউলের দিকে নজর দিলে দেখা যাবে ব্যাকপার্টে ৫ মেগাপিক্সেলের ডুয়েল ক্যামেরা সেটাপ রয়েছে। আর সেলফির জন্যও ৫ মেগাপিক্সেলের শ্যূটার রয়েছে। তাই ১০৮০ পিক্সেলের ভিডিওগ্রাফি করার পাশাপাশি এভারেজ মানের ছবিও পাওয়া যাবে এই ফোন থেকে।

বাজেট বিবেচনায় 4050 mAh বড় একটি ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে যা দীর্ঘ সময় ব্যাকআপ দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

বর্তমানে Symphony i85 ফোনের মূল্য ৮২৯৯ টাকা।

symphony i85 মোবাইল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর SC9863A1, Octa core 1.6 GHz
ডিসপ্লে 6.6 inches IPS LCD
ব্যাক ক্যামেরা ৫ + ২.২ মেগাপিক্সেল
ভিডিও রেজ্যুলেশন ১০৮০  পিক্সেল
সেলফি ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি 4050 mAh
স্টোরেজ ২/৩২ জিবি
কালার Glory Blue, Silk Green

7. Symphony i80

Best mobile under 8000 in Bangladesh

8000 price mobile in Bangladesh 2023 তালিকার ৭ নম্বরে অবস্থান করছে সিম্ফোনির তৈরি i80 মডেলের স্মার্টফোনটি। ফোনটির ব্যাকপার্টটি প্লাস্টিকের তৈরি এবং টেক্সচার ইফেক্ট দেয়া হয়েছে। Royal Blue, Mint Green দুটি কালার ভ্যারিয়েন্টেই ডিজাইন বেশ সুন্দর।

ফোনটিতে ৬.০৯ ইঞ্চির একটি আইপিএস প্যানেলের ডিসপ্লে রয়েছে। এইচডি+ ডিসপ্লে হওয়ায় কনেন্ট দেখার ক্ষেত্রে বেটার এক্সপেরিয়েন্স পাবেন। আর স্পিকারটি ফোনের নীচের দিকে থাকায় সাউন্ড কোথাও বাঁধা পাবেনা। ফলে, অডিও কোয়ালিটি সন্তোষজনক পাওয়া যাবে।

২/৩২ জিবি স্টোরেজ সমৃদ্ধ ফোনটিতে প্রসেসর হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে Unisoc T310 মডেলের প্রসেসর যা কম সাইজের গেমগুলো স্মুথলি প্লে করতে পারবেন। তবে হেভী গেমগুলো প্লে করলে হিটিং ইস্যু ফেস করতে হতে পারে।

ক্যামেরা মডিউলে ৮+২ মেগাপিক্সেলের ডুয়েল ক্যামেরা কম্বিনেশন রয়েছে। সেলফি ক্যামেরাটিও ৮ মেগাপিক্সেলের। এই বাজেটে এরকম ক্যামেরা সাধারনত পাওয়া যায় না।

ফোনটিতে পাওয়ার ব্যাকআপ দেয়ার জন্য 3450 mAh এর ব্যাটারি রয়েছে। তবে ব্যাটারিটি অন্তত 4000 mAh ব্যাটারি দিলে অনেক বেশি সময় ব্যাকআপ পাওয়া যেত।

Symphony i80 ফোনের বর্তমান মূল্য ৭৯৯০ টাকা।

Symphony i80 মোবাইল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর Unisoc T310
ডিসপ্লে 6.09 inches
ব্যাক ক্যামেরা ৮+২ মেগাপিক্সেল
ভিডিও রেজ্যুলেশন ১০৮০  পিক্সেল
সেলফি ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি Lithium Polymer 3450 mAh
স্টোরেজ ২/৩২ জিবি
কালার Royal Blue, Mint Green

8. Lava X2

৮০০০ টাকার মধ্যে লাভা ফোন

৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল তালিকার ৮নং এ আছে Lava X2 ফোন। Blue, Cyan দুটি কালারে ছিমছাম ডিজাইন নিয়ে এবছরের মার্চ মাসে লাভা X2 ফোনটি লঞ্চ করেছে। ফোনটি ডুয়েল সিম সাপোর্টেড এবং উভয় সিমই 4G নেটওয়ার্কের আওতাভুক্ত।

ফোনের ডিসপ্লে সেকশনে 6.5 inches IPS LCD ডিসপ্লে রয়েছে যা এইচডি+ রেজ্যুলেশনের এবং 270 ppi ডেনসিটি সমৃদ্ধ। এই ডিসপ্লে এর ব্রাইটনেস, কালার ইত্যাদি পারফর্মেন্স বাজেটের তুলনায় আশানুরূপ পাওয়া যাবে। আউটডোরে দেখতে কিছুটা সমস্যা হলেও ইনডোরে সমস্যা থাকবে না।

আরো পড়ুন:  সেরা ১৫টি 15000 টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বাংলাদেশ ২০২৩

ফোনের ক্যামেরা সেটাপও বেশ ভালো। ব্যাকসাইডে ৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরাসহ ডুয়েল ক্যামেরা মডিউল এবং সেলফির জন্য ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা রয়েছে। ক্যামেরাগুলো দিয়ে সর্বোচ্চ ১০৮০ পিক্সেলে ভিডিও করার পাশাপাশি এভারেজ কোয়ালিটির ছবি তোলা যাবে।

লাভা এর স্মার্টফোনটিতে মিডিয়াটেকের MT6765G Helio প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। প্রসেসরটি থেকে যথেষ্ট ভালো পারফর্মেন্স পাওয়া যাবে। এজন্য ছোট ছোট গেমগুলো স্মুথলী প্লে করা যাবে। সাথে টুকটাক মাল্টিটাস্কিংও করতে পারবেন।

এই ফোনের অন্যতম আকর্ষনীয় দিক হলো এর বিশাল সাইজের ব্যাটারিটি। 5000 mAh ক্যাপাসিটির লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারিটি দীর্ঘসময় ব্যাকআপ দিতে পারবে। তাই যাদের ৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো পাওয়ার ব্যাকআপ ফোন কিনতে চান তারা এই স্মার্টফোনটি দেখতে পারেন।

Lava X2 ফোন এর মূল্য ৭৯৯০ টাকা।

Lava X2 মোবাইল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর MediaTek MT6765G Helio G35 (12 nm)
ডিসপ্লে 6.5 inches IPS LCD
ব্যাক ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল
ভিডিও রেজ্যুলেশন ১০৮০ পিক্সেল
সেলফি ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি Lithium Polymer 5000 mAh
স্টোরেজ ২/৩২ জিবি
কালার Blue, Cyan

9. Itel A49 Play

৮০০০ টাকার মধ্যে itel ফোন

৮০০০ টাকার মধ্যে ভালো ফোন তালিকার নবম স্থানে রয়েছে Itel A49 Play. ফোনটির ব্যাকপার্ট খুব স্মুথলী ফিনিশড এবং সামনের অংশে ৬.৩ ইঞ্চির একটি IPS LCD প্যানেলের ডিসপ্লে রয়েছে। তবে ডিসপ্লেতে শার্পনেসের কিছুটা ঘাটতি অনুভব করতে পারেন। সাউন্ড যথেষ্ট লাউড পাওয়া গেলেও অডিও কোয়ালিটি খুব একটা ভালো পাবেন না।

মোবাইলটির ক্যামেরা মডিউলে ৫+০.৩ মেগাপিক্সেলের ডুয়েল ক্যামেরা সেটাপ ব্যবহার করা হয়েছে। সামনের অংশে সেলফির জন্যও ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা রয়েছে। সর্বোচ্চ ৭২০ পিক্সেলে প্রয়োজনীয় ভিডিও ধারন করতে পারবেন।

ফোনটির ব্যাটারি সেকশনে 4000 mAh একটি ব্যাটারি রয়েছে। নরমাল ইউজের ক্ষেত্রে এটি প্রায় ১-১.৫ দিনের মতো ব্যাকআপ দিকে সক্ষম।

আইটেলের এই ফোনটির Sky Cyan, Starry Black দুইটি কালার ভ্যারিয়েন্ট রয়েছে।

Itel A49 Play ফোনের বর্তমান মূল্য ৭৯৯০ টাকা।

Itel A49 Play মোবাইল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর UniSoC SC9832E (28 nm), Quad core
ডিসপ্লে 6.3 inches IPS LCD
ব্যাক ক্যামেরা ৫+০.৩ মেগাপিক্সেল
ভিডিও রেজ্যুলেশন ৭২০ পিক্সেল
সেলফি ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি Lithium Polymer 4000 mAh
স্টোরেজ ২/৩২ জিবি
কালার Sky Cyan, Starry Black

10. itel P38

৮০০০ টাকার মধ্যে সেরা ফোন

৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন বাংলাদেশ ২০২৩ তালিকায় শেষ ফোন হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে আইটেলের পি৩৮ স্মার্টফোনটি। এটি Galaxy Blue, Spruce Green, Nebula Black এই তিনটি কালারে মার্কেটে আনা হয়েছে।

চিপসেট হিসেবে Spreadtrum SC7731 মডেলের প্রসেসরটি দেওয়া হয়েছে। স্টোরেজ রয়েছে ২/৩২ জিবি। তাই প্রসেসর এবং আনুষঙ্গিক কারনে এটি গেমিং ফোন হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না। তবে নরমাল গেমগুলো প্লে করা যাবে।

এই বাজেটের ফোনগুলোতে “ফেস আনলক” ফিচার খুব কম পাওয়া গেলেও আইটেল পি৩৮ ফোনটিতে কিন্তু ফিচারটি রয়েছে। সেই সাথে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরও রয়েছে।

ফোনটিতে ৬.৬ ইঞ্চির IPS LCD ডিসপ্লে রয়েছে। এটাতে কালার, কন্ট্রাস্ট, ব্রাইটনেস, শার্পনেস যথেষ্ট ভালো পাওয়া যাবে। এইচডি+ ডিসপ্লে এবং কোয়ালিটি ভালো হওয়ায় ভিডিও কন্টেন্ট লাভারদের পছন্দের তালিকায় থাকবে এই ফোনটি।

ক্যামেরা সেটাপের দিকে নজর দিলে দেখা যাবে ৮ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। আর সেলফি তোলার জন্য ৫ মেগাপিক্সেলের একটি ক্যামেরা রয়েছে। প্রোপার লাইটিং কন্ডিশনে ভালো কোয়ালিটির ছবি তোলা যাবে। সেই সাথে ভিডিও ধারন করা যাবে সর্বোচ্চ ৭২০ পিক্সেলে।

লম্বা সময় ব্যাটারি ব্যাকআপের কথা বিবেচনা নিলেও এই ফোনটি এগিয়ে থাকবে। পাওয়ার ব্যাকআপ দেওয়ার জন্য রয়েছে 5000 mAh এর একটি ব্যাটারি।

Itel P38 ফোনটির বর্তমান মূল্য ৮,০০০ টাকা।

Itel P38 মোবাইল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর Spreadtrum SC7731
ডিসপ্লে 6.6 inches IPS LCD
ব্যাক ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল
ভিডিও রেজ্যুলেশন ৭২০ পিক্সেল
সেলফি ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি Lithium Polymer 5000 mAh
স্টোরেজ ২/৩২ জিবি
কালার Galaxy Blue, Spruce Green, Nebula Black

৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন বাংলাদেশ নিয়ে শেষ কথা

বেশ ভালো মানের পারফর্মেন্স দেওয়ার মতো ফোনগুলোর দাম একটু বেশিই হয়ে থাকে। নিত্যদিনের ব্যসিক কাজে ব্যবহারের জন্য সেরা গেমিং ফোন এর মতো হাই পারফরম্যান্স ফোন না হলেও চলে। তাই নরমাল ইউজের জন্য বাজেট বিবেচনায় উপরে উল্লেখ করা ৮ হাজার টাকার মধ্যে ভালো ফোন গুলো থেকে আশানুরূপ পারফর্মেন্স পাওয়া যাবে।

যদি আপনার বাজেট আরেকটু বাড়িয়ে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ফোন খুঁজলে আরো বেটার ফোন পেয়ে যাবেন। প্রিয় পাঠক, তাহলে আপনি ৮০০০ টাকার মধ্যে কোন ভালো ফোনটি কিনতে যাচ্ছেন তা আমাদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না যেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top