বিশ্বস্ত ৫টি বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট, বিকাশে পেমেন্ট

বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার বিশ্বস্ত সাইট

আপনি কি বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট খোঁজ করছেন? আপনি যদি বাংলায় আর্টিকেল লিখে আয় করতে চান এবং বিকাশে পেমেন্ট নিতে চান তবে আপনি এখন ঠিক আর্টিকেলটি পড়ছেন। ফ্রিল্যান্সিং জগতে আর্টিকেল লিখে আয় করা অন্যতম বিশ্বস্ত পেশা। বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করাটা যদিও এখনো তেমন প্রচলিত না।

ফ্রিল্যান্সিং সাইটে কখনো যদি প্রবেশ করে থাকেন, তবে দেখতে পারবেন কি পরিমাণ আর্টিকেল ক্রয়-বিক্রয় চলছে। লেখক এবং লেখার মানের উপর একটি ইংরেজি আর্টিকেল ৫ ডলার থেকে ১০০ ডলার, কোনো ক্ষেত্রে ১০০০ ডলার দিয়েও ক্রয়-বিক্রয় হয়।

বাংলা মিডিয়াতে অবশ্যই আপনি এত টাকা পাবেন না। তবে দিন দিন বাংলা ব্লগ সাইট বেড়ে যাওয়ায় বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট এবং লেখার পরিধি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এখন বেশ কিছু বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট তৈরি হয়েছে, যেখানে আপনার পেমেন্ট বিকাশে নিতে পারবেন ( make money by writing bangla article ) ।

দুঃখের বিষয় যে বাংলার অনেক প্রতিভা সম্পন্ন লেখক তার লেখাগুলো শুধু ফেসবুক বা অন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে যাচ্ছে। যদি এই লেখাগুলো তারা কোনো বাংলা সাইটে প্রকাশ করেন, তবে বাংলায় তথ্য ভান্ডার সমৃদ্ধ হওয়ার পাশাপাশি কিছু সাইড ইনকামও আসতো। আপনি অবশ্যই প্রশ্ন করতে পারেন, বাংলায় আর্টিকেল লিখে আয় করার মতো বিশ্বস্ত সাইট কি আছে?

আপনি ঠিকই বলেছেন, কাজ করে পেমেন্ট পাওয়ার নিশ্চয়তা না  পেলে কেন কাজ করবো? তাই আজ আপনাকে জানাবো বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার বিশ্বস্ত ৫টি সাইট সম্পর্কে, যে সাইট থেকে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট, বিকাশ পেমেন্ট

১০টি সাইট সম্পর্কে আপনাদের জানাতে চেয়েছিলাম, কিন্তু সময় বাংলা ব্লগ ভেরিফিকেশন ছাড়া কোন তথ্য শেয়ার করে না। তাই বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার বিশ্বস্ত ৬নং সাইটটি আর খুঁজে পেলাম না। বাংলায় আর্টিকেল লেখার সাইট যে কত কম, তা খুব সহজেই অনুমেয়।

বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট সমূহ :

  • টেকটিউনস
  • গ্রাথোর
  • ইনকাম টিউনস
  • অর্ডিনারী আইটি
  • প্রতিবর্তন.কম

বাংলায় আর্টিকেল লেখার সাইট

১) বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট – টেকটিউনস

বাংলায় সবচেয়ে বড় স্যোশাল মিডিয়া টেকটিউনস। টেকটিউনসের চেয়ে বড় ব্লগ সাইট বাংলায় বর্তমানে একটিও নেই। এই সাইটটি চলছে বাংলার বিভিন্ন প্রান্তের মেধাবী লেখকগণের মাধ্যমে। বাংলায় আর্টিকেল লিখে আয় করার পথের দিশারী বলা চলে টেকটিউনসকে। তাই আপনার যদি লিখে আয় করার ইচ্ছা থাকে, তবে টেকটিউনসে লিখতে পারেন।

টেকটিউনসে  কোন টপিকে আর্টিকেল লেখা যায়

আগেই বলেছি টেকটিউনস একটি স্যোশাল মিডিয়া। এখানে আপনি যেকোন টপিক নিয়ে লিখতে পারবেন। টেকটিউনসে টিউনার আর্টিকেল শেয়ার করার পাশাপাশিভিডিও আপলোড করে ‘ভিডিও টিউন’, অডিও আপলোড করে ‘অডিও টিউন’, লিংক শেয়ার করে ‘লিংক টিউন’, স্ট্যাটাস আপলোড করে স্ট্যাটস টিউন ও ফটো শেয়ার করে ‘ফটো টিউন’ প্রকাশ করা যায়। আর্টিকেল লিখে আয় করার পাশাপাশি আপনি আপনার নিজের ইউটিউব চ্যানেল প্রমোট করার সুযোগ পাবেন।

টেকটিউনসে আর্টিকেল লিখে কত টাকা আয় করা যায়

টেকটিউনস থেকে আপনি আর্টিকেল প্রতি ১০০ থেকে সর্বোচ্চ ২৫০০ টাকা আয় করতে পারেন। তবে, প্রথম আর্টিকেল থেকে এই টাকা পাবেন না। টেকিটিউনস থেকে আয় করার জন্য আপনাকে ট্রাস্টেড টিউনার হতে হবে।

ট্রাস্টেড লেখক কিভাবে হবেন?

টেকটিউনসের গাইডলাইন ফলো করে ১০ টা আর্টিকেল পাবলিশ হতে হবে। এই ১০ টা আর্টিকেলের জন্য প্রাথমিকভাবে টাকা পাবেন না, তবে একাউন্টে জেমস জমা হবে। ১০ টাকা আর্টিকেল পাবলিশ করার পর আপনাকে ট্রাস্টেড ব্যাজ পাওয়ার জন্য আবেদন করতে হবে।

আবেদন এপ্রুভ হলে আপনার পরবর্তী  আর্টিকেল গুলোর জন্য একাউন্টে সরাসরি টাকা জমা হবে। আপনার পূর্বে জমাকৃত জেমস গুলো টাকা উঠানোর সময় ক্যাশ এ কনভার্ট করে নিতে পারবেন।

Register in Techtunes

২) গ্রাথোরে বাংলা আর্টিকেল লিখে ইনকাম

বর্তমানে বাংলায় লিখে আয় করার মতো সাইটগুলোর মধ্যে গ্রাথোর দ্রুত অনেক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে । গ্রাথোর বর্তমানে বাংলা লিখে আয় করার সাইটের মধ্যে শীর্ষের দিকেই অবস্থান করছে। গ্রাথোর এ আপনার আর্টিকেলের মান অনুযায়ী টাকা দিয়ে থাকে।

আর্টিকেল কপি না হলেই আপনি মিনিমাম এমাউন্ট লেখার মূল‌্য পাবেন। প্রতিটি আর্টিকেলে অবশ্যই স্বর্বনিম্ন ৩৫০ শব্দের হতে হবে। এখানে আর্টিকেল লেখা ছাড়াও আরো বিভিন্ন উপায়ে টাকা আয় করতে পারবেন।

গ্রাথোরে কোন টপিকের উপর কনটেন্ট লেখা যায়:

গ্রাথোরেও টেকটিউনসের মতো আপনি প্রায় সব ধরণের আর্টিকেল লিখতে পারেন। ওয়েবসাইটটির কিছু মেইন টপিক:

  • খবর
  • টিউটোরিয়াল
  • ব্লগ
  • গল্প, কবিতা
  • ফ্রিল্যান্সিং
  • বিনোদন
  • খেলাধুলা

এছাড়া এখানে আপনি বিভিন্ন অফার নিয়ে লিখতে পারেন। আর্টিকেল লিখে আয় করার পাশাপশি এখানে রেফারাল এবং অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং লিঙ্ক দিয়ে প্রচারণার কাজ করে করতে পারবেন, ফলে আপনার প্যাসিভ ইনকাম বাড়তে থাকবে।

গ্রাথোরে আর্টিকেল লিখে কত টাকা আয় করা যায়

গ্রাথোরে আর্টিকেল প্রতি আপনি ৮ থেকে ১০০ টাকা আয় করতে পারবেন। এছাড়া প্রতিদিন ভিজিট করার জন্য, আর্টিকেল পড়ে, শেয়ার করে, বিভিন্ন টাস্ক পূরণ করে আয় করতে পারবেন।

আপনার লেখা আর্টিকেল কোন ভিজিটরস ভিউ করলেও আপনার একাউন্টে টাকা যোগ হবে। তাছাড়া আপনার বন্ধুদের রেফার করেও গ্রাথোর থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

পেমেন্ট সিস্টেম

টাকা উঠানোর জন্য নরমাল একাউন্টে এক হাজার টাকা থাকতে হবে, ভিআইপি সদস্যদের জন্য ৮০০ টাকা থাকলেই পেমেন্ট নিতে পারবেন।

বিকাশ,রকেট এবং ব্যাংক একাউন্টে টাকা নেওয়া যায়।

Register in Grathor

বাংলায় আর্টিকেল লিখে আয়, বিকাশ পেমেন্ট
বাংলায় আর্টিকেল লেখার সাইট

৩) ইনকাম টিউনসে বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করুন

নাম থেকেই বুঝতে পারছেন, ইনকামটিউনস এ অনলাইন আয় সম্পর্কিত একটা সাইট। আপনার লেখার টপিক তাই সীমিত, অর্থাৎ, আপনি শুধুমাত্র অনলাইনে আয় করার বিভিন্ন উপায়, এবং ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে লিখতে পারবেন।

আপনার প্রতিটি সাধারণ পোস্টের জন্য পাবেন ১০ টাকা। আর্টিকেল যদি ইউনিক হয় তবে আপনি ৫০-১০০ টাকাও পেতে পারেন।

ইনকামটিউনস থেকে যেসব উপায়ে আয় করা যাবে

পোস্ট লিখে আয়, রেফার করে প্রতি আয় করতে পারেন। প্রতি রেফারে ৫ টাকা। সাইনআপ করলেই পাবেন ৩ টাকা। কমেন্ট করে এবং পোস্ট পড়লেও টাকা পাবেন। তাছাড়াও এনিভার্সারি বোনাস পাবেন ২০ টাকা। প্রতিটি ইউনিক পোস্টের জন্য পাবেন ৫০-১০০ টাকা।

টাকা উঠানোর উপায় 

ব্যালেন্স – একাউন্টে ৫০০ টাকা জমা হলে আপনি উইথড্র দিতে পারবেন।

মিডিয়া – বিকাশ/রকেট/নগদ এবং মোবাইলে রিচার্জ করে টাকা উঠানো যায়।

Register in Incometunes

৪) বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট – অর্ডিনারি আইটি

উপরের সবগুলো সাইটের কাজ ছিল কন্ট্রাক্ট ভিত্তিক, কিন্তু অর্ডিনারি আইটিতে আর্টিকেলে লেখার কাজটি ফ্রিল্যান্সিং জব। অর্ডিনারি আইটিতে আপনি আর্টিকেল লিখে প্রতিমাসে ৩০০০ থেকে অনধিক ৮০০০ টাকা বেতনে কাজ করতে পারেন।

অর্ডিনারি আইটিতে কাজ করতে হলে আপনাকে দক্ষ্যতা অর্জন করতে হবে। দক্ষ্য করতে সাইট থেকে আপনাকে ৭ দিনের একটি কোর্স করাবে (বাধ্যতামূলক), তবে আপনি ২দিনেও কমপ্লিট করতে পারেন। কোর্সটি করার জন্য ১০৫০ টাকা ফি দিতে হবে। প্রথম মাসের বেতনের সাথে কোর্স ফি ফেরৎ পাবেন।

অর্ডিনারি আইটিতে প্রতি ৭ দিনে আপনাকে ১৪টি আর্টিকেল জমা দিতে হবে। অফিসে যাওয়ার কোন ঝামেলা নেই, বাংলাদেশের যেকোন জায়গা থেকে ফ্রিল্যান্সিং জবটি করতে পারবেন।
তাদের নির্দিষ্ট মেন্যুর উপর আপনাকে লেখার জন্য টাইটেল দিয়ে দিবে, তবে আপনি নিজে থেকেও টপিক ঠিক করার সুযোগ পাবেন।

অর্ডিনারি আইটিতে কনটেন্ট রাইটিং ফ্রিল্যান্সিং জব সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন।

Apply in Ordinary IT

৫) বাংলায় আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট – Pratiborton

আপনি যে সাইটে লেখাটি পড়ছেন, এই সাইটের বয়স খুব বেশিদিন হয়নি, তবে এরই মাঝে বিশ্বস্ত হয়ে উঠেছে। সাইটটিতে রাইটারদের জন্য আমরা ইনস্ট্যান্ট পেমেন্ট সিস্টেম চালু করেছি, যা কখনো বন্ধ হবে না, ইনশাআল্লাহ। আপনার প্রতিটি আর্টিকেল পাবলিশ হওয়ার ২ ঘন্টার মাঝে আপনার একাউন্টে টাকা পৌছে যাবে।

Pratiborn এ আর্টিকেল লেখার নিয়ম:

  • পোস্ট ১০০% কপি মুক্ত হতে হবে।
  • আর্টিকেল ৭০০ বা তার বেশি শব্দের হতে হবে ।

কি পরিমাণ ইনকাম হবে?

  • ৭০০ বা তার বেশি শব্দের প্রতিটি আর্টিকেলের জন্য পাবেন ৩০ টাকা।
  • ১০০০+ শব্দের আর্টিকেলের জন্য পাবেন ৫০ টাকা।

বিস্তারিত

শেষ কথা:

বিশ্বস্ত যে ৫টি বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট ( bangla article writing sites ) নিয়ে আলোচনা করলাম, প্রতিটি সাইট আলাদা এবং ভিন্নধর্মী। প্রত্যেকটি সাইটে বাংলায় আর্টিকেল লিখে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

আপনাকে পেমেন্ট নিয়ে চিন্তা করার দরকার নেই, বরং এবার আপনি ঠিক করুন কোন সাইটে বাংলায় আর্টিকেল লিখে আয় করবেন।

আপনি যখন লেখায় অভিজ্ঞ হয়ে উঠবেন, তখন আপনি নিজেও একটি ব্লগ সাইট খুলে ফেলতে পারেন, যেখানে স্বাধীনভাবে ইংরেজি বা বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করতে পারবেন।

pratiborton@gmail.com | Website | + posts

বর্তমানে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদে অধ্যয়নরত। জানার আগ্রহ থেকে whyorwhen এবং Pratiborton এ লেখালেখি করি।

6 thoughts on “বিশ্বস্ত ৫টি বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট, বিকাশে পেমেন্ট”

  1. জান্নাতুল মাওয়া সারমিন

    ১ম যে ওয়েবসাইটের কথা বলেছেন সেখানে রেজিস্ট্রেড করতে গেলে tuner username নামে একটা ঘর আসে তো এইখানে কি লিখব??

  2. ভাইয়া techtune কাজ করছে না কেন? আমি রেজিস্ট্রার করতে পারছি না। Please একটু বলবেন কী সমস্যা হয়েছে, please.

    1. আপু, টেকটিউনস সাইটে কিছুদিন যাবৎ সমস্যা হচ্ছে। সম্ভবত সার্ভার প্রবলেম। তবে আমি দেখেছি কয়েকবার চেষ্টা করলে একবার প্রবেশ করা যাচ্ছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *