অনলাইন বিজনেস আইডিয়া ( 9 Top Online Business Idea ) 

কিভাবে অনলাইন বিজনেস করব

অনলাইন বিজনেস আইডিয়া; প্রযুক্তির অগ্রগতির সাথে সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে অনলাইন বিজনেস। যেহেতু কম বিনিয়েগে অনলাইন বিজনেস ঘরে বসে করা যাচ্ছে , সে কারণে অধিকাংশ মানুষ এটাকেই তাদের লক্ষ্য হিসেবে নিচ্ছেন। এবং এটা হলফ করে বলা যায় যে, সূদুর ভবিষ্যতে অনলাইন ব্যবসাই হবে সবার মূল টার্গেট। তবে অল্প টাকায় কি নিয়ে অনলাইন বিজনেস করবো আর অনলাইন বিজনেস কিভাবে করবো এই প্রশ্নের উত্তর পাওয়াই ব্যবসা শুরু করার সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।

বিশ্বের প্রায় সব মানুষই এখন প্রযুক্তি নির্ভর। তাই এই প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়েই ঘরে বসে অনেকে ইনকাম করে নিচ্ছেন লাখ লাখ টাকা।

তবে এই অনলাইন বিজনেসের জন্য প্রয়োজন পর্যাপ্ত সময় এবং নিজ দক্ষতা। আপনি খুব সহজেই কম পুঁজিতে নিজ দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে অনলাইন বিজনেস করে টাকা ইনকাম করতে সক্ষম হবেন।

বর্তমানে প্রায় সবার একটাই প্রশ্ন, কীভাবে অনলাইন ব্যবসা শুরু করা যায়? অনলাইন বিজনেস সম্পর্কে অনেকের মধ্যে দ্বিধা কাজ করে। কিংবা অনেকের কাছে অনলাইন বিজনেস আইডিয়া থাকলেও কিভাবে শুরু করা যায় সে বিষয়ে অনেকে অবগত নন।

মূলত তাদের জন্যই আজকের এই লেখাটা। অনলাইন বিজনেস টিপস নিয়ে এই আর্টিকেলে একটা অনলাইন বিজনেস কিভাবে শুরু করতে পারবেন এবং কম পুঁজিতে কিছু অনলাইন ব্যবসার আইডিয়া তুলে ধরার চেষ্টা করবো।

অনলাইন ব্যবসা কি? (what is online business) 

অনেকেই প্রশ্ন করে থাকেন অনলাইন বিজনেস আসলে কি? 

অনলাইন বিজনেস বলতে বোঝায় অনলাইন বা ইন্টারনেট কে কাজে লাগিয়ে কোন পণ্য (product) বা সেবা (service) বিক্রির মাধ্যমে টাকা ইনকাম করা। Online business এ শুরু থেকে শেষ অবধি প্রত্যেকটা ক্ষেত্রে অনলাইন বা Internet এর উপর Depend  করে করা হয়।

অনলাইনের মাধ্যমে কোনো Product টার্গেট গ্রুপের মানুষের কাছে বিক্রি করে টাকা আয় করা হয়।

তবে অনলাইন বিজনেস বলতে শুধু যে Product কেনা-বেচা (buy and sell) কে বুঝা এমন কিন্তু নয়।Online এর মাধ্যমে যেকোনো  ধরনের কাজ যেমন; Blogging  বা YouTube Video  তে Google Adsense এর মাধ্যমে বিজ্ঞাপন (advertisement)  করেও আয় করা যায়, যেটি একটি online profitable business.

অনলাইন বিজনেস কিভাবে শুরু করব?

বর্তমানে ইন্টারনেটের সহজলভ্যতার জন্য অনলাইন বিজনেস শুরু করা বেশ সহজ বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। যেকেউ খুব সহজেই কিছু steps অনুসরণ করে শুরু করে দিতে পারেন অনলাইন ব্যবসা। 

তবে অনলাইন বিজনেসের মূল টার্গেট যেহেতু কাঙ্খিত জনগণের কাছ অবধি পণ্য বা সেবা পৌঁছানো, তাই এই ধাপটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ অনলাইন ব্যবসা শুরু করার জন্য। অবশ্য বর্তমানে ইন্টারনেটের সহজলভ্যতা অনলাইন ব্যবসাকে এতোটাই সহজ করেছে যে, খুব সহজেই কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছানো যায়। 

তবে আপনি যদি একজন নতুন ব্যবসায়ী হোন কিংবা ব্যবস্থা শুরু করতে চান তবে আপনাকে প্রথমে কিভাবে বিজনেস শুরু করবেন সে বিষয়ে ভালো জ্ঞান রাখতে হবে। অনলাইন ব্যবসা আইডিয়া জেনে নেয়ার পূর্বে কিভাবে শুরু করবেন অনলাইন বিজনেস সে বিষয়ে জেনে নেয়া উচিত।

চিন্তার কোনো কারণ নেই। আপনাদের সুবিধার্থেই এখন আমরা কিভাবে অনলাইন বিজনেস শুরু করবেন তাই তুলে ধরবো।

How To Start Online Business  

কিছু steps অনুসরণ করেই আপনি আপনার বিজনেস শুরু করতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে আপনাকে কিছু বিষয়ে জোর দিতে হবে।অনেকের মাথায় Business এর অনেক আইডিয়া থাকার পরও ব্যবসা শুরু করার বিষয়ে ভালোভাবে না জেনে কাজে লেগে গিয়ে মাঝপথে দিশা হারিয়ে  হতাশায় ডুব দেন।তাই আপনি যদি অনলাইনে ব্যবসা করতে চান তবে আমি বলবো এই বিষয়টাকে বেশি জোর দেন।তাহলে আপনি সফল হতে বাধ্য। 

১. নিজের Website তৈরির মাধ্যমে 

বর্তমানে মানুষ Online  এ কেনা-কাটায় বেশি আগ্রহী। এখন কারো কোনো product বা কোনো কিছুর প্রয়োজন পরলে প্রথমেই খোঁজ নেয় অনলাইনে।

তাই অনলাইনে ব্যবসা করতে চাইলে নিজের একটা Website অর্থাৎ Online store অথবা E-commerce website খোলে নিন।

বর্তমানে  E-commerce কেনা-বেচার জন্য খুবই জনপ্রিয় এবং লাভজনক প্লাটফর্ম।

তবে আপনার যদি নিজের কোনো E-commerce website  না থাকে কিংবা আপনি যদি এটি তৈরি করতে ইচ্ছুক না হোন তবে বিভিন্ন E-commerce সাইটে আপনি আপনার product  বিক্রি করতে পারবেন।যেমন;ফ্লিপকার্ট,অ্যামাজন, ই-বে ইত্যাদি E-commerce সাইটগুলো ব্যবহার করে আপনি খুব সহজেই আপনার পণ্য বিক্রি করতে পারবেন।

২. সোশ্যাল মিডিয়া (Social Media) এর মাধ্যমে 

বর্তমানে  এমন কিছু Social Media রয়েছে যেগুলো খুবই জনপ্রিয় এবং বিশ্বের প্রায় সব মানুষই কমবেশি যুক্ত এসব media তে।যেমন; Facebook, Twitter, Instagram, Telegram ইত্যাদি এদের কথা না বললেই নয়।

এই Social Media  গুলো বর্তমানে এতো বেশি ব্যবহৃত হয় যে,আপনি চাইলেই বিশ্বের যেকোনো প্রান্তের মানুষের কাছে নিজের পণ্য বা সেবা পৌঁছে দিতে পারবেন।

তাই আপনার যদি নিজস্ব কোনো ওয়েবসাইট না থাকে,তাহলে আমি সাজেস্ট করবো এই Social Media গুলোর মাধ্যমে আপনার ব্যবসা শুরু করার জন্য। বর্তমানে অনলাইন ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে Social media কেই কাজে লাগাচ্ছেন অনেকে।

৩. Smartphone app তৈরি করে ব্যবসা

আপনারা নিশ্চয়ই “Food panda” এর নাম শুনেছেন?হ্যাঁ, না শুনার কথাও নয়।এখন কারো কোনো কিছু খাওয়ার ইচ্ছে হলে restaurant যাওয়ার কথা না ভেবেই সোজা চলে যান মোবাইলের Food panda appsটিতে, আর order করেন নিজের পছন্দমতো খাবার। ব্যস কিছুক্ষণের মধ্যেই বাসায় পৌঁছে যায় খাবার।

ঠিক এমনই আরো কিছু Unique apps রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে মানুষ তাদের product বা service বিক্রি করে ইনকাম করছেন অনলাইনে।

আপনার মাথায়ও যদি unique কোনো আইডিয়া থকে তাহলে smartphone apps তৈরি করে আপনার ব্যবসা শুরু করে দিতেই পারেন।

৪. Blogging  বা YouTube channel এর মাধ্যমে বিজনেস

আপনি যদি কোনো টাকা ব্যয় না করেই বিজনেসের চিন্তা করে থাকেন, তবে ব্লগিং বা ইউটিউব চ্যানেলের কথা ভেবে দেখতেই পারেন।

অনলাইন ব্যবসা আইডিয়া

বর্তমানে এদের কদর ও খুব বেশি। ব্লগিং এবং ইউটিউব ভিডিওতে Google adsense এর মাধ্যমে বিজ্ঞাপন যুক্ত করে অনেকে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করছেন প্রতিনিয়ত।

তাই আপনি যদি কোনো বিনিয়োগ ছাড়াই বিজনেস করার কথা চিন্তা করে থাকেন তবে ব্লগিং এবং ইউটিউব হতে পারে আপনার ব্যবসা শুরু করার সঠিক মাধ্যম।

অনলাইন বিজনেস আইডিয়া – সেরা ৯টি

অনলাইনে ব্যবসার এতো এতো স্কোপ রয়েছে যে, আপনি দ্বিধায় পরে যাবেন কোনটি আপনার জন্য উপযুক্ত। এখানে আমি কয়েকটি সেরা বিজনেস আইডিয়াকে তুলে ধরার চেষ্টা করবো।  আপনি আপনার সুবিধামতো ব্যবসাটি বেছে নিয়ে শুরু করে দিতে পারেন নিজের অনলাইন ব্যবসা।

এখানে আমি এমন কয়েকটি ব্যবসার কথা তুলে ধরবো যা করতে আপনার খুব কম পুঁজি বিনিয়োগ করলেই চলবে এবং কয়েকটির জন্য আপনার কোনো বিনিয়োগেরই প্রয়োজন পরবে না। চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক এমনই কয়েকটি বিজনেস সম্পর্কে ;

১. অনলাইনে Product বিক্রি করা

বর্তমানে প্রায় মানুষই অনলাইনের এই বিজনেসটির দিকে বেশি ঝুঁকছেন। আপনিও চাইলে কম পুঁজিতেই শুরু করতে পারবেন এই ব্যবসা।

যেসব জিনিস বেশি নজর কাড়ে ক্রেতাদের এমন product নিয়ে শুরু করতে পারেন আপনার ব্যবসাটি। বর্তমান মার্কেটপ্লেসে কোন Product এর জনপ্রিয়তা বেশি? কিংবা ক্রেতারা কোন জিনিসের প্রতি বেশি আগ্রহী সেটা জেনে তা দিয়েই শুরু করতে পারেন আপনার ব্যবসা।

তা হতে পারে পরিধেয় কাপড় কিংবা সাজসজ্জার সরঞ্জাম, খেলনা কিংবা যেকোনো product. তবে আপনি যদি হাতের কাজে পারদর্শী হয়ে থাকেন তবে নিজেই ইউনিক কিছু বানিয়ে শুরু করে দিন আপনার অনলাইন ব্যবসা। 

২. ড্রপ শিপিং

এই অনলাইন বিজনেসে আপনার নিজের কোনো  product থাকার দরকার নাই। এর জন্য শুধুমাত্র দরকার পরবে আপনার একটা Website এর, যার মাধ্যমে আপনি অন্য কোনো Company  এর পণ্য অর্ডার নিয়ে বিক্রি করবেন।

এতে আপনার কোনো বিনিয়োগেরও প্রয়োজন পরবে না এবং না থাকবে পণ্য সংগ্রহ রাখার দায়।খুব সহজেই এই বিজনেসের মাধ্যমে মোটা টাকা লাভ করা সম্ভব। 

৩. অনলাইন কোর্স তৈরি

 বর্তমানে শিক্ষার্থীরা প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে পরছে। এখন কোনো বিষয় জানার জন্য তারা শ্রেণি শিক্ষককের কাছে না গিয়ে অনলাইনের দ্বারস্থ হচ্ছে বেশি।তাই কিছু শিক্ষণীয় এবং অন্যের উপকার হয় এমন কিছু কোর্স তৈরি করে শুরু করতে পারেন আপনার অনলাইন বিজনেস। 

আপনি যে বিষয়ে অভিজ্ঞ কিংবা ভালো জানেন এমন কোনো বিষয় নিয়ে কোর্স তৈরি করে নিজের ব্লগে কিংবা প্রতিষ্ঠিত কোনো অনলাইন কোর্সের প্লাটফর্ম যেমন; আপগ্র্যাড,ইউডেমির মাধ্যমে বিক্রি করে ইনকাম করতে পারেন।

তবে এক্ষেত্রে এমন কিছুর উপর কোর্স তৈরি করবেন যা অন্যের উপকারে আসে এবং কোর্স তৈরির পূর্বে নিজেকে দিয়ে যাচাই করে নিবেন এই কোর্সটি আপনি নিজে কিনতেন কি না?

৪. ই-বুক লেখা

আপনার লেখার দক্ষতা থাকলে আপনার জন্য এই বিজনেসটি হতে পারে খুবই লাভজনক ব্যবসা। বাজারে চাহিদার ওপর ভিত্তি করে 

যেকোনো বিষয় নিয়ে লিখতে পারেন ই-বুক।তবে যেকোনো বিষয় লিখার পূর্বে সে বিষয় নিয়ে পর্যাপ্ত অনুশীলন করে একটি স্বচ্ছ ধারণা নিয়ে লিখতে হবে ই-বুক।

আপনাকে মনে রাখতে হবে আপনার লেখায় এমন কিছু নতুনত্ব থাকবে যা পাঠককে আকৃষ্ট করতে বাধ্য। ই-বুক পাবলিশ করার অনেক সাইট রয়েছে যেখানে আপনার বুকটি পাবলিসড করে অনেক টাকা আয় করতে পারবেন। এমনই একটি জনপ্রিয় ও লাভজনক প্লাটফর্ম হলো “অ্যামাজনের কিন্ডল ডিরেক্ট পাবলিশিং ই-বুক”।

৫. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং

এফিলিয়েট মার্কেটিং অনলাইনে বিজনেস করে আয়ের একটি সহজ ও লাভজনক উপায়।

অ্যামাজনের মতো বিখ্যাত অনলাইন স্টোরের অ্যাফিলিয়েট হয়ে Sell এর ওপর কমিশন নিয়ে ভাল টাকা রোজগার করা যেতে পারে।

আমাদের সাইটে ইতোপূর্বেই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কিভাবে শুরু করা যায় তার সঠিক গাইডলাইন দেয়া হয়েছে। আপনি চাইলে সেটিও পড়ে নিতে পারেন।

৬. ব্লগিং

বর্তমানে খুবই লাভজনক একটি অনলাইন ব্যবসা হচ্ছে Blogging. িমানুষ প্রতিদিন হাজার হাজার বিষয় নিয়ে সার্চ করছে Google এ। তাই ব্লগিংয়ের কেনো শেষ নেই। আপনি চাইলেই ঘরে বসে ব্লগিংয়ের মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন। বেছে নিতে পারেন আমাদের শেয়ার করা জনপ্রিয় ব্লগিং আইডিয়ার কোনো একটি।

৭. ইউটিউব চ্যানেল 

বর্তমানে স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে গৃহিণী,কর্মজীবী প্রায় সবাই ইউটিউব থেকে ইনকাম করায় বেশি আগ্রহী। যেকোনো বিষয়ের উপর ভিডিও বানিয়ে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে  অনেকে মোটা অঙ্কের টাকা ইনকাম করছেন এই ইউটিউবের মাধ্যমে। 

অনলাইন বিজনেস আইডিয়া

আপনিও চাইলে যেকোনো বিষয়ের উপর হতে পারে ট্রাভেলিং, গেমিং, রান্নার রেসিপি কিংবা আপনার কোনো স্পেশাল টেলেন্ট (ছবি আঁকা, নাচ, গান ইত্যাদি) এর উপর ভিডিও করে তৈরি করতে পারেন আপনার YouTube channel টি। তবে এক্ষেত্রে আপনার উপস্থাপনার দিকে বিশেষ নজর দিতে হবে।

যতো বেশি দর্শক হবে, আপনার ইনকামও ততো বেশি হবে।

৮. অনলাইন ফটো বিক্রি

আপনি কি একজন ফটোগ্রাফার? খুব ভালো ফটো তোলেন? তাহলে এটাকেই আপনার ব্যবসায় কাজে লাগিয়ে দেন। বর্তমানে মানুষ বিভিন্ন কাজে অনলাইন থেকে ছবি কিনে নিচ্ছেন প্রতিনিয়ত।

এমন কিছু সাইট রয়েছে যেগুলো আপনার তোলা ছবি কিনে বিক্রি করে। এমনই কিছু সাইট হলো আইস্টক, ফটোড্যুন, শাটারস্টক ইত্যাদি যাদের মাধ্যমে  সরাসরি ফটো বিক্রি করতে পারবেন।

৯. কন্টেন্ট রাইটিং

কন্টেন্ট রাইটিং হতে পারে অনলাইন  বিজনেস আইডিয়া এর একটা ভালো উপায়। আপনার যদি  ভাষার উপর দক্ষতা থাকে তবে এটি আপনার জন্য ভালো ব্যবসা হতে পারে। খুব সহজ এবং সাবলীল ভাষায় লিখতে পারদর্শী হলে কন্টেন্ট রাইটিং কে আপনি বেছে নিতে পারেন।

তবে বাংলা এবং ইংরেজি উভয় ভাষায় আপনার দক্ষতা থাকলে খুব সহজেই আপনি অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন এটির মাধ্যমে। 

শেষ কথা

অনলাইন বিজনেস বর্তমানে সবার তুঙ্গে অবস্থান করছে। এটি একদিকে যেমন লাভজনক, অন্যদিকে খুব একটা বিনিয়োগেরও প্রয়োজন পরে না এতে। যেকেউ নিজ দক্ষতা আর একটু সময় দিলেই এই অনলাইন বিজনেস থেকে ইনকাম করতে পারবে ঘরে বসেই।

তবে সেক্ষেত্রে ব্যবসা শুরু করার উপায় জেনে নিয়ে কোন বিজনেসটা তার জন্য উপযুক্ত সেটা যাচাই-বাছাই করে নিতে হবে আগে। যেহেতু অনলাইনে অনেক ধরনের বিজনেস Available আছে, তাই কেউ অনলাইন ব্যবসা শুরু করার পূর্বে তার জন্য উপযুক্ত কোনটি, সেটা আগেই নির্ধারণ করে নিতে হবে।

আমরা এই আর্টিকেল কিভাবে অনলাইন বিজনেস শুরু করবেন এবং কিছু টপ অনলাইন বিজনেস আইডিয়া তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। আশা করছি এটি আপনাদের অনলাইন ব্যবসার ক্ষেত্রে কিছুটা হলেও কাজে আসবে।

উপরের বিজনেস আইডিয়াগুলোর মধ্যে আপনি কোনটি করতে ইচ্ছুক? আমাদের জানাতে ভুলবেন না যেনো!

shimabithi09@gmail.com | + posts

জানার আগ্রহ আর লেখালেখির প্রতি ভালোবাসা থেকেই টুকটাক লেখালেখি করি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *