এফিলিয়েট মার্কেটিং বাংলাদেশ – সেরা ১০টি এফিলিয়েট মার্কেটিং সাইট

এফিলিয়েট মার্কেটিং বাংলাদেশ

এফিলিয়েট মার্কেটিং বাংলাদেশ সম্পর্কে জানতে চান? বাংলাদেশের সেরা এফিলিয়েট মার্কেটিং সাইট কোনগুলো জানেন কি! বাংলাদেশী গ্রাহকদের নিয়ে কিভাবে এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করা সম্ভব হবে জানতে আমাদের সাথে থাকুন।

কিভাবে এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করা যায় সেসম্পর্কে পূর্ণাঙ্গ গাইডলাইন নিয়ে আমরা ইতিমধ্যে আলোচনা করেছি। যারা এফিলিয়েট মার্কেটিং এর সাথে পরিচিত, তারা ইতিমধ্যে নিশ্চয়ই উপলব্ধি করেছেন যে, বাংলাদেশ থেকে এফিলিয়েট মার্কেটিং করা বেশ কষ্টকর। এর পিছনে কিছু কারণও রয়েছে, যেমন:

  1. বাংলাদেশের ই-কমার্স সাইটগুলো নিজেদেরকে বিশ্বস্ত করে তুলতে পারছেনা।
  2. বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষের এখনো অনলাইন কেনাকাটায় স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেননা।

বিশেষ করে যারা বাংলায় ব্লগিং বা ইউটিউব চ্যানেল শুরু করছেন, কিংবা মার্কেটিং কে শুধুমাত্র সোশ্যাল মিডিয়ায় সীমাবদ্ধ রাখছেন, যাদের টার্গেট ভিজিটরস শুধুমাত্র বাংলাদেশী! তাদের জন্য অ্যামাজন, আলীবাবা, ইবে কিংবা ইভান্টোর মতো প্রোগ্রামে যোগ দিয়ে সেল জেনারেট করা প্রায় অসম্ভব। তাদের বিক্রি ‍বৃদ্ধি করতে দরকার বাংলাদেশ এর এফিলিয়েট মার্কেটিং সাইট।

অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম আপনার জন্য নয় কেন?

অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সারা পৃথিবীব্যাপী বিখ্যাত। শুধুমাত্র অ্যামাজন এর এফিলিয়েট প্রোগ্রামের উপর নির্ভর করে হাজার হাজার ওয়েবসাইট ইন্টারনেটে রয়েছে, যাদের মূল ইনকাম অ্যামাজনের অ্যাফিলিয়েট কমিশন।

কিন্তু অ্যামাজন সাইট থেকে বাংলাদেশের কতজন কেনাকাটা করে! বলুন তো? বাংলাদেশের কতজনের কাছে অ্যামাজন থেকে প্রোডাক্ট কিনে বিল পে করার মতো কার্ড রয়েছে?

সুতরাং আপনার ওয়েবসাইটের ভাষা যদি হয় বাংলা, কিংবা আপনার টার্গেট কাস্টমার যদি বাংলাদেশী হয় তবে অ্যামাজনের লোভনীয় Affiliate প্রোগ্রাম বাদ দিতে হবে।

তাই বলে এফিলিয়েট মার্কেটিং বাংলাদেশ থেকে কি সম্ভব নয়! অবশ্যই সম্ভব। আর সেজন্যই আপনাকে আজ সেরা ১০ টি বাংলাদেশি এফিলিয়েট মার্কেটিং সাইট এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিবো ইন-শা-আল্লাহ।

সূচীপত্র

এফিলিয়েট মার্কেটিং সাইট | এফিলিয়েট মার্কেটিং বাংলাদেশ

এফিলিয়েট মার্কেটিং সাইট

অ্যামাজন কিংবা আলীবাবা’র মতো লাভজনক এফিলিয়েট প্রোগ্রাম তো বাদ দিয়ে দিলেন, তাহলে এবার কার সাথে Affiliate Marketing করবো, এই চিন্তা তো নিশ্চয়ই এসেছে।

চিন্তা নেই, আপনাকে বাংলাদেশের ক্ষুদ্র ই-কমার্স, ডিজিটাল মার্কেট এর মধ্য থেকে বেস্ট এফিলিয়েট মার্কেটিং সাইটগুলোর সাথে পরিচয় করে দিচ্ছি।

তবে, আপনি যদি এফিলিয়েট মার্কেটিং কী? এবং এফিলিয়েট মার্কেটিং কীভাবে করে সেসম্পর্কে ভালভাবে না জেনে থাকেন তাহলে আমাদের পূর্ববর্তী লেখাটা পড়ে আসুন।

এফিলিয়েট মার্কেটিং বাংলাদেশ – সেরা ১০ টি

বাংলাদেশী ই-কমার্স সাইটগুলোর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় দারাজ এবং ইভালি। কিন্তু দুঃখের বিষয় কোনোটাতেই বর্তমানে Affiliate Marketing করার সুযোগ নেই।

তবে আরো কিছু সাইট রয়েছে যারা বিশ্বস্ত এবং একইসাথে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করার সুযোগও রয়েছে।

১. BDSHOP এফিলিয়েট প্রোগ্রাম

বিডিশপ মূলত একটি বিভিন্ন টেকনোলজি ও গ্যাজেট জাতীয় পোডাক্ট এর সমৃদ্ধ ভান্ডার। এখানে বিভিন্ন ব্রান্ডের আসল প্রোডাক্ট পাওয়া যায়। এছাড়াও বিভিন্ন ফ্যাশন, হেলথ এবং গ্রুমিং পোডাক্টও পাওয়া যায়।

যারা টেক ব্লগে কাজ করেন কিংবা মডার্ন টেকনোলজি নিয়ে এফিলিয়েট মার্কেটিং করতে চান তাদের জন্য বিডিশপ বেস্ট চয়েস।

কোনো গ্রাহক আপনার এফিলিয়েট লিঙ্ক দিয়ে ভিজিট করার ৩০দিনের মধ্যে কোনো পণ্য অর্ডার করলেও আপনি কমিশন পাবেন।

প্রতিটি প্রোডাক্টের জন্য ৩-৭% কমিশন পাওয়া যাবে। এবং প্রতি সপ্তাহে পেমেন্ট অর্ডার করা যায় এবং বিকাশ/রকেটে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

২. SOHOJ AFFILITES প্রোগ্রাম

সহজবাই.কম এর এফিলিয়েট প্রোগ্রাম সাইট sohojaffiliates.com। এটি একটি স্বয়ংস্বম্পূর্ণ ইকমার্স সাইট। এখানে আয় করার দারুন একটি ব্যাপার হলো নতুন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটার ইনভাইট করেও তাদের ইনকামের ১০% পাওয়া যায়।

সহজ অ্যাফিলিয়েট সম্পর্কে ইতিমধ্যে আমরা একটি পূর্ণাঙ্গ লেখা পাবলিশ করেছি, আর্টিকেলটি পড়লে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

৩. SHOPNOBARI এফিলিয়েট প্রোগ্রাম

স্বপ্নবাতে মূলত পাঞ্জাবি, শাড়ি, থ্রি পিসসহ বিভিন্ন রকমের পোশাক বিক্রি করা হয়ে থাকে। এছাড়াও রয়েছে বেবি কালেকশন, ইলেক্ট্রনিক্স এবং হেলথ রিলেটেড প্রোডাক্টস। রয়েছে বিভিন্ন বিদেশী ব্রান্ড পোডাক্টস এর আলাদা ক্যাটেগরি। এটিও বাংলাদেশের অন্যতম বড় রকমের একটি ই-কমার্স সাইট।

Related:  টুইটার থেকে আয় করার উপায় | How to earn from twitter?

স্বপ্নবাড়ীর প্রোগ্রামে প্রতিটি সেল এ ১২% – ১৫% পর্যন্ত কমিশন পাবেন। অ্যাকাউন্ট এ যদি ৫০০টাকার উপরে থাকে তবে আপননি পেমেন্ট রিকুয়েস্ট দিতে পারবেন।

অর্ডার করার ৭দিনের মধ্যে আপনার পেমেন্ট পেয়ে যাবেন। ব্যাংক ট্রান্সফার ও বিকাশ এর মাধ্যমে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

৪. SHOHOZSELL এফিলিয়েট মার্কেট

সহজ সেল পুরোদমে একটি ই-কমার্স সাইট। এখানে অটোমোবিল এবং বাইক পার্টস থেকে শুরু করে স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট পর্যন্ত সবই পাবেন।

আপনার ক্যাটেগরি যাই হোক না কেন এফিলিয়েট মার্কেটিং বাংলাদেশ এর সাইটে কাজ করতে চাইলে বেছে নিতে পারেন shohozsell.com

এখানেও পেমেন্ট বিকাশের মাধ্যমে উঠানো যায়।

৫. JHAKKASH এফিলিয়েট মার্কেট

বাংলাদেশের অন্যতম ই-কমার্স সাইট ঝাক্কাস। তাদের অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামে অংশ নিয়ে আয় করতে পারেন  আপনিও। সাইটটিতে প্রচুর শপ থাকায় প্রোডাক্ট সংখ্যাও প্রচুর।

jakkash.com এর অ্যাফিলিয়েট কমিশন ৯% এবং এখানে ৩০দিন পর্যন্ত cookies সেভ করে রাখা হয়।

অর্থাৎ আপনার লিঙ্ক দিয়ে ভিজিট করার কোনো কাস্টমার ৩০ দিনের মধ্যে কোনো প্রোডাক্ট অর্ডার করলেও আপনি কমিশন পাবেন।

এফিলিয়েট মার্কেটিং বাংলাদেশ | ডিজিটাল প্রোডাক্ট

বাংলাদেশী এফিলিয়েট মার্কেট

আইটি সেক্টর এগিয়ে যাচ্ছে। সেই সাথে স্কিল ডেভেলপমেন্ট করা বিং এবং ডিজিটাল প্রোডাক্ট এবং সেবা নেওয়ার প্রবণতাও বাড়ছে। তাই আপনিও এমন কিছু নিয়ে এফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারেন।

ডিজিটাল প্রোডাক্ট বা সেবা নিয়ে বাংলাদেশী এফিলিয়েট মার্কেটিং সাইট এর সাথে কাজ করার সুবিধা হলো এখানে বিশ্বস্ততা নিয়ে অভিযোগ কম। তাই লিড জেনারেট বেশি হয়।

ডিজিটাল প্রোডাক্ট এবং সার্ভিস এর মাঝে রয়েছে বিভিন্ন অনলাইন কোর্স, ওয়েব হোস্টিং ও ডোমেইন, ওয়েবসাইট ডিজাইনওয়েব ডেভেলপমেন্ট নিয়ে এফিলিয়েট মার্কেটিং।

১. BOHUBRIHI ONLINE COURSE

ভাষা যাদের জন্য সমস্যা বাংলায় তাদের অনেকেই অনলাইন কোর্স করতে আগ্রহী। বাংলাদেশে যারা অনলাইন কোর্স অফার করে তাদের মধ্যে অন্যতম বহুব্রীহি।

বহুব্রীহিতেও ৩০দিন পর্যন্ত ভিজিটরস রেকর্ড রাখা হয়। ফলে আপনার রেফার করা কোনো ক্লায়েন্ট কোর্স ক্রয় করলে কমিশন মিস হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

Related:  সেরা ৭ ছবি বিক্রির ওয়েবসাইট | অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয়

বহুব্রীহি বাংলাদেশের সকল অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামের মাঝে সবচেয়ে বেশি ২০% কমিশন দেয়। ৫০০ টাকা জমা হলেই পেমেন্ট  উঠানো যায় খুব সহজেই।

২. REPTO Online Education

রেপ্টোতে কাজ করার সুবিধা হলো এখানে অনলাইন কোর্স এর সংখ্যা অনেক বেশি। তাই আপনিও বেশি বেশি কোর্স নিয়ে এফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারবেন।

৩. DIANAHOST

ডায়ানাহোস্ট বাংলাদেশের অন্যতম সেরা হোস্টিং সার্ভিস প্রোভাইডার। হোস্টিং এর পাশাপাশি রয়েছে ডোমেইন ক্রয় করার সুযোগ।

তাই আপনি যদি আইটি সেক্টর নিয়ে কাজ করতে চান, ডায়ানাহোস্ট আপনার জন্য বেস্ট সিলেকশন। রয়েছে মানথলি পে করার সুযোগ, তাই ক্লায়েন্ট ফিরে আসা কঠিন।

তবে এখানে কমিশন রেট বেশ কম, মাত্র ১.৫-৫%। একাউন্টে ৫০০ টাকা জমা হলেই বিকাশের মাধ্যমে উইথড্রো করতে পারবেন।

৪. হোস্টিং বাংলাদেশ

ডায়ানাহোস্ট এর পরই এর অবস্থান। তবে এর কিছু আলাদা সুবিধা রয়েছে, এখানে ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের জন্য স্পেশাল হোস্টিং প্যাকেজ পাওয়া যায়।

হোস্টিং যারা ক্রয় করে তাদের বেশিরভাগই ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে সাইট তৈরি করেন। তাই আপনার জন্য hostingbangladesh’র এফিলিয়েট প্রোগ্রামে যোগ দেওয়া লাভজনক হতে পারে।

এখানে হোমপেজে এফিলিয়েট লিঙ্ক পাবেননা। প্রথমে রেজিস্ট্রেশন করে ক্লায়েন্ট এরিয়াতে লগইন থাকতে হবে।

৫. POPULAR HOST BD

আমাদের সর্বশেষ বাংলাদেশী এফিলিয়েট মার্কেট পপুলার হোস্ট। তবে এখানে শুধু ডোমেইন হোস্টিং নয়, সাথে রয়েছে অ্যাপস তৈরির সুবিধা।

স্বল্প মূ্ল্যে অ্যাপস তৈরির সাথে সুবিধাগুলোও বেশ লোভনীয়। প্রতিটি সেল এর উপর পাওয়া যাবে ১০% কমিশন।

এফিলিয়েট মার্কেটিং সাইট বিষয়ে শেষ কথা

তাহলে আমরা আজকের আলোচনা বাংলাদেশের ১০টি এফিলিয়েট মার্কেটিং সাইট এবং এফিলিয়েট মার্কেটিং বাংলাদেশ সম্পর্কে জেনে নিলাম। বাংলাদেশী গ্রাহকদের নিয়ে যারা কাজ করে অনলাইন আয় করতে চান তাদের জন্য এই এফিলিয়েট মার্কেটিং সাইটগুলোর সাথে কাজ করতে পারেন নিশ্চিন্তে।

আপনি যদি এই তালিকার বাইরে অন কোনো ভালো এফিলিয়েট মার্কেটিং বাংলাদেশ সম্পর্কে জেনে থাকেন, তাহলে আমাদের সাথে শেয়ার করতে পারেন।

Leave a Comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।