নগদ একাউন্টের সুবিধা সমূহ

নগদের সুবিধা

নগদ বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা। nagad একাউন্ট খোলার নিয়ম জানার পাশাপাশি নগদ একাউন্টের সুবিধা গুলো কি কি সেসব সম্পর্কেও জানা দরকার। কেননা নগদ একাউন্ট থেকে কি ধরনের সুবিধা পাওয়া যায় তা যদি না জানেন, তবে প্রয়োজনের সময় কিভাবে নগদ একাউন্টের সুবিধা সমূহ কাজে লাগাবেন?

উদাহরণস্বরূপ, আমি আগে জানতাম না যে, ব্যাংক একাউন্ট থেকে সরাসরি নগদে টাকা আনা যায়। তো, আমি প্রথমে ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করে পরে পেমেন্ট করার কাজে নগদে ক্যাশ ইন করতাম। যার কারণে আমার বেশ কিছু টাকা নষ্ট হতো।

তাই, আপনিও যেন আমার মতো নগদ একাউন্টের সুবিধা থেকে যেন বঞ্চিত না হন, সেলক্ষেই আমাদের আজকের আয়োজন। তার আগে nagad account check করার পদ্ধতি জেনে নিবেন।

নগদ একাউন্টের সুবিধা সমূহ – What is the benefit of Nagad?

মোবাইল ব্যাংকিং সেবা যতগুলো আছে, তারমাঝে বর্তমানে সবচেয়ে বেশি প্রতিযোগিতা দিচ্ছে বিকাশ এবং নগদ। দুইটি ব্যাংকই নতুন নতুন বিভিন্ন সুবিধা নিয়ে আসছে। তার মাঝে বেশ কিছু সুবিধা কমন থাকলেও সুবিধার পরিমাণে কম বেশি আছে।

যেমন, বর্তমানে বিকাশে সেন্ড মানিতে চার্জ নিলেও নগদে কোনো ফি লাগছে না। তাছাড়া, নগদ ডাক বিভাগের আওতাধীন হওয়ায় সরকারিভাবেও বেশ কিছু সুযোগ সবিধা পাওয়া যায়। তাই, চলুন নগদে কি কি সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে সেসব বিস্তারিতভাবে জেনে নেওয়া যাক।

নগদ একাউন্টের সুবিধা ২০২১

১) ফ্রি নগদ একাউন্ট করার সুবিধা

নগদে নতুন গ্রাহক হিসেবে যোগ দেওয়ার জন্য অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং সেবার মতোই আপনাকে কোনো রকম ফি দিতে হবে না। এমনকি নতুন একাউন্ট একটিভ করতে কোনো রকম টাকা ক্যাশ ইন করারও দরকার নেই।

Related:  মোবাইল ব্যাংকিং কি | Mobile Banking in Bangladesh

২) বাটন মোবাইলে নগদ একাউন্ট করার সুবিধা

নগদ একাউন্টের সবচেয়ে বড় সুবিধা এটি। এই সুবিধা অন্য কোনো মোবাইল ব্যাংকিং এখনো শুরু করতে পারেনি। অন্যান্য একাউন্ট করতে যেখানে ছবি তোলা এবং ভোটার আইডি কার্ড জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক, যার কারণে নূন্যতম একটি স্মার্টফোন দরকার হয়, সেখানে নগদে একাউন্ট করার জন্য nagad ussd code *167# ডায়াল করে পিন সেট করলেই একাউন্ট হয়ে যাবে!

তবে এখানে শর্ত আছে। আপনার সিমটি অবশ্যই জাতীয় ভোটার আইডি দ্বারা নিবন্ধিত হতে হবে, এবং সেই ভোটার আইডিতে অন্য কোনো নগদ একাউন্ট থাকা যাবে না।

৩) নগদ রেজিস্ট্রেশন অফার

নগদে একাউন্ট করার সাথে ইনস্ট্যান্ট আপনার একাউন্টে ২৫ টাকা বোনাস পাবেন। তাছাড়া, মাঝে মাঝেই ক্যাম্পেইন চলে যে, প্রথমবার নির্দিষ্ট এমাউন্ট রিচার্জ বা প্রথম লেনদেন করলে ক্যাশব্যাক পাওয়া যাবে। সেক্ষেত্রে, ওয়েলকাম বোনাস আরো বেশি হয়ে থাকে।

৪) নগদে সেন্ড মানি একদম ফ্রি

নগদের জনপ্রিয়তা বাড়ার পিছনে বিকাশের সেন্ড মানিতে টাকা কর্তন করার সিদ্ধান্তের বড় হাত রয়েছে। বিকাশ এখন ১০০ টাকার বেশি সেন্ড মানি করলেই ৫ টাকা কেটে নিচ্ছে! সেখানে নগদ আপনাকে অ্যাপ থেকে ২৫০০০ টাকা পর্যন্ত ফ্রি সেন্ড মানি করার সুবিধা দিচ্ছে।

তবে USSD পদ্ধতি তথা নগদ কোড *167# ডায়াল করে সেন্ড করলে নগদেও প্রতি সেন্ড মানিতে ৫ টাকা কাটবে।

৪) নগদে সর্বনিম্ন ক্যাশ আউট চার্জ

নগদ একাউন্টের সুবিধাগুলোর মাঝে গ্রাহকের কাছে সবচেয়ে বেশি গ্রহণযোগ্য এটি। নগদ বর্তমানে সবচেয়ে কম রেটে ক্যাশ আউট করার সুবিধা দিচ্ছে।

নগদ অ্যাপ থেকে ভ্যাটসহ প্রতি হাজারে ক্যাশ আউট চার্জ ১১.৪৯ টাকা এবং নগদ কোড *167# দিয়ে USSD পদ্ধতিতে প্রতি হাজার টাকা ক্যাশ আউট করার জন্য ১২.৯৯ টাকা চার্জ কাটবে।

সর্বনিম্ন ৫০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২৫০০০ টাকা ক্যাশ আউট করতে পারবেন।

এক মাসে সর্বোচ্চ ২০ বার এবং সর্বমোট ১৫০০০০ টাকা ক্যাশ আউট করতে পারবেন।

৫) নগদের ফ্রি ক্যাশ ইন সুবিধা

নগদ একাউন্টে টাকা যুক্ত করার জন্য আপনাকে কোনোরকম এক্সট্রা চার্জ দিতে হবে না। এক মাসে সর্বোচ্চ ২৫ বারে সর্বমোট ২০০০০০ (দুই লাখ) টাকা ফ্রি ক্যাশ ইন করা যাবে। নগদে সর্বনিম্ন ৫০ টাকা ক্যাশ ইন করা যায় এবং একবারে নগদে সর্বোচ্চ ৩০০০০ টাকা ক্যাশ ইন করা যায়।

Related:  রকেট একাউন্ট একটিভ করার নিয়ম | How to Activate Rocket Account

৬) নগদ থেকে মোবাইল রিচার্জ করার সুযোগ

বাংলাদেশের যেকোন মোবাইল অপারেটর এর যেকোন নাম্বারে দিন-রাত ২৪ ঘন্টা রিচার্জ করতে পারবেন। মজার ব্যাপার হলো এজন্য আপনাকে কোনরকম চার্জ দিতে হবেনা।

৭) নগদ মোবাইল রিচার্জ অফার

নগদ একাউন্টের রিচার্জ করার সুবিধার পাশাপাশি শুধুমাত্র নগদ ব্যবহারকারীদের জন্য সকল অপারেটরে স্পেশাল প্যাকেজ থাকে। এসব সাশ্রয়ী প্যাকেজ কেবল নগদ অ্যাপ দিয়ে রিচার্জ করলেই নিতে পারবেন।

৮) পেমেন্ট করার সুবিধা

কেনাকাটা করতে যাচ্ছেন? অতিরিক্ত টাকা নেওয়া মানেই অতিরিক্ত রিস্ক। তাছাড়া অন্যান্য ঝামেলা তো থাকেই। এসব সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে শপগুলোতে এখন মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে পেমেন্ট করার ব্যবস্থা রাখে। আর জনপ্রিয় Mobile Banking নগদ তার গ্রাহকদের সুবিধা দিতে দেশের প্রায় সকল জনপ্রিয় ব্রান্ড ও শপেই নগদের মাধ্যমে পেমেন্ট করার সুবিধা রেখেছে।

৯) নগদ মাসিক অফার

নগদের পেমেন্ট সুবিধা নিতে মানুষকে আগ্রহী করতে নগদ বিভিন্ন ক্যাশব্যাক অফারের পাশাপাশি ডিস্কাউন্টও দিয়ে থাকে। যেমন: বর্তমানে ৪০টিরও বেশি ব্রান্ড শপ ও সাবস্ক্রিপশনের পেমেন্ট নগদে করলেই ক্যাশব্যাক ও ডিস্কাউন্ট মিলছে। যার মাঝে রয়েছে শেয়ারট্রিপে ৭১% ডিস্কাউন্ট, ওয়ালটন প্রোডাক্টের উপর ১০% ডিস্কাউন্ট, হাঙরিনাকিতে ১৬% ইন্সট্যান্ট ক্যাশব্যাক।

এছাড়া, সকল অপারেটরে নির্দিষ্ট এমাউন্ট রিচার্জের উপর ক্যাশব্যাক অফার তো থাকছেই। নগদে পেমেন্ট করলে যেসব অফার পাওয়া যাবে তারমাঝে কিছু সংখ্যক ছবিতে দেখানো হলো। নগদে পেমেন্ট করার সুবিধা

১০) নগদে বিল পে করার সুযোগ

বিদ্যুৎ বিল, পানির বিল, গ্যাস বিল, টেলিফোন, ইন্টারনেট ও অন্যান্য বিল দেওয়ার জন্য কি লাইনে দাড়ানোর কষ্ট করছেন? কিংবা অতিরিক্ত ফি দিয়ে কোনো দোকানে গিয়ে জমা দিচ্ছেন?

নগদ একাউন্টের বিল পে করার সুবিধা নিন না! এখন সকল বিল নগদের মাধ্যমে ঘরে বসে নিশ্চিন্তে নিজে নিজেই পে করতে পারবেন।

নগদ একাউন্টের মাধ্যমে যেসব বিল পে করতে পারবেন:

  • বিটিসিএল টেলিফোন
  • বিটিসিএল ডোমেইন
  • ডিপিডিসি এইচআর
  • ডেসকো প্রিপেইড
  • ডেসকো পোস্টপেইড
  • ডিপিডিসি
  • বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল
  • ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড
  • জালালাবাদ গ্যাস
  • স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কোভিড-১৯ টেস্ট হোম
  • স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কোভিড-১৯ টেস্ট বুথ
  • স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিদেশগামী বুথ কোভিড-১৯ টেস্ট
  • ঢাকা ওয়াসা
  • চট্টগ্রাম ওয়াসা
  • খুলনা ওয়াসা
  • বিএমইটি
  • একাদশ শ্রেণির ভর্তি
  • তিতাস গ্যাস নন মিটারড ডিমান্ড নোট
  • তিতাস গ্যাস নন মিটারড ডোমিস্টিক
  • জীবন বীমা কর্পোরেশন
  • খুলনা গ্যাস
  • সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিঃ
  • গার্ডিয়ান লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিঃ
  • রুপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিঃ
  • পদ্মা লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিঃ
  • মেট লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিঃ
  • চার্টাড লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিঃ
  • প্রাইম ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স
  • লংকাবাংলা ডিপিএস
  • লংকাবাংলা লোন
  • মার্কেন্টাইল ইসলামী লাইফ ইনস্যুরেন্স লিমিটেড
  • ভিসা ক্রেডিট কার্ড
  • লংকাবাংলা কার্ড
  • আকাশ ডিটিএইচ
  • নেসকো
Related:  বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ ২০২২ | প্রিয় এজেন্ট নাম্বারে হাজারে ১৪.৯০ টাকা

তথ্যসূত্র: নগদ ডট কম ডট বিডি

১১) ব্যাংক ও কার্ড থেকে নগদে টাকা আনার সুবিধা

নগদ একাউন্টের টাকা শেষ? আপনার ব্যাংক একাউন্ট কিংবা ডেবিট কার্ড, ক্রেডিট কার্ডে তো টাকা আছে! তাহলে কোনো চিন্তা নেই। নগদ অ্যাপ থেকে নিজেই নগদে টাকা নিয়ে আসতে পারবেন কোনো চার্জ ছাড়াই।

১২) নগদে কিস্তি দেওয়ার সুবিধা

আপনার কি কোনো লোন নেওয়া আছে? ব্যাংকে গিয়ে কিস্তি দেওয়া ঝামেলা মনে হচ্ছে? তাহলে এবার আপনাকে এসব ঝামেলা থেকে মুক্তি দিবে নগদের EMI Collection সুবিধা।

১৩) নগদ টাকা রেখে মুনাফা লাভের সুবিধা

নগদে টাকা জমা রেখে মুনাফা লাভের সুযোগ দেয়। এজন্য কোনো নির্দিষ্ট মাসের ব্যালেন্স কখনো ১০০০ টাকার নিচে আসা যাবেনা। এছাড়া, আপনার একাউন্ট টাইপ রেগুলোর হতে হবে, এবং মুনাফা অপশন অন থাকতে হবে।

ব্যালেন্স/স্ল্যাব (টাকা) বাৎসরিক হার
০ – ৯৯৯.৯৯ ০.০%
১,০০০ – ৫,০০০ ১.৫%
৫,০০০.০১ – ১৫,০০০ ২.০%
১৫,০০০.০১ – ১৫০,০০০ ৩.০%
১৫০,০০০ থেকে এর ঊর্ধ্বে* ৭.৫%

তবে একজন মুসলিম হিসেবে কখনোই আপনার মুনাফা নেওয়া ঠিক হবেনা। কারণ, ইসলামে সুদকে হারাম করা হয়েছে।

ইবনে মাসউদ (রা.) হতে বর্ণিত, নিশ্চয়ই আল্লাহর নবী (সা.) সুদখোর, সুদ প্রদানকারী, সুদী কারবারের সাক্ষী এবং সুদ চুক্তি লিখনকে অভিশাপ দিয়েছেন। (বুখারী, মুসলিম)

১৪) নগদ ইসলামিক মোবাইল ব্যাংকিং সুবিধা

যেমনটা বলছিলাম, একজন মুসলিম হিসেবে আপনি কোনোভাবেই মুনাফা নিতে পারেননা। তবে যেহেতু বর্তমানে ব্যাংকিং ছাড়া চলা প্রায় অসম্ভব, তাই নগদ ইসলামিক শরীয়াহ মেনে চলতে সুদমুক্ত ইসলামিক নগদ একাউন্ট সেবা চালু করেছে। এতে আপনার নগদ একাউন্টে টাকা থাকলেও কোনো প্রকার মুনাফা পাবেন না।

আপনার একাউন্টটি ইসলামিক করার জন্য My Nagad মেন্যুতে ট্যাপ করলে Account Type পাবেন। বর্তমানে Regular করা থাকলে Islamic করে দিন। ইসলামিক নগদ একাউন্টের রং সবুজ হয়ে যাবে।

নগদ একাউন্টের সুবিধা নিয়ে শেষ কথা

নগদ একাউন্টের সুবিধা নিয়ে আমাদের আজকের আলোচনায় নগদ একাউন্টের ১৪টি সুবিধা সম্পর্কে আলোচনা করেছি। আমরা আশা করছি, নগদ আরো নতুন নতুন সুবিধা নিয়ে আসবে যা আমাদের ব্যস্ত জীবনকে আরো সহজতর করবে ইন-শা-আল্লাহ।

Leave a Comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।