অ্যামাইনো এসিড মনে রাখার ছন্দ – কোষ রসায়ন

অ্যামাইনো এসিড

অ্যামাইনো এসিড, simplest amino acid, অত্যাবশ্যকীয় অ্যামাইনো এসিড সহজে মনে রাখার জন্য ছন্দ খুঁজছো?

জীব বিজ্ঞান আমাদের অনেকের কাছে অনেক বেশি বোরিং আর যন্ত্রণাদায়ক মনে হয়। যদি ঠিক করে নাও যে,  জীব বিজ্ঞান সম্পর্কিত কোন বিষয় নিয়ে ভবিষ‌্যতে পড়বো না, তাহলে আমরা ৪র্থ বিষয় হিসেবে জীব বিজ্ঞানকে রেখে বেচে যাই। কিন্তু, যারা মেডিকেলে পড়ার স্বপ্ন দেখে, তাদের গলার কাটা হয়ে ওঠে জীব বিজ্ঞান। অনেকে তো বলে ইহা জীবন শেষ করা বিজ্ঞান!!!

জীব বিজ্ঞান মোটেই এত খারাপ নয়। আচ্ছা বলো তো,  তুমি কি ডাটা ছাড়া ইন্টারনেট ব্রাউজ করতে পারবে? পারবে না তো! ঠিক তেমনি জীব বিজ্ঞানকে বশ করতে হলে তোমার ছন্দ নিয়ে হাজির হতে হবে।

তুমি এত এত সময় কোথায় পাবে? তাই বাংলার ছেলে মেয়েদের জীব বিজ্ঞানকে বশ করতে আজকে আমরা জীব বিজ্ঞানের কোষ রসায়ন অধ‌্যয় থেকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অ্যামাইনো এসিডগুলো জেনে নিবো, অবশ‌্যই ছন্দে ছন্দে।

Simplest Amino Acid | সরল প্রোটিন বা অ্যামাইনো এসিডসমূহ মনে রাখার টেকনিক

“আলমারির গেট খুলে প্রথমে পেলাম স্কেল গ্লোব হিস্টোরি বই”

  • আলমারি  =>> অ্যালবুমিন
  • গেট  =>> গ্লুটেলিন
  • খুলে  =>>  ছন্দ মিলের জন্য
  • প্রথমে  =>>  প্রোটামিন
  • পেলাম  =>>  প্রোলামিন
  • স্কেল  =>>  স্কেলেরোপ্রোটিন
  • গ্লোব  =>>  গ্লোবিউলিন
  • হিস্টোরি  =>>  হিস্টোন

অত্যাবশ্যকীয় অ্যামাইনো এসিড | Essential Amino Acids

“PVT TIM HALL”

  • P  =>>  ফিনাইল অ্যালানিন
  • V  =>>  ভ্যালিন
  • T  =>>  ট্রিপ্টোফ্যান
  • T =>>  থ্রিওনিন
  • I =>> আইসোলিউসিন
  • M  =>>  মিথিওনিন
  • H =>>  হিস্টিডিন
  • A   =>> অরজিনিন
  • L =>>  লাইসিন
  • L =>>  লিউসিন

অত্যাবশ্যকীয় অ্যামাইনো এসিড মনে রাখার মনে রাখার ছন্দ

 “লাইলি আইসো মাথায় ফিতা ও ভালো টিপ পরে দেই “

  • লাই => লাইসিন
  • লি => লিউসিন
  • আইসো => আইসোলিউসিন
  • মা => মেথিওনিন
  • থা => থিওনিন
  • ফিতা => ফিনাইল আলানিন
  • ভালো => ভ্যালিন
  • টিপ => ট্রিপ্টোফ্যান
আরো পড়ুন:  প্রাণীর বিভিন্নতা ও শ্রেণিবিন্যাস, প্রাণীর পরিচিতি : পর্ব মনে রাখার ছন্দ

বি:দ্র: আগের বইয়ে ১০ টি এসেনশিয়াল এমিনো এসিড ছিলো কিন্তু, নতুন আজমল ও হাসান এর বই এ ৮ টি দেওয়া আছে।

[quads id=6]

২০ প্রকার অ্যামাইনো এসিড মনে রাখার ছন্দ | Amino Acids List

১. গ্লামার — গ্লাইসিন

২. আইলে — অ্যালানিন

৩. ভাল — ভ্যালিন

৪. লিউ — লিউসিন

৫. আইসে — আইসোলিউসিন

৬. সেদিন — সেরিন

৭. থ্রিপিচ পরে — থ্রিওনিন

৮. আস্পার — অ্যাসপারটিক এসিড

৯. গেলাম — গ্লুটামিক এসিড

১০. আরজিনা — আরজিনিন ও

১১. লাইস এর — লাইসিন

১২, ১৩: সিস্টারদ্বয় — সিস্টিন ও সিস্টেইন

১৪. মিশেছিল – মেথিওনিন।

পরের ৬ টি অ্যামিনো এসিড

জীব বিজ্ঞানে ভাল করার মূল রহস্য মনে রাখা। যে যতো বেশি মনে রাখতে পারবে, সে জীব বিজ্ঞানে ততো বেশি ভাল করতে পারবে। তুমি কিভাবে মনে রাখবে সেটা কিন্তু মূল বিষয় না। তবে, ছন্দ দিয়ে মনে রাখার টেকনিক আমরা সবাই সম্ভবত ভাল কাজে লাগাতে পারি।

জীব বিজ্ঞান এর প্রেম কঠিন প্রেম, লাগেনা – লাগেনা , লাগলে কিন্তু ছাড়ে না। চেষ্টা করে যাও, একদিন নিজে এসে ধরা দিবে তোমার কাছে। আর তখন তুমিও জীব বিজ্ঞান বলতে অজ্ঞান হয়ে যাবে। কোষ ও কোষের গঠন নিয়ে ঝামেলা? দেখে নাও আমাদের দেওয়া ছন্দসমূহ।

আশা করি, এখন থেকে অত্যাবশ্যকীয় অ্যামাইনো এসিড, সরল অ্যামাইনো এসিড তথা ২০ প্রকার অ্যামাইনো এসিডই সবসময় মনে থাকবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top