অনলাইনে তো অনেক সাইট ভিজিট করেছেন, কখনো অনলাইনে ছবি বিক্রি করার সাইট এ প্রবেশ করেছেন? যেখানে ছবি বিক্রি করে আয় করছেন ফটোগ্রাফাররা। ইন্টারনেট থেকে আয় করার এমনিতে হাজারটা পথ রয়েছে, যেগুলো থেকে প্রতিনিয়ত মানুষ অনেক টাকা আয় করছে। আপনি ছাত্র হন কিংবা চাকুরীজীবী, প্রত্যেকের জন্য খোলা আছে বহু সেক্টর। যেগুলোতে আপনি আপনার পারদর্শিতাকে কাজে লাগিয়ে যথেষ্ট টাকা অনলাইন থেকে আয় করতে পারেন।

আপনার মধ্যে যদি এখনও প্রশ্ন থাকে, অনলাইনে কিভাবে টাকা উপার্জন করা যায়? আদৌ অনলাইনে ইনকাম করা যায় কিনা? তাহলে আপনি আসলে যুগের তুলনায় অনেক বেশি পিছিয়ে পড়ছেন আর আপনার এই পিছিয়ে পড়াকে কাজে লাগিয়েই অনেক প্রতিযোগীরা এগিয়ে যাচ্ছে।

হয়ত আপনিও গুগলে মোবাইল দিয়ে অনলাইনে আয়্, ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয়ের উপায় এরকম বহু জিনিস প্রতিদিন সার্চ করে যাচ্ছেন। কিন্তু এখনও মনের মত এবং মানসম্মত কোনো কাজ পাচ্ছেন না।

আর কোনো চিন্তার কারন নেই। আপনার এই চিন্তার অবসান ঘটাতেই আমাদের আজকের আয়োজন। কারন, আমরা আপনাকে পরিচয় করিয়ে দিতে চাই এমন একটি সহজ কাজের সাথে। যার মাধ্যমে আপনিও যুগের সাথে তাল মিলিয়ে অনলাইন থেকে একটি হ্যান্ডসাম একাউন্টের টাকা আয় করতে পারবেন।

হ্যা ঠিক ধরেছেন, আমাদের অনলাইনে ইনকাম করার আজকের আলোচনা ফটোগ্রাফারদের জন্য। কিভাবে ফটোগ্রাফি করে আয় করা যায় সেবিষয়েই বিস্তারিত জানাবো ইনশা’আল্লাহ।

আজকে আমরা আপনাকে বলবো কিভাবে ছবি তোলার পারদর্শিতাকে কাজে লাগিয়ে দিয়ে অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন।

আপনি কি অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করতে পারবেন?

আপনার কাছে কি ভাল মানের একটি ক্যামেরা আছে? কিংবা মোবাইলের ক্যামেরায় খুব ভালো ছবি আসে? আপনি কি ভাল ছবি তুলতে পারেন?

আপনাকে অভিনন্দন, আপনি ফটোগ্রাফি করে অনলাইনে টাকা আয় করার জন্য প্রস্তুত। তাহলে আর দেরী নয়। এই দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে আজই আপনার ক্যামেরায় তোলা ছবি বিক্রি করে আয় করা শুরু করুন।

আপনি হয়ত শখের বসে নানা ধরনের ছবি তোলেন। বিনা পয়সার বন্ধুদেরকে প্রতিনিয়ত ছবি তুলে দেন। এতে আপনার সময় নষ্ট ছাড়া কিছুই হচ্ছে না।

তাই শুধুমাত্র শখের বসে ছবি তুলে আর অযথা সময় নষ্ট করতে যাবেন না। বরং আপনার এই শখই হবে আপনার আয়ের উৎস। চলুন জেনে নেয়া যাক কিভাবে আপনার তোলা ছবি গুলো বিক্রি করে অনলাইনে আয় করা যায়।

কেন আপনার তোলা ছবি গুলো বিক্রি করে আয় করবেন?

শখের বসে তোলা আপনাদের ছবি গুলোকে কেন বিক্রি করবেন? এবং আয় করার এত অপশন থাকতে এই অপশনটি কেন বেছে নিবেন? এই প্রশ্ন নিশ্চয়ই আপনার মাথার মধ্যে ঘুরছে।

তবে কোনো রকম সংশয় নিয়ে কাজ শুরু করার চেয়ে জেনে নেয়া ভাল যে, কেন আপনি আপনার তোলা ছবি অনলাইনে বিক্রি করে আয় করবেন৷

একবার ভেবে দেখুন তো আপনি সারাদিনে ঠিক কতটুকু সময় আপনার ক্যামেরাটির পেছনে ব্যয় করছেন? শখের বসে হাজার হাজার ছবি তুলে পুরো গ্যালারী ভরিয়ে ফেলছেন।

বিনিময়ে বন্ধুদের কাছ থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু লাইক কমেন্ট পাচ্ছেন কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। হয়তো মাঝে মাঝেই মেমোরীর অতিরিক্ত জায়গা দখলের কারণে ছবি ডিলিট অভিযানে নামতে হয়। ফটোগ্রাফারদের সম্পদ এবং আবর্জনা দুইটাই কিন্তু ছবি

তাই আর অযথা এভাবে আপনার সময় ও ছবি নষ্ট না করে কাজে লাগান আপনার ফটোগ্রাফি শখকে। এবং আপনার জীবনকে আরো অর্থবহ করে তুলুন নিজের আয় থেকে।

নিজের তোলা ছবি অনলাইনে বিক্রি করা কি লাভজনক হবে?

হ্যাঁ। এবার আসুন আসল প্রসঙ্গে। আপনি কষ্ট করে একটি কাজ করলেন। সারাদিন ভেবেচিন্তে কিছু ছবি তুললেন। সেটাকে আয়ের উৎস হিসেবে নিলেন কিন্তু সন্তোষজনক কোনো আয় হল না। তাহলে ব্যাপারটা কেমন হবে বলুন?

তখন কিন্তু কেউই কষ্ট করে তোলা ছবি বিক্রি করার কথা ভাববে না। যথেষ্ট লাভবান হওয়া সম্ভব বলেই আজকাল অনেকেই এই পথের দিকে ঝুঁকেছেন।

তবে আপনি ছবি বিক্রি করে কতটাকা ইনকাম করবেন সেটি নির্ভর করবে আপনার উপর এবং কিছুটা আপনি যে সাইটে ছবি বিক্রি করতে চান সেই সাইটের উপরে।

আপনি যত বেশি ছবি আপলোড করবেন তত বেশি ইনকাম করতে পারবেন। আপনার ছবির মানও নির্ভর করে আপনার আয়ের ক্ষেত্রে। আপনি যত মানসম্মত ছবি আপলোড করবেন আপনার ছবির চাহিদাও বেশি হবে এবং আপনার আয়ও সেই হারে বাড়তে থাকবে।

ক্যামেরায় তোলা ছবি অনলাইনে কোথায় বিক্রি করবেন?

অনলাইনে এমন অনেক ছবি বিক্রি করার সাইট রয়েছে যেগুলো আপনাকে আপনার নিজের তোলা ছবি বিক্রি করার সুযোগ দেবে। কিন্তু তার মধ্যে সবচেয়ে লাভজনক হচ্ছে অনলাইন স্টক ইমেজ ওয়েবসাইট

বর্তমানে বিভিন্ন কোম্পানি, ফ্রীল্যান্সার, অলাইন বিজনেস কিংবা বিজ্ঞাপন দেয়ার সময়ে অনেকেই আলাদা করে ফটোগ্রাফার ভাড়া করার ঝামেলা নিতে চান না। সহজেই নিজের কাজের জন্য কিংবা প্রতিষ্ঠানের জন্য ছবি ডাউনলোড করে নিতে চান।

তাই আজকাল একটি ছবির কতটুকু চাহিদা তা বুঝতেই পারছেন আপনি। আর তাদের এই চাহিদা কে কাজে লাগিয়ে আয় করা সম্ভব হাজার হাজার টাকা।

এখন যেকোনো মানুষই কিন্তু এই স্টক ইমেজ ওয়েবসাইটে নিজের শখের বসে তোলা ছবি বিক্রি করে আয় করতে পারেন। আপনার তোলা ছবিটি এখানে আপলোড দেয়ার পর যে কেউ এটি ডাউনলোড করলে সে এটি ব্যবহারের অনুমতি পেয়ে যাবে। আর এটিই হবে আপনার আয়ের উৎস।

কিভাবে স্টক ইমেজ ওয়েবসাইটে ছবি বিক্রি করে আয় করা যায়?

স্টক ইমেজ ওয়েবসাইট থেকে আয় করতে হলে প্রথমেই আপনাকে নির্বাচন করতে হবে একটি ট্রাস্টেড ওয়েবসাইট। সেখানে আপনাকে অবশ্যই সাইন আপ করতে হবে।

যেকোনো স্টক ইমেজ ওয়েবসাইটে সাইন আপ করতে চাইলে প্রথমে sell image অথবা submit image অপশন গুলো খুঁজে বের করতে হবে।

এরপর রেজিষ্ট্রেশন করে নিতে হবে। রেজিষ্ট্রেশন প্রক্রিয়াটি মূলত আর দশটি সাধারণ ওয়েবসাইট এর মত করেই করা সম্ভব। এর জন্য আপনার লিগ্যাল নেম, ইউজার নেম, ভেরিফাইড ইমেল এড্রেস ও একটি স্ট্রং পাসওয়ার্ডই যথেষ্ট।

তাহলে দেখতেই পাচ্ছেন কত সহজে আপনি যেকোনো স্টক ইমেজ ওয়েবসাইট এ রেজিষ্ট্রেশন করে নিতে পারেন। আর আপনার তোলা ছবি বিক্রি করে আয় করা শুরু করে দিতে পারেন।

এবার আপনার মনে একটি প্রশ্ন থেকে যায়, মানুষ কেন আমার ছবি কিনবে? কারা আমার ছবি থেকে লাভবান হবে? চলুন তাহলে এ বিষয়ে জেনে নেয়া যাক;

আপনার ছবি কে কিনবে? কেন কিনবে?

আপনি ভাবতেও পারবেন না ইন্টারনেট ও ডিজিটাল প্রযুক্তির এই যুগে আপনার একটি মানসম্মত ছবির কি পরিমাণ চাহিদা রয়েছে। আজকাল ঘরে ঘরে গরে উঠছে ফ্রিল্যান্সার। ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপরে গড়ে উঠছে নানা প্রতিষ্ঠান৷

যেকোনো কোম্পানী, ওয়েবসাইটের মালিক, ব্লগার কিংবা অনলাইম বিজনেসম্যানরাই আপনার তোলা ছবির সবচেয়ে বড় গ্রাহক হবেন।

এসব প্রতিষ্ঠান কিংবা ব্যক্তি পর্যায়ে বিভিন্ন কাজে যেমন  বিজ্ঞাপন, প্রমোশন, প্যাকেজিং, রাইটিং, ব্রান্ডিং, ডিজাইন প্রভৃতি কাজে ভালো কোয়ালিটি এবং কপিরাইট ফ্রি ছবি প্রয়োজন হয়।

কিন্তু তাদের ছবি তোলার মতো সময় নেই। তাই তারা স্টক ইমেজ সাইটগুলো থেকে ছবি এবং কপিরাইট কিনে নেয়। সুতরাং স্টক ইমেজ ওয়েবসাইটে কাজ করলে আপনার মানসম্মত কাজের যে যথাযথ মূল্য পাবেন তা নিশ্চিতভাবে বলা যায়।

ছবি বিক্রি করে কত টাকা আয় করা যায়?

এটা অবশ্যই অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় কারন আপনি কষ্ট করে একটি কাজ করবেন আর সেটার মূল্য সম্পর্কে সঠিক ধারনা রাখবেন না তা কি করে হয়।

স্টক ফটো সাইট

অনলাইনে ছবি বিক্রি করে ঠিক কত টাকা আয় করতে পারবেন তার সুনির্দিষ্ট এমাউন্ট বলা না যায় না। কারন এটা পুরোপুরি নির্ভর করছে আপনি কোন স্টক ইমেজ ওয়েবসাইট (stock image website) এ আপনার ছবি গুলো আপলোড করছেন তার উপরে। আর সবচেয়ে মূল্যবান বিষয়ে হল আপনার তোলা ছবি গুলো কতটুকু মানসম্মত?

ভাল মানের স্টক ইমেজ ওয়েবসাইট গুলো আপনাকে ছবি প্রতি ডাউনলোডের জন্য $.২৫ – $.৩৫ এর মত টাকা দিবে। আর এই টাকা বৃদ্ধি পেতে থাকবে আপনার তোলা ছবিটি কতবার ডাউনলোড করা হয় সেই ভিত্তিতে। তাহলে সহজেই ক্যালকুলেশনটা করে নিন।

দিনে যদি ১০০ বার আপনার ছবিগুলো ডাউনলোড হয়, তাহলেও আপনি প্রতিদিন যে পরিমাণ টাকা পাচ্ছেন (100*0.25 = 40$ = ৩০০০৳) তা কি যথেষ্ট নয়?

গুরুত্বপূর্ণ একটি কথা আবার স্মরণ করে দেই, সেটি হচ্ছে অবশ্যই মানসম্মত এবং সময়োপযোগী ছবি আপলোড করবেন। অন্যথায় আপনার শুধু সময়ই নষ্ট হবে। তাই অনলাইনে  ছবি বিক্রি করে আয় করতে চাইলে অবশ্যই এই বিষয় গুলো মাথায় রাখবেন।

এবার আসুন জেনে নেই এমন কিছু স্টক ইমেজ ওয়েবসাইট এর নাম যেখানে আপনি আপনার নিজের তোলা ছবিগুলো বিক্রি করে আয় করতে পারবেন।

সেরা ৫টি অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করার সাইট

অনলাইনে এমন অনেক প্লাটফর্ম রয়েছে যেগুলো আপনাকে ছবি বিক্রি করে টাকা আয় করার সুযোগ দিবে৷ তার মধ্যেও কিছু জনপ্রিয় এবং মানসম্মত স্টক ইমেজ ওয়েবসাইট (stock image website) গুলোর সাথে আপনাকে পরিচয় করে দেওয়ার লক্ষেই আমাদের আজকের পোস্ট।

১. Shutterstock.com

অনলাইনে ছবি বিক্রি করার সাইটগুলোর মাঝে অন্যতম জনপ্রিয় ওয়েবসাইট। একজন ফটোগ্রাফার হিসেবে আপনি এই মার্কেটপ্লেসটি থেকে দীর্ঘ সময় ধরে প্রচুর টাকা আয় করতে পারবেন।

Shutterstock সাইটের ownerদের মতে, এই সাইটের সেলাররা এখন পর্যন্ত পৃথিবী জুড়ে প্রায় $500 million এর মত আয় করেছে। এখানে ১০০ মিলিয়নের ওপরে ছবি রয়েছে। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন ছবি আপলোড করা হচ্ছে।

এখানে আপনি একদম ফ্রি সাইন আপ করতে পারছেন। প্রতি ছবির জন্য $.04 এবং ১০% পেতে পারেন ভিডিওর জন্য। ডাউনলোড করা ছবির ভিত্তিতে প্রায় ৪০% পর্যন্ত কমিশন পাবেন এই সাইট থেকে। এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত কাজ করে প্রতিদিন প্রায় ১২০ডলার পর্যন্ত আয় করা সম্ভব।

পেমেন্ট নিয়ে দুশ্চিন্তা করতে হবে না। Shutterstock ওয়েবসাইট থেকে প্রতি মাসে আপনাকে আপনার প্রাপ্য টাকা দিয়ে দেয়া হবে।
যত বেশি ছবি আপলোড করবেন তত বেশি ইনকাম করতে পারবেন।

এছাড়াও কাউকে রেফার করেও আয় করতে পারেন এই সাইট থেকে। যখন কোনো আর্টিস্ট আপনার রেফার করা লিংক থেকে সাইন আপ করবে, তার আপলোড করা প্রতিটি ছবির ডাউনলোড এর সময় আপনি কমিশন পাবেন। তাই Shutterstock নিঃসন্দেহে অনলাইনে আয় করার একটি লাভজনক ওয়েবসাইট।

আপনি যদি একজন ভাল মানের ফটোগ্রাফার হন তাহলে Shutterstock ওয়েবসাইটটি আপনার জন্য৷ আপনার তোলা ছবি অনলাইনে বিক্রি করে আয় করার এর থেকে ভাল সূযোগ আর কি হতে পারে?

২. Adobe stock:

Adobe stock বর্তমানে অনেক নামকরা একটি স্টক ইমেজ ওয়েবসাইট। প্রতিদিন বহু কোম্পানি , ফ্রীল্যান্সার ও প্রতিষ্ঠানের লোকেরা হাজার হাজার প্রিমিয়াম কোয়ালিটির ছবি কিনে নেয় Adobe stock থেকে।

এই ওয়েবসাইটে আপনি আপনার যেকোনো সাধারণ ছবি বা ভেক্টর ছবির প্রতিটি ডাউনলোডের জন্য ৩৩% এবং ভিডিওর জন্য ৩৫% পর্যন্ত কমিশন পাবেন। মাত্র ২৫ ডলার হলেই টাকা উইথড্র করে ফেলতে পারবেন PayPal কিংবা Skrill এর মাধ্যমে।

অনলাইনে ছবি বিক্রি করার সাইট

তবে এই সাইটে ছবি বিক্রি করতে চাইলে আপনাকে অবশ্যই ক্যামেরা ও ছবি তোলা সম্পর্কে যথেষ্ট ভাল ধারনা থাকতে হবে৷ নতুবা আপনার ছবি বিক্রি করে আয় করার স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাবে।

আপনি যত অসাধারণ, ভাল মানের ছবি তুলবেন তত ইনকাম করতে পারবেন। ছবির lightning, natural moments, color এই সব গুলোর সঠিক সংমিশ্রণে ছবিটিকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলতে পারেন।
Adobe stock সাইটে কেন ছবি বিক্রি করবেন?

  • ৩৩% পর্যন্ত কমিশন ছবির জন্য
  • ৩৫% ভিডিওর জন্য
  • ২৫ ডলার হলেই উইথড্র করার সুযোগ
  • Paypal কিংবা skrill এর মত ওয়ালেটে উইথড্র করার সুবিধা।

Adobe stock মানসম্মত ফটোগ্রাফারদের জন্য নিঃসন্দেহে একটি ভাল প্লাটফর্ম৷ অনলাইন ভাল একটা এমাউন্ট ইনকাম করতে চাইলে আজই আপনার তোলা সেরা ছবিগুলো বিক্রি করুন Adobe stock এ এবং অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করা শুরু করুন।

৩. Can stock photo

Can stock photo এমন একটি সাইট যেটি আপনাকে প্রতিটি ডাউনলোড এর জন্য দেবে ৫০% পর্যন্ত কমিশন। এটি বর্তমানে অন্যতম ফাস্ট এবং ফেয়ার একটি ওয়েবসাইট যেটি অবশ্যই আপনাকে পেমেন্ট দিবে। ৫০ ডলার হয়ে গেলেই আপনি আপনার ইনকাম উইথড্র করার অনুমতি পেয়ে যাবেন৷

আপনি যদি প্রতি সপ্তাহে নিয়মিত ছবি আপলোড করেন এবং আপনার একাউন্টে যদি প্রচুর পরিমানে ছবি থাকে তাহলে আপনার আয়ের পরিমানও বেড়ে যাবে৷ কারন যতবেশি ভাল মানের ছবি তত বেশি ইনকাম করার সুযোগ। এই ওয়েবসাইট থেকে আপনি পাচ্ছেন:

  • ৫০% পর্যন্ত কমিশন
  • ফাস্ট সাবমিশন সুবিধা
  • মাত্র ৫০ ডলার হলেই উইথড্র করার অনুমতি
  • সহজ এবং দ্রুত উইথড্র করার সুযোগ

এই ওয়েবসাইট এ রেজিষ্ট্রেশন করা খুবই সহজ। রেজিষ্ট্রেশন করতে হলে আপনাকে একটি এপ্লিকেশন পাঠাতে হবে যেখানে কমপক্ষে তিনটি ছবিও থাকতে হবে।

আপনার ছবির মান ভাল হলে একদিনের মধ্যেই ওদের কাছ থেকে রিপ্লে পাবেন। তাই মানসম্মত কাজ করতে পারলে আয় নিয়ে চিন্তার কোনো কারন নেই।

আপনার তোলা সেরা ছবিগুলো নিয়ে আজই এপ্লাই করুন can stock photo সাইটে। আর অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করুন খুব অল্প কিছু দিনের মধ্যে।

৪. Alamy.com

Alamy.com সাইট টি পৃথিবীব্যাপী বিচিত্র ও ক্রিয়েটিভ ছবির ভান্ডার হিসেবে পরিচিত৷ এই ওয়েবসাইটের প্রতিটি ছবিই হয় ভাল মানের এবং ইউনিক। এখানে প্রায় ২৩৬.২৩ মিলিয়ন ছবি রয়েছে। প্রতিদিন প্রায় ৩০০০ ছবি যুক্ত হয় Alamy.com এ।

ছবি বিক্রি করে টাকা আয়

তাই আপনার ছবিগুলো যদি হয় ইউনিক এবং ক্রিয়েটিভ তাহলে Alamy.com হবে আপনার জন্য লাভজনক একটি সাইট।

Alamy.com এ কনট্রিবিউটর হলে আপনি যা পাবেন;

  • ৫০% পর্যন্ত কমিশন পাবেন এক্সক্লুসিভ ইমেজ গুলোর জন্য
  • ৪০% পর্যন্ত কমিশন পাবেন নন এক্সক্লুসিভ ইমেজ গুলোর জন্য
  • অনেক সহজে এবং দ্রুত গতিতে সাবমিশান করতে পারবেন
  • সোজাসাপটা ও ঝামেলা মুক্ত কন্ট্র্যাক করতে পারবেন

তাই আপনার ক্যামেরায় তোলা ক্রিয়েটিভ ছবিগুলোর সঠিক মূল্য পেতে একজন কন্ট্রিবিউটর হিসেবে রেজিস্ট্রেশন করে ফেলুন Alamy.com এ।

রেজিষ্ট্রেশন করতে চাইলে আপনার নাম, ইমেইল এড্রেস, মোবাইল নম্বর এবং নিজের দক্ষতা সম্পর্কে কিছু সহজ কথা লিখে এপ্লাই করে ফেলুন Alamy.com এ। আপনার ক্যামেরায় তোলা ছবি গুলোর সঠিক ব্যবহার করুন। Alamy.com এ ছবি বিক্রি করে টাকা আয় করুন।

৫. IstockPhoto.com

বর্তমানে স্টক ইমেজ ওয়েবসাইট গুলোর মধ্যে আরেকটি জনপ্রিয় সাইট হচ্ছে IstockPhoto.com. আই-স্টক ফটো পুরো পৃথিবীব্যাপী মাইক্রো স্টক ইমেজ প্রভাইড করে থাকে। পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আর্টিস্ট, ফটোগ্রাফার ও ডিজাইনাররা এখানে কন্ট্রিবিউটর হিসেবে নিজেদের ছবি আপলোড করে। সেগুলো বিক্রি করে আয় করে অনেক টাকা।

আপনি যদি IstockPhoto.com এ জয়েন করতে চান তাহলে শুধুমাত্র আপনার ইমেল, কান্ট্রি আর একটি পাসওয়ার্ড সিলেক্ট করেই IstockPhoto.com এর সদস্য হয়ে যেতে পারেন। আর আপনার তোলা ছবি বিক্রি করে টাকা আয় করতে পারেন মোটা অঙ্কের টাকা।

অনলাইনে এরকম আরো অনেক স্টক ইমেজ বিক্রি করার সাইট রয়েছে যেগুলো আপনাকে আপনার তোলা ছবি বিক্রি করে ইনকাম করার সুবর্ণ সুযোগ তৈরী করে দিবে।

প্রত্যেকটি ওয়েবসাইটেই নিবন্ধন করার সহজ পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করে আপনিও হয়ে যেতে পারেন যেকোনো স্টক ইমেজ ওয়েবসাইট এর সেলার / কন্ট্রিবিউটর।

অনেক ক্ষেত্রে সম্মানীর পরিমান বেশি অনেক ক্ষেত্রে আবার কম। তবে ছবির মান ভাল হলে বিক্রিও বেশি হবে আর আয়ের পরিমানও বাড়বে।

তাই অনলাইনে ছবি বিক্রি করে আয় করতে যদি দৃঢ় সংকল্প করতে পারেন তাহলে, স্টক ইমেজ ওয়েবসাইটে ছবি বিক্রি করার কাজ আপনার জন্য অত্যন্ত লাভজনক হবে।

শেষ কথা

আপনার যদি ছবি তোলার প্রতি ব্যপক আগ্রহ থাকে এবং ফটোগ্রাফি নিয়ে পর্যাপ্ত ধারনা থাকে তাহলে আর অপেক্ষা না করে এই পারদর্শিতাকে আজই কাজে লাগিয়ে ফেলুন।

অন্যদের মত নিজের মূল্যবান সময় অযথা নষ্ট না করে আপনার ছবি তোলার শখটাকেই একটি প্রফেশনাল অপরচুনিটি দিন। এই ফটোগ্রাফি শখ এবং দক্ষতাকে আপনার আয়ের উৎস করে ফেলুন।

আপনার কষ্ট করে তোলা প্রত্যকটা বিচিত্র ও মানস্ম্মত ছবির সঠিক মূল্য বুঝে নিন। আজই রেজিষ্ট্রেশন করে ফেলুন আমাদের সাজেস্ট করা সেরা পাঁচটি স্টক ইমেজ ওয়েবসাইট গুলোতে।

আশা করি, অনলাইনে ছবি বিক্রি করার সাইটগুলো আপনার উপকারে আসবে। আপনিও অনলাইনে ছবি বিক্রি করে টাকা আয় করতে পারবেন।


supti

I'm Nusrat Jahan Supti. I'm a professional content writer, freelance designer and web developer. I have a handful experience on these ground. Rather than profession,writing has always been my passion.I'm giving my best to become a renowned and successful author. I'm currently a student of Agriculture. I prefer hard-work and always try to complete my work with 100% honesty. I've already worked with many renowned websites. Spreading knowledge through my writing,is my goal.

0 Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।