ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করুন সেরা ৫ উপায়ে

ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয়

বর্তমানে ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার অনেক উপায় তৈরি হয়েছে। কিন্তু, অনেকেই এখনো ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার সঠিক পদ্ধতিগুলো সম্পর্কে জানেন না। যার কারণে, ইনস্টাগ্রাম একাউন্টে হাজার হাজার ফলোয়ার থাকলেও ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করতে পারছেন না। আপনিও কি ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করতে চান? তাহলে how to earn from instagram বিষয়ক আজকের আর্টিকেলটি আপনার জন্যই।

বর্তমানে অনলাইনে আয় করার বিষয়টি খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। আর অনলাইন আয়ের ক্ষেত্রে অন্যান্য social media এর মতো ইনস্টাগ্রামও অনেক জনপ্রিয়।

আমরা শুধু প্রতিদিনকার সুন্দর মুহুর্ত, stunning ছবি আর trending সব কন্টেন্টই instagram এ আপলোড দিয়ে থাকি। অথচ, আমাদের তোলা এইসব ছবি বা content গুলোর মাধ্যমে ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করা সম্ভব।

পূর্বে আমরা ফেসবুক, টুইটার এবং টেলিগ্রাম থেকে আয় করার উপায়গুলো জেনেছিলাম। আজকে আমি আপনাদের কিভাবে ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করা যায়, সে বিষয়ে একটি স্বচ্ছ ধারণা দেয়ার চেষ্টা করবো।

ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার বিষয়ে অনেক ধরণের প্রশ্ন এবং বিভ্রান্তি তৈরি হয়। ইনস্টাগ্রামে কিভাবে ইনকাম শুরু করবো, কি কি প্রয়োজন, কত followers থাকতে হবে ইত্যাদি।

সত্য কথা বলতে ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করা আসলেই সম্ভব এবং লক্ষ্য লক্ষ্য লোক ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট দিয়ে টাকা আয় করছেন। কিন্তু, প্রশ্ন হলো আপনি কেন পারছেন না? চলুন তবে সমাধান জেনে নেওয়ার চেষ্টা করি! বিস্তারিত জেনে নেই ইন্সটাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার উপায় এবং কিভাবে ইনকাম করা যায় সেসম্পর্কে।

ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার উপায় | How to earn from Instagram?

ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার জন্য আপনার Instagram account টিকে সাজাবেন কি করে, সে বিষয়ে একটু পরে আসছি। তার আগে ইনস্টাগ্রাম থেকে কি কি উপায়ে টাকা আয় করা যায় সেসম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার সেরা ৫টি উপায় হলো:

  1. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং
  2. স্পন্সরড কন্টেন্ট
  3. নিজের ব্যবসা প্রমোট করা
  4. নিজের ক্যাপচার করা ছবি বিক্রি
  5. অন্য ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট প্রমোট করার মাধ্যমে আয়

১। Affiliate link share করে ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয়

বর্তমান সময়ের খুব আলোচিত একটি বিষয় Affiliate marketing. Instagram এ affiliate marketing বা affiliate link sharing কিভাবে করা যায়, তা জানার আগে জানতে হবে affiliate marketing বিষয়টি কি?

Related:  টেলিগ্রাম থেকে ইনকাম করার কার্যকরী ৫টি উপায়

Affiliate মার্কেটিং হলো নিজের social media বা website এর মাধ্যমে অন্য ব্র্যান্ড বা কোম্পানির product promote এবং sell করে দেয়া। প্রোডাক্ট বিক্রি করতে হেল্প করার বিনিময়ে কমিশন পাওয়া যায়।

চলুন এবার ইনস্টাগ্রাম থেকে ইনকাম করার উপায়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

ইনস্টাগ্রামে কিভাবে affiliate marketer হিসেবে কাজ করবেন?

ধরুন আপনি কোনো একটি কোম্পানির নির্দিষ্ট একটি product ব্যবহার করছেন এমন একটি ছবি তুলে upload দিলেন। এবং ওই product টি কোথায় পাওয়া যাবে, তার link দিয়ে দিলেন।

প্রতিবার যখন কেউ ওই লিঙ্ক এ click করে ওই product টি কিনবেন, আপনি সেই কোম্পানি থেকে ১০-২৫% বা তারও বেশি কমিশন পাবেন। এর মাধ্যমে আয়ের পরিমাণ আপনার follower ও বিক্রি বাড়ার সাথে সাথে বাড়বে।

এক্ষেত্রে, কোম্পানি আপনাকে একটি unique link বা promo code দেবে, যা দিয়ে আপনার link থেকে কতজন product টি কিনলো, তা ট্র্যাক করা যায়।

বর্তমানে instagram এর bio এবং story ছাড়া অন্য কোথাও link ব্যবহার করার সুযোগ নেই। তাই একই সময়ে আপনি শুধু একটি প্রোডাক্ট এর Affiliate link ই share করতে পারবেন।

২। ইনস্টাগ্রামে স্পন্সরড কন্টেন্ট দিয়ে টাকা আয়

২০২০ সালে এসে ‘Influencer ’ শব্দটি শুনেনি, এমন কাউকে পাওয়া মুশকিল।

Influencer হলো এমন কোনো ব্যক্তি, যে তার কথা বা content (specially video) দিয়ে অনলাইনে নিজের একটি শক্ত এবং সম্মানিত অবস্থান তৈরি করে নিয়েছেন এবং অন্যদের প্রভাবিত করতে পারেন। বিভিন্ন সময়ের ট্রেন্ড গুলো কিন্তু influencer রাই তৈরি করেন।

আপনি যদি একজন influencer হয়ে থাকেন, তবে এই অংশটি কিন্তু শুধু আপনার জন্যই। বিভিন্ন কোম্পানি তাদের প্রোডাক্ট সেল করার জন্য influencer দের sponsor করে।

সাধারণত Sponsored content গুলো শুরু হয় product review এর মাধ্যমে। যেহেতু influencer দের অনলাইনে যথেষ্ট বিশ্বাসযোগ্যতা রয়েছে, তাই কোম্পানির সেলও প্রচুর পরিমাণে বেড়ে যায়।

একজন influencer হিসেবে আপনার অবশ্যই মানুষের বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করতে হবে। কম follower থাকা অবস্থায় আপনি নিজে বিভিন্ন কোম্পানি খুঁজে বের করতে পারেন, যারা sponsor করতে আগ্রহী। অথবা নিজের এমন অবস্থান তৈরি করুন, যাতে ব্র্যান্ডগুলো নিজেরাই আপনাকে খুঁজে বের করে।

ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার উপায়

একজন সফল influencer প্রতি পোস্টের জন্য ৫০$ থেকে আরো বেশি চার্জ করে থাকেন তার follower এর পরিমান অনুযায়ী।

তবে খেয়াল রাখবেন, অর্থ আয় করতে গিয়ে যেনো আপনার follower দের মনে নাহয় আপনার একমাত্র উদ্দেশ্য আয় করা। এতে করে আপনি আপনার active follower এবং বিশ্বাসযোগ্যতা দুটিই হারাবেন। তাই পোস্ট এর সাথে #sponsored বা #add লিখে দেয়া সবচেয়ে ভালো।

নিশ্চয়ই শুনে থাকবেন অমক তারকার প্রতি ইনস্টাগ্রাম পোস্টের মূল্য এত! এটা কি instagram দেয়? না, celebrity রা এই উপায়েই তাদের পোস্ট থেকে আয় করেন। তাদের একটি পোস্ট কোটি কোটি ফলোয়ারের কাছে একটি কোম্পানীর product পৌছে দিতে পারে, এজন্যই এত মূল্য।

Related:  টুইটার থেকে আয় করার উপায় | How to earn from twitter?

আপনি তো নতুন, তাহলে অন্যান্য কোম্পানী কেনো আপনাকে Affiliate হিসেবে নেবে বা sponsor করবে?

কারণ নতুন বলেই আপনার রেট কিছুটা কম থাকবে। এবং কোম্পানিগুলো নতুনদের বেশি সুযোগ দিয়ে থাকে কারণ, নতুনরা ইউনিক এবং ক্রিয়েটিভ কন্টেন্ট তৈরির ক্ষেত্রে এগিয়ে।

৩। নিজের ব্যবসা প্রমোট করে আয় বৃদ্ধি

আপনি চাইলে নিজের প্রোডাক্টই instagram এ বিক্রয় করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার instagram profileএ নিজের product এর মার্কেটিং এবং bio তে আপনার business website এর link ব্যবহার করুন।

আপনি বিভিন্ন ধরণের পণ্য বিক্রয় করতে পারেন। হতে পারে এটি কোনো freelancing কোর্স বা ebook. কিংবা কোনো physical পণ্য যেমন কাপড়, বই, খাবার, প্রয়োজনীয় যন্ত্র বা print on demand পণ্য, যেকোনো কিছুই হতে পারে।

৪। ছবি বিক্রি করে ইনস্টাগ্রাম থেকে আয়

অবাক হলেন? হয়ে যেতে পারেন অনলাইন ফটোগ্রাফার! স্টক ফটো সাইট, অনলাইন ব্যবসা, ফ্রিল্যান্সিং বিভিন্ন কোম্পানির প্রচারণায় প্রচুর পরিমাণে অত্যন্ত high quality ফ্ল্যাট ইমেজ বা lifestyle ইমেজ প্রয়োজন হয়।

এছাড়াও, প্রয়োজন হয় minimalistic photography যা হতে পারে কোনো খাবার বা যেকোনো বস্তুর। এমনকি আপনার আঁকা ছবিও আপনি বিক্রয় করতে পারবেন! Instagram এর জন্য ওঠানো ছবিগুলোরই কিন্তু প্রচুর চাহিদা রয়েছে বর্তমানে।

৫। একাউন্ট প্রমোট করে ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয়

নতুন একাউন্টে ফলোয়ার্স, Rach, Engagements কম থাকে। দ্রুত Active intagram followers পেতে অন্য আরেকটি একটিভ পপুলার একাউন্টের চেয়ে ভালো কিছু আর হয়না।

আপনার একাউন্টে যদি বেশ ভালো পরিমাণ followers তৈরি হয়ে যায়, তবে এটিকে কাজে লাগিয়ে সহজেই অন্য কোনো ইনস্টাগ্রাম বিজনেস একাউন্ট প্রমোট করে ইনকাম করতে পারবেন।

এটি খুবই সহজ কাজ, ইনস্টাগ্রাম একাউন্টে শুধুমাত্র একটি স্টোরি বা পোস্ট দিয়েই আপনি হাজার হাজার টাকা আয় করে নিতে পারবেন। একাউন্টের ফলোয়ার সংখ্যার উপর প্রমোটিং ফি কম বেশি হয়ে থাকে।

ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করতে করণীয়

  • সঠিক সময়ে এবং প্রতিদিন পোস্ট করার চেষ্টা করুন, যাতে আপনার follower রা বুঝতে পারেন, আপনি তাদের কতটা গুরুত্ব দিচ্ছেন।
  • High quality এবং attractive ইমেজ আপলোড দিন যেহেতু instagram একটি visual platform
  • প্রতিটি post, bio এবং story তে Hashtag ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রে hastag নিয়ে কিছু রিসার্চ করুন, কোন hashtag টির চাহিদা বেশি
  • আপনার নিশের সাথে সম্পৃক্ত বিভিন্ন ভিডিও শেয়ার করুন।
  • এমন content তৈরি করুন, যা মানুষের আগ্রহ ধরে রাখে, সমস্যার সমাধান করতে পারে।
  • Profile base তৈরি করুন আগে, হুট করেই পণ্য বিক্রয় শুরু করবেননা। প্রথমে নিজের গুরুত্ব তৈরি এবং বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করুন।

ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করার জন্য কি কি লাগবে?

১. সবার আগেই প্রয়োজন follower: কারণ, আপনি প্রোডাক্টগুলো বিক্রয় করবেন আপনার follower দের কাছেই। এখন প্রশ্ন হচ্ছে কত  follower প্রয়োজন। না, চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই। যতো বেশি আপনি ভাবছেন, ইনস্টাগ্রামে আয় শুরু করার জন্য ততো বেশি follower প্রয়োজন নেই। আপনি কোন উপায়ে আয় করতে চাচ্ছেন, তার উপর ভিত্তি করে follower সংখ্যা কম বেশির প্রয়োজন হবে।

Related:  Telegram bot থেকে ইনকাম : বিকাশে পেমেন্ট

Follower সংখ্যা কোনো কোনো ক্ষেত্রে ১০০০ এর উপরে হলেই আপনি instagram এ আয় শুরু করতে পারবেন। আপনার হাজার হাজার Follower আছে কিন্তু কেউ active Follower নয়, তবে এই Follower দের কোনো মূল্য নেই। ফলোয়ারস কম হলেও engagement অনেক বেশি হওয়াটাই জরুরি। অর্থাৎ, এমন Follower যারা আপনার থেকে শুনতে আগ্রহী, আপনার post নিয়মিত follow করে এবং comment করে, তারাই আপনার active Follower.

২. একটি স্মার্টফোন অথবা কম্পিউটার: ডিভাইস ছাড়া আপনি নিশ্চয়ই ক্লায়েন্ট এর কাছে পৌছাতে পারবেন না!

৩. দ্রুত গতির ইন্টারনেট: ধীর গতির ইন্টারনেট হলে ক্লায়েন্ট ডিল করতে বেশ সমস্যা হবে। ক্লায়েন্ট আপনার মেসেজর জন্য খুব বেশি অপেক্ষা করবে এমন আশা না করাই ভালো

ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করতে একাউন্ট সাজিয়ে নিন

আমরা সবাই জানি, first impression matters!

তাই Instagram এর যে একাউন্টটি দিয়ে আপনি আয় করবেন তা অবশ্যই সাজানো গুছানো থাকতে হবে। যাতে আপনার প্রোফাইলটিকে প্রফেশনাল মনে হয় এবং আপনার বিষয়ে জানতে আগ্রহ তৈরি হয়।

ইনস্টাগ্রামে একাউন্ট তৈরি করার সময় অনেকগুলো অপশন সামনে আসে। profile picture, username, bio, website link ইত্যাদি। প্রতিটি অপশনই পূরণ করা অত্যন্ত জরুরি।

প্রথমেই একটি সহজ এবং ছোট username  ঠিক করতে হবে, যাতে মানুষ আপনাকে সহজেই খুঁজে পায়। profile picture অবশ্যই অ্যাড করতে হবে।

Bio এর অংশটুকুতে interesting, একই সাথে নিজের বিষয়ে কিছু বলার চেষ্টা করুন। চাইলে বিভিন্ন Emoji বা #tag ব্যবহার করতে পারেন এবং লিঙ্ক ব্যবহার করুন। এই লিঙ্কটি হতে পারে আপনার নিজের বিজনেস ওয়েবসাইট কিংবা যেই কোম্পানির হয়ে কাজ করছেন তার।

তবে খেয়াল রাখবেন, আপনার profile name, bio এবং profile picture যেনো আপনার নিশ (niche) বা যেই ক্যাটাগরি (ফ্যাশন, খাবার, ফিটনেস, জামাকাপড়, ট্রেন্ড ইত্যাদি) নিয়ে আপনি কাজ করছেন তার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হয়।

ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় নিয়ে শেষ কথা

যুগের সাথে তাল মিলিয়ে বাড়ছে প্রতিযোগিতা। এই সময়ে এসে ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করা সহজ হয়েছে সত্যি, তবে প্রয়োজন ধৈর্য ও কঠোর পরিশ্রম। তবেই আপনার জন্য ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করা সম্ভব হবে।

আশা করি, ইনস্টাগ্রাম দিয়ে টাকা আয় করার ৫টি উপায় আপনার কাজে লাগবে। সেইসাথে অন্য কোনো কোনো দারুণ উপায় জানা থাকলে আমার সাথে কমেন্টে শেয়ার করতে ভুলবেন না যেন।

2 thoughts on “ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা আয় করুন সেরা ৫ উপায়ে”

Leave a Comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।