রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১

রকেট মোবাইল ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১ আগের তুলনায় অনেক বেশি আধুনিক যা ঘরে বসেই করা যায়। রকেট বাংলাদেশের জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং যা শুরুর দিকে ডাচ বাংলা ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং নামে প্রচলিত ছিল।

বর্তমানে বিকাশ, নগদ এবং উপায়ের মতো অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং সেবা থাকলেও রকেট তার এটিএম বুথ, কম খরচ, বিদেশ থেকে রেমিটেন্স নিয়ে আসার সুযোগ সহ অন্যান্য সুবিধার কারণে অনেক বেশি জনপ্রিয়।

আপনার যদি এখনো কোনো রকেট একাউন্ট না থাকে, তবে নিশ্চয়ই রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম জানা দরকার! চিন্তা নেই, আপনার জন্যই আমাদের আজকের আয়োজনে কিভাবে রকেট একাউন্ট খোলা যায় তার সহজ পদ্ধতি সম্পর্কে জেনে নিবো।

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ৩টি। তবে আমরা এখানে দুইটি পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করবো। কেননা, তৃতীয় পদ্ধতিতে কিছু অংশ ঘরে বসে করা যায়, কিন্তু ভেরিফিকেশন সম্পন্ন করার জন্য ডাচ বাংলা ব্যাংক এজেন্ট পয়েন্ট এ যেতে হবে। তাই এসব ঝামেলা বাদ দিয়ে রকেট একাউন্ট খোলার সহজ দুইটি নিয়ম সম্পর্কে জেনে নিবো।

রকেট একাউন্ট করতে কি কি লাগে?

রকেট একাউন্ট ঘরে বসে করার জন্য আপনার একটি স্মার্টফোন, ন্যাশনাল আইডি কার্ড, এবং একটিভ সিম প্রয়োজন হবে।

অন্যদিকে, কাস্টমার এজেন্ট পয়েন্ট থেকে রকেট একাউন্ট খোলার জন্য দুইকপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি, ভোটার আইডি কার্ড (মূল কপি), ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি, এবং একটিভ সিম প্রয়োজন হবে।

ঘরে বসে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১

রকেট app ডাউনলোড: গুগল প্লে স্টোর এ গিয়ে Rocket লিখে সার্চ করুন এবং রকেট অ্যাপ ডাউনলোড করে ইনস্টল করে ফেলুন। অ্যাপটি ওপেন করার সময় কিছু  পারমিশন চাইবে, অনুমতি দিয়ে সামনে যেতে হবে।

ভাষা সিলেক্ট করুন: এবার ভাষা নির্বাচন করার অপশন পাবেন। বাংলা এবং ইংরেজি যে ভাষায় রকেট অ্যাপ দেখতেচান, সেটি নির্বাচন করে দিন।

নাম্বার ইনপুট দিন: ভাষা নির্বাচন করার পর আপনি যে ফোন নাম্বারে রক্টেন একাউন্ট খুলতে চান, সেটি লিখতে হবে। এবার আপনার ফোন নাম্বারে কল করা এবং ম্যানেজ করার পারমিশন চাওয়া হবে। এবারও অনুমতি দিয়ে সামনে অগ্রসর হতে হবে।

পারমিশন দিন: এখন আপনার সামনে You are not registered to mobile Banking………..এরকম লেখা একটি মেসেজ আসবে। এর অর্থ হলো, আপনার এই নাম্বারে কোনো রকেট একাউন্ট খোলা নেই। আপনি কি রকেট একাউন্ট খুলেতে ইচ্ছুক? যেহেতু আমরা একাউন্ট খোলার নিয়ম নিয়ে কথা বলছি, তাহলে আপনি নিশ্চয়ই ইচ্ছুক। সুতরাং, হ্যা বাটনে ক্লিক করুন।

অপারেটর নির্বাচন: পরবর্তী পেজে আপনার মোবাইল নাম্বারটি দেখাবে, পাশাপাশি অপারেটর সিলেক্ট করতে বলা হবে। অর্থাৎ আপনার এই নাম্বারটি গ্রামীনফোন, রবি, টেলিটক নাকি অন্য কোনো অপারেটরের, তা নির্বাচন করে দিতে হবে।

পিন লিখুন: এবার আপনার কাছে একটি কল আসবে। কল রিসিভ করে ৪ ডিজিটের একটি গোপন পিন ডায়াল প্যাডে লিখে ফেলুন।

সিকিউরিটি কোড এবং পিন: কল কেটে গেলে আপনার অ্যাপসের security code অপশনে কিছু নাম্বার দেখতে পারবেন। যদি না দেখায়, তবে কল শেষে আপনার কাছে আসা মেসেজে প্রাপ্ত সিকিউরিটি কোডটি কপি করে এখানে পেস্ট করুন। সিকিউরিটি কোড এর নিচে PIN অপশন দেখতে পাবেন। এখানে ফোন কলের সময় যে ৪ ডিজিটের পিন দিয়েছিলেন, সেটাই দিতে হবে। এরপর, Verify বাটনে ক্লিক করুন।

এখন, আপনার লোকেশন এক্সেস চাইবে, Allow বাটনে ক্লিক করে সামনে যান।এবার পুনরায় পিন নাম্বারটি দিয়ে লগ ইন বাটনে ক্লিক করতে হবে।

জাতীয় পরিচয় পত্র সাবমিট: Update Your KYC লেখা দেখতে পারবেন, বাটনটিতে ক্লিক করুন।

রকেট-একাউন্ট-খোলার-নিয়ম

এই পেজে কিছু টার্মস এন্ড কন্ডিশন দেখতে পারবেন। পলিসি পড়তে চাইলে পড়ে নিন, না চাইলে সরাসরি I Agree তে ক্লিক করে পরবর্তী ধাপে যেতে হবে। পরবর্তী পেজে আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ডের সামনে ও পিছনের ছবি তুলে জমা দিতে হবে।রকেট একাউন্ট খোলার পদ্ধতি

জাতীয় পরিচয়পত্র জমা দেওয়ার পর আপনার সকল তথ্য সমৃদ্ধ একটি পেজ দেখতে পারবেন, যা জাতীয় পরিচয়পত্রের সাথে হুবহু মিলে যাবে। এবার Next বাটনে ক্লিক করলে নিচের ছবির মতো একটি পেজ দেখতে পারবেন।রকেট একাউন্ট ফরমরকেট তথ্য ফরম: এখানে আপনার জেন্ডার তথ্য পুরুষ নাকি স্ত্রী, বিবাহিত নাকি অবিবাহিত, ধর্ম, পেশা এবং কি কাজে রকেট একাউন্ট ব্যবহার করবেন তা পূরণ করে Next বাটনে ক্লিক করুন।

ছবি তুলুন: এবার যার ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে রকেট একাউন্ট খুলছেন, তার ছবি তুলতে হবে। ছবি তোলার সময় খুব দ্রুত তিনবার চোখ বন্ধ করবেন এবং খুলবেন।

ছবি তোলা সম্পন্ন হলে রকেট কাস্টমার তথ্য ফরম পাবেন, যেখানে আপনার যাবতীয় তথ্য ছবিসহ দেখতে পারবেন।

অপেক্ষা করুন: এবার আপনাকে কিছু সময় অপেক্ষা করতে হবে। একাউন্ট তথ্য যাচাই করে সবকিছু ঠিক থাকলে কয়েক মিনিট থেকে কয়েক ঘন্টার মাঝেই রকেট থেকে একটি মেসেজ পাবেন, যেখানে Your Rocket Account has been approved লেখা থাকবে, যার অর্থ আপনার রকেট একাউন্ট খোলা সফলভাবে ভেরিফাই সম্পন্ন হয়েছে। সেইসাথে রকেটের নতুন গ্রাহক অফার ২৫ টাকা বোনাস একাউন্টে যোগ হয়ে যাবে।

এজেন্ট পয়েন্ট থেকে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১ এর প্রথম পদ্ধতিতে একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ব্যবহার করা হয়েছে। কিন্তু, আপনার যদি স্মার্টফোন না থাকে, তবে পরবর্তী রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম আপনার জন্য। এখানে আপনার নিজে নিজে কিছুই করতে হবে না, প্রয়োজনীয় কিছু কাগজপত্র সাথে নিলেই হবে।

  • KYC ফর্মটি পূরণ করে এবং ছবি ও জাতীয় পরিচয়পত্র (NID) সহ এজেন্টের কাছে জমা দিন
  • আপনার কাছে এবার একটি কল আসবে, যেখানে একটি 4-সংখ্যার পিন নম্বর দিন (আপনার পিন মনে রাখবেন)
  • আপনার মোবাইলে একটি একাউন্ট নিশ্চিতকরণ এসএমএস পাবেন যেখানে রকেট অ্যাকাউন্ট নম্বর থাকবে। এখানে দেখবেন আপনার নাম্বারটির সাথে শেষে আরো একটি নাম্বার যুক্ত হয়ে সর্বমোট ১২ ডিজিট হয়েছে। শেষ ডিজিটকে বলা হয় চেক ডিজিট (আপনার চেক ডিজিট মনে রাখবেন)।

রকেট একাউন্ট চেক করবেন কিভাবে?

USSD পদ্ধতি: রকেট একাউন্ট চেক করার জন্য রকেট একাউন্ট কোড *৩২২# ডায়াল করুন। এখানে ৯টি মেন্যু পাবেন, যেমন:

  1. বিল পে
  2. সেন্ড মানি
  3. টপআপ (মোবাইল রিচার্জ)
  4. ব্যাংক একাউন্ট
  5. মাই একাউন্ট
  6. রেমিটেন্স
  7. ক্যাশআউট
  8. মার্চেন্ট পে
  9. টোল কার্ড

Reply বাটনে ক্লিক করে আপনার কোন অপশনটি ব্যবহার ও দেখা দরকার তার নাম্বার লিখে সেন্ড করুন। যেমন: রকেট একাউন্ট ব্যালেন্স চেক করার জন্য ৫ লিখে রিপ্লাই করতে হবে। এরপর ১ লিখে আবার রিপ্লাই দিতে হবে। এবার ৪ ডিজিটের পিন দিয়ে সাবমিট করলেই রকেট একাউন্ট ব্যালেন্স চেক করতে পারবেন।

রকেট অ্যাপ দিয়ে একাউন্ট চেক করার পদ্ধতি: রকেট অ্যাপ ওপেন করে পিন দিয়ে লগইন করুন। Tap for Balance বাটনে ক্লিক করলে আপনার রকেট একাউন্টে কত টাকা আছে তা দেখতে পারবেন।

এছাড়া যাবতীয় তথ্য এবং লেনদেন করার বিভিন্ন অপশনও রকেট অ্যাপসের মধ্যেই পেয়ে যাবেন।

রকেট একাউন্টের সুবিধা

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১ তো জানা হলো, রকেটের সুযোগ সুবিধা না জানলে চলবে! রকেট মোবাইল ব্যাংকিং সিস্টেমে অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকের মতোই সকল সযোগ সুবিধা পাবেন, যেমন-

  • এক একাউন্ট থেকে অন্য একাউন্টে টাকা পাঠানো
  • বিদ্যুৎ বিল, গ্যাস বিল, ইন্টারনেট বিল সহ অন্যান্য বিল পেমেন্ট করার সুবিধা
  • এটিএম বুথ থেকে কম খরচে ক্যাশ আউট করার সুবিধা (অন্যসব মোবাইল ব্যাংকিং সেবায় নেই)
  • রকেট একাউন্ট থেকে মোবাইল রিচার্জ
  • বিদেশ থেকে রেমিটেন্স আনার সুযোগ (অন্যগুলোতে নেই)
  • ব্যাংক ও কার্ড থেকে টাকা আনতে পারবেন
  • কেনাকাটা করে পেমেন্ট করার সুবিধা
  • এছাড়া, বিভিন্ন অফার তো থাকছেই

রকেট লেনদেনের চার্জ

রকেট একাউন্ট খোলার আগেই আমাদের মাথায় প্রথম প্রশ্ন আসবে যে, রকেটে হাজারে খরচ কত? চলুন জেনে নেওয়া যাক!

রকেট ক্যাশ আউট চার্জ ২০২১:

  • রকেট এটিএম বুথ থেকে ক্যাশ আউট চার্জ হাজারে ৯.০ টাকা।
  • এজেন্ট পয়েন্ট থেকে রকেট ক্যাশ আউট চার্জ ১৮.০ টাকা।

রকেট ক্যাশ ইন চার্জ: ফ্রি

রকেটে সেন্ড মানি চার্জ: ফ্রি

রকেট একাউন্ট কোড কত?

রকেট একাউন্ট কোড *৩২২#। এই কোড ডায়াল করে একাউন্ট তৈরি থেকে রকেট থেকে টাকা তোলা সহ রকেটের সকল সার্ভিস নিতে পারবেন।

রকেট হেল্প লাইন

রকেট হেল্প লাইন নাম্বার ১৬২১৬, এখানে কল করে আপনার যাবতীয় প্রয়োজনীয় তথ্য, একাউন্ট ব্যালেন্সসহ সকল সমস্যার সমাধান এবং প্রয়োজনে একজন প্রতিনিধির সাথে কথা বলতে পারবেন।

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১ নিয়ে শেষ কথা

আমরা এর আগে নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম, নগদ একাউন্টের সুযোগ সুবিধা সম্পর্কে জেনেছি। আশা করি, পূর্বের মতো রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১ টিউটোরিয়ালটিও আপনার কাজে আসবে। রকেট একাউন্ট সম্পর্কিত আপনার কোনোকিছু জানার থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

Leave a Comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

error: Content is protected !!