ফ্রি অনলাইন জার্নাল ( Online Journal ) ও রিসার্চ ডাটাবেজ ওয়েবসাইট

ফ্রি জার্নাল রিসার্চ পেপার সাইট

ফ্রি অনলাইন জার্নাল : আমাদের একাডেমিক লাইফে, বিশেষ করে উচ্চতর শিক্ষাগ্রহণের ক্ষেত্রে রিসার্চ পেপার খুব সাধারণ অথচ খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। আমাদের মূল রিসার্চ পেপারের সুবিধার জন্য অন্যান্য পাবলিশড রিসার্চ পেপার থেকে আমরা তথ্য গ্রহণ করে থাকি।

এই পেপারগুলো অনলাইনে সার্চ করলেই বিভিন্ন ডাটাবেজের সাহায্যে পাওয়া যায়। কিন্তু বেশিরভাগ রিসার্চ পেপারে এক্সেস করতে আমাদের অনেক কাঠখড় পোহাতে হয়, কখনো মোটা অঙ্কের সাবস্ক্রিপশন ফি পে করা কিংবা পে-ওয়াল (Paywall) এর জন্য।

তাই বর্তমান যুগের জ্ঞানপিপাসু এবং বিশেষ করে অনার্স, মাস্টার্স, মেডিক্যাল রিসার্চ এবং পিএইচডি এর গবেষণার জন্য বিভিন্ন রিসার্চ পেপারে এক্সেস করা যাদের অত্যাবশকীয় কাজ, তাদের জন্যই আজকের এই আর্টিকেলটি।

ফ্রি অনলাইন জার্নাল ওয়েবসাইট – Free Online Journal Website

ফ্রি অনলাইন জার্নাল

১। সাইন্সওপেন (ScienceOpen)

রিসার্চ এবং যেকোনো পাবলিশিং সংক্রান্ত নেটওয়ার্ক হিসেবে ScienceOpen আপনাকে দিতে পারে ২৮ মিলিয়নেরও বেশি বিজ্ঞান বিষয়ক আর্টিকেলে ফ্রি এক্সেসের একটি দারুণ সুযোগ।

সম্পূর্ণ ফ্রি রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে আপনি আপনার কাঙ্ক্ষিত রিসার্চ পেপারটি খুঁজে পেতে পারেন। এই সাইটের সার্চিং অপশনটি এত উন্নত এবং বিশদভাবে বর্ণিত যে, আপনাকে আপনার গবেষণার কাজে প্রয়োজনীয় তথ্য খুঁজে পেতে তেমন কোন কাঠখড় পোহাতে হবেনা।

বার্লিন এবং বোস্টন ভিত্তিক এই সংস্থাটি ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়, যাদের একমাত্র লক্ষ্য ছিলো একাডেমিকদের মধ্যে মেধা ও তথ্য আদানপ্রদানের পাশাপাশি উন্মুক্ত জ্ঞানচর্চার একটি পরিচ্ছন্ন পরিবেশ গড়ে তোলা।

২। arXiv e-Print Archive

১৯৯১ সালে প্রতিষ্ঠিত এই সুপরিচিত আর্কাইভটিতে আপনি পাবেন ম্যাথমেটিকস, কম্পিউটার সাইন্স, ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, কোয়ান্টিটেটিভ বায়োলজি, পদার্থবিজ্ঞান, অর্থনীতিসহ বেশকিছু বিষয়ের ওপর বিশ্বের নামকরা প্রফেসর এবং গবেষকদের রিসার্চ পেপার।

আরো পড়ুন:  বাংলা পিডিএফ বই ডাউনলোড করার ওয়েবসাইট - Best 5 Book Download Site

এই ই-আর্কাইভটি বিশ্ববিখ্যাত কর্নেল ইউনিভার্সিটি লাইব্রেরি (Cornell University Library) কর্তৃক পরিচালিত, যা বর্তমানে এক মিলিয়নেরও বেশি ই-প্রিন্টের ওপেন এক্সেসের অফার দিচ্ছে।

৩। সোশ্যাল সাইন্স রিসার্চ নেটওয়ার্ক (Social Science Research Network)

একাডেমিক লাইফে বেশিরভাগ ঝামেলা যে শুধুই বিজ্ঞান ও মেডিক্যালের ছাত্র বা রিসার্চারদেরই যে পোহাতে হয় তা কিন্তু নয়। যারা সামাজিক বিজ্ঞান ও সমাজব্যবস্থা নিয়ে পড়াশোনা করছেন, তাদের জন্যেও রয়েছে রিসার্চে সাহায্যকারী বেশকিছু ওয়েবসাইট, যেগুলোর মাঝে Social Science Research Network অন্যতম।

ফ্রি এক্সেস বেজড এই সাইটটিতে ভিজিট করলেই আপনি পেয়ে যেতে পারেন প্রায় সাত লক্ষ অ্যাবস্ট্রাক্ট এবং ছয় লক্ষেরও বেশি সোশ্যাল সাইন্স বিষয়ক পেপারের ফুল টেক্সট ভার্সন। একইসাথে খ্যাতনামা রিসার্চারদের সাথে নিজেদের আইডিয়া শেয়ারের দারুণ সুযোগ তো থাকছেই।

উল্লেখ্য, এই সাইটটিতে পেপার ও আর্টিকেলে এক্সেসের জন্য সবার আগে রেজিস্ট্রেশন করে নেয়া বাধ্যতামূলক। সম্পূর্ণ বিনামূল্যেই আপনি রেজিস্ট্রেশন করে পরবর্তীতে শুধুমাত্র লগ ইনের মাধ্যমেই আপনার কাঙ্ক্ষিত আর্টিকেলটি পেয়ে যেতে পারেন।

৪। কোর (CORE)

বিষয়ভিত্তিক রিসার্চ নেটওয়ার্কের পাশাপাশি যারা বহুমাত্রিক রিসার্চ নেটওয়ার্কের সন্ধান করছেন, CORE তাদেরই জন্য। এই ইউজার ফ্রেন্ডলি সাইটটির ব্যবহারকারীদের জন্য থাকছে প্রায় ৬৬ মিলিয়নেরও বেশি ওপেন এক্সেসড আর্টিকেলের সুযোগ।

যদিও বেশিরভাগ আর্টিকেলের লিংক তাদের মূল প্রকাশকের নিজস্ব সাইটে আপলোড করা থাকে, তবুও প্রায় ৫ মিলিয়ন আর্টিকেলের রেকর্ড সরাসরি CORE এ হোস্ট করা হয়।

CORE এ রয়েছে অ্যাডভান্সড সার্চ অপশন, যেখানে আপনি আপনার গবেষণার বিষয়বস্তুর সাথে সংশ্লিষ্ট কীওয়ার্ডের মাধ্যমে সার্চের পাশাপাশি প্রকাশনার ধরণ, সাল, ভাষা, জার্নালের নাম, সংগ্রহশালা বা repository, গবেষকদের নাম সিলেক্টের মাধ্যমে রেজাল্ট ফিল্টার করতে পারবেন।

এছাড়াও আপনার কাঙ্ক্ষিত পেপারটির সাথে থাকছে এর সাথে সংশ্লিষ্ট বিষয়ভিত্তিক আরো আর্টিকেলের সাজেশন লিংকও, যা আপনার গবেষণায় সাহায্য করতে পারে।

৫। ডিরেক্টরি অফ ওপেন এক্সেসড জার্নালস (Directory of Open Access Journals)

এটিও একটি বহুমাত্রিক এবং কমিউনিটি বেজড ডিরেক্টরি, যেখানে উচ্চমানের peer-reviewed জার্নালের সন্ধান আপনি পেতে পারেন।

আরো পড়ুন:  ওয়েবসাইট তৈরি করতে কি কি লাগে, খরচ কত হবে? (এ টু জেড)

যারা peer-reviewed টার্মটির অর্থ জানেন না, তাদের জন্য বলছি, যেকোন গবেষকের আর্টিকেলের peer-review করার অর্থ হলো সেই গবেষকের যেকোন স্কলারলি আর্টিকেল বা গবেষণালুব্ধ ফলাফলের মূল্যায়ন করা।

উল্লেখ্য, কেবলমাত্র সেই গবেষকের সাথে সংশ্লিষ্ট ফি=ল্ডের অন্যান্য গবেষকরাই peer-review করতে সক্ষম।

যাইহোক, এই আর্কাইভটি আপনাকে বিশ্ববিখ্যাত ৯৫১৯ টি জার্নালের প্রায় ২ মিলিয়ন আর্টিকেলের ফ্রি এক্সেস দিতে সক্ষম।

এই জার্নালগুলো বিজ্ঞান থেকে শুরু করে আইন, এমনকি ফাইন আর্টসের বিভিন্ন টপিকের ওপর হতে পারে। সার্চ অপশনে কী-ওয়ার্ডের পাশাপাশি আপনার নির্ধারিত বিষয়টি লিখার মাধ্যমেও আপনার মনমতো আর্টিকেলের সন্ধান আপনি পেতে পারেন।

২০০৩ সালে চালু হওয়া এই সাইটটির মূল উদ্দেশ্যই ছিলো ওপেন এক্সেসড আর্টিকেলগুলোর মাধ্যমে বিশ্বের শত শত মেধাবী ও জ্ঞানপিপাসু শিক্ষার্থী এবং গবেষকদের জন্য একটি বহুমাত্রিক প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা।

৬। বিলেফেল্ড একাডেমিক সার্চ ইঞ্জিন (Bielefeld Academic Search Engine)

জার্মানির প্রখ্যাত Bielefeld University Library দ্বারা পরিচালিত এই সার্চ ইঞ্জিনটিতে আপনি প্রায় চার হাজারেরও বেশি সোর্স থেকে ১০০ মিলিয়নেরও বেশি রিসার্চ ডকুমেন্ট খুঁজে পাবেন।

এই সার্চ ইঞ্জিনের সব ডকুমেন্ট ওপেন এক্সেসড না হলেও অন্তত ৬০ শতাংশের মতো রিসার্চ আর্টিকেল ও পেপারের ওপেন এক্সেসের সুযোগ আপনি পাবেন।

৭। বায়োমেড সেন্ট্রাল (BioMed Central)

জনপ্রিয় এই সাইটটিতে বায়োলজি, ক্লিনিক্যাল মেডিসিন, স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রায় ৩০০ টিরও বেশি peer-reviewed জার্নালের রিসার্চ ডকুমেন্টের খোঁজ আপনি পাবেন।

১৯৯৯ সালে প্রতিষ্ঠিত এই অনলাইন পোর্টফোলিওটি Springer Nature নামক বিখ্যাত গ্লোবাল পাবলিশার্সের একটি অংশ, যার মূল লক্ষ্য বিশ্বজুড়ে সকল উদীয়মান গবেষক এবং মেধাবী শিক্ষার্থীদের একটি শিক্ষণীয় প্ল্যাটফর্মের অন্তর্ভুক্ত করা।

৮। পাবমেড (PubMed)

এই সাইটটি শুধুমাত্র বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ও মেডিসিন সংক্রান্ত রিসার্চের একটি জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্মই নয়, বরং আমেরিকার বায়োটেকনোলজির যেকোন তথ্য ও রিসার্চভিত্তিক একটি জাতীয় সংস্থাও।

সুতরাং যারা ফার্মেসি কিংবা বায়োটেকনোলজির বিষয়ভিত্তিক গবেষণায় আগ্রহী, তাদের জন্য এই সাইটটি একটি সোনায় সোহাগা।

উল্লেখ্য, এই সাইটটিতে মেডিসিন, লাইফ সাইন্স বিষয়ক ২০ মিলিয়নেরও বেশি রিসার্চ পেপার ও গুরুত্বপূর্ণ বইসমূহের সাইটেশন আপনি পাবেন।

কিছু রিসোর্সে এক্সেসের পেছনে পে-ওয়ালের বাধা থাকলেও আপনি “ফ্রি ফুল টেক্সট” অপশন সিলেক্টের মাধ্যমে আপনার রেজাল্ট ফিল্টার করে নিতে পারেন। এতে করে কাঙ্ক্ষিত আর্টিকেলটির ফ্রি ভার্সন এক্সেস করা আপনার জন্য সহজ হবে।

আরো পড়ুন:  ওয়েবসাইট কি, ওয়েবসাইট তৈরি করে আয় করার উপায়

এছাড়াও এই সাইটের অন্তর্ভুক্ত PubMed Central এবং Europe PubMed Central নামক সাইট দুটিতেও আপনি বেশকিছু আর্টিকেলের ফুল ভার্সন বিনামূল্যে এক্সেস করতে পারবেন।

৯। ডিবিএলপি কম্পিউটার সাইন্স বিবলিওগ্রাফি (dblp Computer Science Bibliography)

এই সাইটটি কম্পিউটার সাইন্স বিষয়ক যেকোনো আর্টিকেল বা পেপারের একটি নির্ভরযোগ্য অনলাইন ইনডেক্স হিসেবে পরিচিত।

জার্মানির বিখ্যাত University of Trier দ্বারা ১৯৯৩ সালে চালু হওয়া এই অনলাইন ইনডেক্সে আপনি ৩ মিলিয়নেরও বেশি রিসার্চ ডকুমেন্ট এক্সেস করতে পারবেন, পে-ওয়াল কিংবা সম্পূর্ণ নিখরচায়।

১০। ড্রাইএড (Dryad)

এই সাইটটিকে বৈজ্ঞানিক গবেষণার একটি ডিজিটাল সংরক্ষণাগার বললেও বোধহয় ভুল হবেনা। নন প্রফিটেবল সংস্থা দ্বারা পরিচালিত এই সাইটে জনস্বাস্থ্য সুরক্ষার পাশাপাশি চিকিৎসাবিজ্ঞানের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের ওপর অনেক নির্ভরযোগ্য ডকুমেন্ট আপনি বিনামূল্যে পেতে পারেন।

তবে হ্যাঁ, নিজের কোন রিসার্চ আর্টিকেল আপলোড বা পাবলিশের ক্ষেত্রে আপনাকে পে করতে হতে পারে।

এই সাইটটিতেও রয়েছে অ্যাডভান্সড সার্চ অপশন, যেখানে আপনি আপনার রিসার্চের বিষয়বস্তুর পাশাপাশি নির্দিষ্ট জিওগ্রাফিক্যাল লোকেশন, জার্নাল ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নাম সিলেক্ট করে রেজাল্ট ফিল্টার করতে পারবেন।

১১। এথোস (EThOS)

ব্রিটিশ লাইব্রেরি কর্তৃক পরিচালিত এই তথ্যবহুল সাইটটি আপনাকে সুযোগ দিচ্ছে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর প্রায় চার লক্ষেরও বেশি ডক্টরাল থিসিসে এক্সেসের সুযোগ।

কিছু থিসিসে এক্সেস করতে হলে যদিও পে ওয়ালের সাহায্য নিতে হবে, তবে আপনার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ওয়েবসাইতের সাহায্যে আপনি সম্পূর্ণ নিখরচায় সেগুলোর খোঁজ পেতে পারেন।

১২। ইকোনবিজ (EconBiz)

অর্থনীতি এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিষয়ক যেকোন রিসার্চ ডকুমেন্টের জন্য এটি বেশ আদর্শ একটি প্ল্যাটফর্ম। Leibniz Information Centre for Economics এর একটি সার্ভিস হিসেবে সুপ্রতিষ্ঠিত এই সাইটটি আপনাকে বেশকিছু ওপেন এক্সেস ম্যাটেরিয়াল অফার করতে সক্ষম।

১৩। ওপেন লাইব্রেরি অফ হিউম্যানিটিস (Open Library of Humanities)

যারা আধুনিক ভাষা ও সাহিত্য বিষয়ে বিভিন্ন রিসার্চ করেন, তাদের জন্য এই সাইটটি একটি সোনার হরিণ। বেশ গোছানো ও তথ্যবহুল এই প্ল্যাটফর্মে রয়েছে জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকা আন্তর্জাতিক মানের বেশকিছু peer-reviewed আর্টিকেল।

শুধু তাই নয়, ধর্মতত্ত্ব, দর্শন, মিডিয়া ও জার্নালিজম এমনকি নৃবিদ্যা বিষয়েও যারা পারদর্শী এবং জানতে আগ্রহী, এই সাইটটি তাদের বেশ উপকারে আসতে পারে। তবে হ্যাঁ, আর্টিকেলগুলোতে এক্সেস করার আগে অবশ্যই একাউন্ট ওপেন করে নেয়া জরুরি।

শেষ কথা

দৈনন্দিন শিক্ষাজীবনে শুধু শিক্ষার্থী কিংবা গবেষকরাই নন, বরং এর বাইরেও আরো অনেক সাধারণ মানুষ আছেন, যারা সার্বিক অর্থে জ্ঞানচর্চায় বেশ কৌতূহলী বা আগ্রহী। ফ্রি অনলাইন জার্নাল সাইটগুলো শিক্ষার্থী বা রিসার্চারদের পাশাপাশি সেসব সর্বস্তরের সাধারণ মানুষদের উপকারে আসতে বাধ্য।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top