অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম | ট্রেনের অগ্রিম টিকেট কাটার সময়

ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম

যাতায়াতের জন্য অনেক আগে থেকেই সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য, সাশ্রয়ী ও নিরাপদ বাহন ট্রেন। তাই, অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম জেনে রাখলে ঘরে বসেই টিকেট কেটে যেকোন সময় ভ্রমণ করতে পারবেন।

কাউন্টার থেকে ট্রেনের টিকেট কাটতে গেলে অনেক বিরক্তিকর ভোগান্তিকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়। সেই সাথে ইদের সময় দীর্ঘ লাইনে ঘন্টার পর ঘন্টা দাড়িয়ে থাকলেও টিকেট পাওয়া যায় না।

অথচ, আপনি চাইলে এখন ঘরে বসে ট্রেনের টিকেট কাটতে পারবেন, এমনকি ৫দিন আগেই অনলাইনে ট্রেনের অগ্রিম টিকেট কেটে রাখা যায়।

আপনাকে যেন আর এমন ভোগান্তিকর পরিস্থিতিতে পড়তে না হয় সেজন্য অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কেনার নিয়ম ২০২২, ট্রেনের টিকেট ছাড়ার সময়, ট্রেনের টিকেট মূল্য এবং সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর নিয়েই আমাদের আজকের আয়োজন।

সূচীপত্র

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার উপায় সমূহ হলো:

  1. রেলওয়ে ওয়েবসাইট
  2. বিকাশ অ্যাপ এবং
  3. রেলসেবা অ্যাপ

১. রেলওয়ে ওয়েবসাইটে অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম

বাংলাদেশ সরকারের রেলওয়ে ওয়েবসাইট থেকে অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার জন্য প্রথমে যে কোন ওয়েব ব্রাউজার থেকে ওয়েবসাইটটি ভিজিট করুন।

তবে ওয়েবসাইটে ট্রেনের টিকেট কাটতে হলে আপনার নিজের তথ্য ও জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে একাউন্ট তৈরি করতে হবে করতে হবে।

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার ধাপ ১: একাউন্ট তৈরি

বাংলাদেশ রেলওয়ে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করলে নিচের মতো একটি পেজ দেখতে পারবেন। একাউন্ট করা থাকলে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম জানতে ১ম ধাপ বাদ দিয়ে সরাসরি ধাপ ২ তে চলে যেতে পারেন।

যদি আপনার একাউন্ট তৈরি করা না থাকে, তাহলে প্রথমে বাংলাদেশ রেলওয়ে সাইটে একাউন্ট তৈরি করার নিয়ম অনুসরণ করে রেজিস্ট্রেশন করে নিন।অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কেনার নিয়ম

1. মোবাইল দিয়ে ব্রাউজ করলে প্রথমে ডান দিকের থ্রি লাইন মেন্যু বাটনে ক্লিক করুন

2. ক্লিক করার পরে এই বিভিন্ন পেজের লিঙ্ক পাবেন, সেখান থেকে register পেজ লিঙ্কটিতে ক্লিক করুন।

কম্পিউটার থেকে ব্রাউজ করলে সরাসরি register পেজ লিঙ্ক দেখতে পারবেন। রেজিস্ট্রেশন বাটনে ক্লিক করার পর নিচের পেজের মতো রেজিস্ট্রেশন পেজ দেখতে পারবেন।

ট্রেনের টিকেট অনলাইন রেজিস্ট্রেশন

ট্রেনের টিকেট কাটার জন্য রেলওয়ে ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম:

  • Full Name : নিজের সম্পূর্ণ নাম লিখুন
  • E-Mail : একটি সক্রিয় ই-মেইল এড্রেস দিন
  • Mobile Number : আপনার মোবাইল নম্বরটি দিন
  • Confirm Mobile : আবার আপনার মোবাইল নম্বরটি দিন
  • Enter Password : একটি পাসওয়ার্ড দিন
  • Confirm Password : পাসওয়ার্ড টি আবার দিন
  • Identification type : জাতীয় পরিচয়পত্র নাম্বার অথবা জন্ম নিবন্ধন সিলেক্ট করুন
  • Identification Number : যেটি সিলেক্ট করেছেন তার নম্বরটি দিন
  • Post Code : আপনার পোস্ট অফিস এর কোডটি দিন। পোস্ট কোড খুঁজে পেতে এখানে ক্লিক করুন
  • Address : আপনার ঠিকানা লিখুন
  • সবকিছু লেখা শেষ হয়ে গেলে Sing Up ক্লিক করুন৷

3. সাইন আপ এ ক্লিক করার পরে আপনাকে একটি মেইল পাঠানো হবে৷

4. মোবাইলে একটি ৬ সংখ্যার একটি ওটিপি কোড পাঠানো হবে, সেটি ব্যবহার করে ভেরিফিকেশন সম্পন্ন করুন। ওটিপি টি বসানোর জন্য আপনাকে তিন মিনিট সময় দেওয়া হবে৷

5. তিন মিনিটের মধ্যে ওটিপি বসিয়ে দিন। ওটিপি বসিয়ে দিয়ে Continue বাটনে ক্লিক করুন।

6. তিন মিনিটের মধ্যে ওটিপি বসাতে না পারলে কিংবা মেইল না গেলে Resend বাটনে ক্লিক করলে আবার মেইলে একটি ওটিপি পাঠানো হবে৷ তখন ওটিপিটি বসিয়ে ভেরিফাই করুন।

7. ভেরিফিকেশন সম্পন্ন হলে অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার জন্য রেলওয়ে সেবা ওয়েবসাইটে আপনার একটি একাউন্ট তৈরি হয়ে যাবে।

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার ধাপ ২ : লগইন করুন

1. মোবাইল থেকে লগ ইন করার জন্য প্রথমে থ্রি লাইন টগল বাটনে ক্লিক করে লগইন পেজ ভিজিট করুন।

2. লগ ইন করার জন্য আপনার ফোন নম্বর ও আপনার পাসওয়ার্ড দিন। তারপর Login বাটনে ক্লিক করুন৷

ট্রেনের টিকেট সংগ্রহ

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার ধাপ ৩ : টিকেট বুক করুন

1.লগ ইন হয়ে গেলে Home বাটনে ক্লিক করে হোমে আসুন৷ হোমে এলে এই পেজটি আপনার সামনে দেখতে পাবেন৷অনলাইনে ট্রেনের টিকেট বাছাই

ট্রেনের টিকেট কাটার জন্য রেলওয়ে ওয়েবসাইটের হোমপেজে যা যা করতে হবে:

  • From: যে জায়গা থেকে ট্রেনে উঠতে চান সেটি দিন
  • To: যে জায়গায় যেতে চান সেটি সিলেক্ট করুন
  • Date of Journey: কোন তারিখে যেতে চান সেটি বসান
  • Choose Class: আপনার সিটের ধরন সিলেক্ট করুন
  • সবগুলো সিলেক্ট করা হয়ে গেলে Find Ticket বাটনে ক্লিক করুন৷

3. আপনার স্টেশন থেকে যদি একাধিক ট্রেন যায় তবে, পরবর্তী পেজে কোন ট্রেনে যাত্রা করতে চান, সেটা নির্বাচন করুন।

4. ট্রেন বাছাই করার পর অ্যাভাইলেবল সিট সাপেক্ষে BOOK NOW বাটনে ক্লিক করুন।

5. Book Now বাটনে ক্লিক করার পর ট্রেনের বিভিন্ন বগিতে কতগুলো সিট আছে সেটি দেখতে পারবন।

6. ট্রেনের বগি এবং সিট নাম্বার বাছাই করে নির্দিষ্ট আসনের উপর ক্লিক করুন।  সর্বোচ্চ ৪ টি সিট বাছাই করতে পারবেন।

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট বুকিং দেওয়া

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার ধাপ ৪ : পেমেন্ট করুন

1. সিট সিলেক্ট করা হয়ে গেলে Purchase ticket এ ক্লিক করুন

2. Purchase Ticket এ ক্লিক করার পরে আপনাকে পেমেন্ট পেজে নিয়ে যাওয়া হবে।

3. এক (০১) এর অধিক সিট নিতে হলে আপনাকে দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ ব্যক্তির নাম লিখে প্যাসেঞ্জার টাইপ (এডাল্ট/শিশু) সিলেক্ট করতে হবে

4. একটু স্ক্রল করে নিচে আসুন এবং পেমেন্ট মেথড বাছাই করে Confirm Purchase বাটনে ক্লিক করুন

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার জন্য পেমেন্ট মেথড সমূহ:

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার ধাপ ৫ : টিকেট প্রিন্ট করুন

1. সফলভাবে টাকা দিয়ে দেওয়ার সাথে সাথে আপনার জন্য টিকেট এর এক কপি তারা আপনার ই-মেইলে পাঠিয়ে দেবে।

2. ই-মেইল এর ইনবক্স ফোল্ডারে আপনার কাঙ্খিত মেইল টি পেয়ে যাবেন। ইনবক্স ফোল্ডারে না পেলে স্প্যাম বক্স চেক করুন সেখানে পেয়ে যাবেন।

3. টিকেট টি A4 কাগজে প্রিন্ট করে নিন।

২. বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম

এখন বিকাশ অ্যাপ থেকেও ট্রেনের টিকেট কাটা যায়। বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকেট কাটতে:

  • প্রথমে একটি বিকাশ অ্যাপটি ডাউনলোড করুন
  • আগে আপনার বিকাশ একাউন্ট খোলা না থাকলে একাউন্ট খুলুন। থাকলে লগ ইন করুন
  • লগইন করার পর সাজেশসন সেকশন খুঁজে বের করুন
  • See All বাটনে ক্লিক করুন
  • Bangladesh Railway লোগো সম্বলিত লিঙ্ক ভিজিট করুন

বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম

Bangladesh Railway তে ক্লিক করলে আপনাকে eticket.railway.gov.bd ওয়েবসাইটেই নিয়ে যাওয়া হবে।

সুতরাং, রেলওয়ে ওয়েবসাইট থেকে অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম এ আমরা যে পদ্ধতি দেখিয়েছি, সেই একই উপায়ে এখান থেকেও অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটতে পারবেন।

৩. মোবাইলে ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম

মোবাইলে ট্রেনের টিকেট কাটার জন্য যেকোন ভাল ব্রাউজার (গুগল ক্রোম, ফায়ারফক্স, সাফারি) ব্যবহার করে রেলওয়ে ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

বর্তমানে স্মার্টফোন দিয়ে কম্পিউটারের সকল কাজ প্রায় একই নিয়মে করা যায়। তাই, ওয়েবসাইটটি ভিজিট করার পর রেলওয়ে ওয়েবসাইটে অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম অনুসরণ করেই অগ্রিম টিকেট কাটতে পারবেন।

৪. অ্যাপের মাধ্যমে ট্রেনের টিকেট কেনার নিয়ম

আপনি যদি ওয়েবসাইটের চেয়ে অ্যাপ দিয়ে টিকেট কাটতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন তাহলে প্রথমে গুগল প্লেস্টোর থেকে Rail Sheba অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিন।

অ্যাপ ইনস্টল করার পর একাউন্ট করা না থাকলে উপরে উল্লিখত পদ্ধতি অনুসরণ করে একাউন্ট তৈরি করুন। একাউন্ট থেকে থাকলে লগইন করুন।

এবার অ্যাপে প্রবেশ করুন এবং ওয়েবসাইটে অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার যে নিয়ম আমরা দেখিয়েছি, একই পদ্ধতি অনুসরণ করে অ্যাপ দিয়ে অনলাইনে অগ্রিম টিকেট কিনতে পারবেন।

বি.দ্র! বর্তমানে সহজ ডট কম অ্যাপটির নতুন আপডেট ভার্সন নিয়ে এসেছে, এরপর থেকে গ্রাহকরা আগের মতো অ্যাপ দিয়ে ট্রেনের টিকেট কাটায় স্বাচ্ছন্দ্য পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ রয়েছে।

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট ভেরিফাই করার নিয়ম

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার পর তা ভেরিফাই করে নেওয়া জরুরী। অনলাইনে কেনা ট্রেনের অগ্রিম টিকেট চেক করার জন্য

1. eticket.railway.gov.bd ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

2. আপনার মোবাইল নাম্বার এবং টিকেটের নাম্বার অথবা PNR নাম্বার ইনপুট দিন।

3. এবার VERIFY TICKET বাটনে ক্লিক করুন।

টিকেট ভেরিফাই হয়ে গেলে আপনার টিকেট টি ভেরিফাইড দেখাবে এবং কোন জায়গা থেকে কোন জায়গায় যাওয়ার জন্য ট্রেনের টিকেট কেটেছেন, সেটিও দেখাবে৷অনলাইন ট্রেনের টিকেট ভেরিফাই করার নিয়ম

ট্রেনের টিকেট বাতিল করার নিয়ম

অনলাইনে ট্রেনের অগ্রিম টিকেট কাটার পর কোন কারণে তা বাতিল করার প্রয়োজন হলে আপনাকে নিকটস্থ রেলওয়ে স্টেশন কাউন্টারে যেতে হবে৷ কেননা, অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কেনার পদ্ধতি আসলেও এখনো অনলাইনে ট্রেনের টিকেট বাতিল করার নিয়ম বাংলাদেশ রেলওয়ে নিয়ে আসেনি।

ট্রেনের টিকেট বাতিল করা হলে আপনাকে অবশ্যই কিছু চার্জ দিতে হবে, যা যাত্রা শুরুর কত সময় পূর্বে টিকেট বাতিল করছেন তার উপর নির্ভর করছে। চলুন ট্রেনের টিকেট বাতিল করার চার্জ কত তা দেখে নেওয়া যাক।

ট্রেনের টিকেট বাতিলের সময়

চার্জ

যাত্রা শুরুর ৪৮ ঘন্টা বা তার বেশি সময় পূর্বে

এসি - ৪০ টাকা

ফার্স্ট ক্লাস - ৩০  টাকা

অন্যান্য - ২৫ টাকা

যাত্রা শুরুর ২৪-৪৮ ঘন্টা সময় পূর্বে

টিকেট মূল্যের ২৫%

যাত্রা শুরুর ১২-২৪ ঘন্টা সময় পূর্বে

টিকেট মূল্যের ৫০%

যাত্রা শুরুর ৬-১২ ঘন্টার সময় পূর্বে

টিকেট মূল্যের ৭৫%

যাত্রা শুরুর ০-৬ ঘন্টা পূর্বে

অফেরৎ যোগ্য

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার সময়

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট বুকিং সময় হলো সকাল ৮.০ টা থেকে রাত ১১.০০ টা মিনিট পর্যন্ত। তবে, রাত ১১.৪৫ মিনিট পর্যন্ত বুকিং করা ট্রেনের টিকেট কাটতে পারবেন। ১১.৪৫ টা থেকে সকাল ৮.০ টা পর্যন্ত অনলাইনে ট্রেনের টিকেট বিক্রি বন্ধ থাকে।

তবে এই সময়ে আপনি চাইলে রেল স্টেশন থেকে টিকেট কাটতে পারবেন।

অনলাইনে বর্তমানে ৫দিন পরে যাত্রার জন্য অগ্রিম টিকেট কাটা যায়। অর্থাৎ, কেউ যদি ২০ তারিখ ভ্রমণ করতে চায়, তাহলে তিনি ১৬ তারিখেই ২০ তারিখের টিকেট অনলাইন থেকে কেটে রাখতে পারবেন।

ট্রেনের টিকেট মূল্য

বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকেট মূল্য (ময়মনসিংহ টু চট্রগ্রাম)

সিট ক্যাটেগরি

টিকেট মূল্য

শোভন

২৮৫ টাকা

শোভন চেয়ার

৩৪৫ টাকা

ফার্স্ট ক্লাস সিট

৪৬০ টাকা

ফার্স্ট ক্লাস ১ম বার্থ

৬৮৫ টাকা

এসি সিট

৭৮৮ টাকা

রাজশাহী টু ঢাকা ট্রেনের টিকেট মূল্য

সিট ক্যাটেগরি

টিকেট মূল্য

শোভন চেয়ার

৩৭৫ টাকা

স্নিগ্ধা

৬৩০ টাকা

এসি সিট

৭৫২ টাকা

ঢাকা টু সিলেট ট্রেনের টিকেট মূল্য

সিট ক্যাটেগরি

টিকেট মূল্য

শোভন

২৬৫ টাকা

শোভন চেয়ার

৩২০ টাকা

ফার্স্ট ক্লাস সিট

৪২৫ টাকা

ফার্স্ট ক্লাস ১ম বার্থ

৬৪০ টাকা

এসি সিট

৭৩৬ টাকা

ঢাকা টু চট্রগ্রাম ট্রেনের টিকেট মূল্য

সিট ক্যাটেগরি

টিকেট মূল্য

শোভন

২৮৫ টাকা

শোভন চেয়ার

৩৪৫ টাকা

ফার্স্ট ক্লাস সিট

৪৬০ টাকা

ফার্স্ট ক্লাস ১ম বার্থ

৬৮৫ টাকা

এসি সিট

৭৮৮ টাকা

অনলাইনে টিকেট কেনার জন্য টিকেট প্রতি আপনাকে অতিরিক্ত ২০ টাকা চার্জ দিতে হবে।

অন্যান্য স্টেশন থেকে ট্রেনের টিকেট মূল্য জানতে তালিকাটি দেখে নিতে পারেন।

FAQ: অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম নিয়ে প্রায়শই জিজ্ঞেসিত প্রশ্নসমূহ

Loader image

কেবিন ভাড়া করতে চাইলে যেখানে যাত্রীদের বসার সিটের ধরন সিলেক্ট করবেন সেখানে ' AC_B ' সিলেক্ট করুন।

না। অন্য যেকোন ফোন ব্যবহার করেও পেমেন্ট করতে পারেন।

একটি একাউন্ট থেকে একটি ট্রেনের জন্য আপনি সর্বাধিক ৪ টি টিকেট কিনতে পারবেন। সপ্তাহে দুইবারে সর্বোচ্চ ৮টি টিকেট কাটতে পারবেন এবং একমাসে সর্বোচ্চ ৩২ টি ট্রেনের টিকেট কাটা যাবে।

বেশিরভাগ সময় কোন সমস্যা হয় না। তবে, কোন ঝামেলায় পড়তে না চাইলে অনলাইন কপি টি নিয়ে এসে ট্রেনের টিকেট কাউন্টারে থেকে টিকেটটি সংগ্রহ করে নিন।

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম নিয়ে শেষ কথা

সময় ও শ্রম বাঁচানোর জন্য টিকেট কাউন্টারে গিয়ে টিকেট কাটার চেয়ে অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার কোন বিকল্প নেই৷

আশা করি, অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম নিয়ে লেখা এই টিউটোরিয়াল পড়ার পর আপনার ট্রেন জার্নি আরো বেশি স্বাচ্ছ্যন্দের হবে।

Leave a Comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।