মোবাইল ফটোগ্রাফি করে আয় করার কথা শুনে কি অবাক লাগছে? কিন্তু এটাই বাস্তব যে আপনার গ্যালারি তে হাজার হাজার ডলার হয়তো রেখে দিয়েছেন, কিন্তু আপনি হয়তো জানেনই না! হাতের মোবাইলের ক্যামেরা আপনাকে এনে দিতে পারে হাজার হাজার ডলার। মোবাইলের ক্যামেরা উন্নত হওয়ার স্টক ফটো সাইটগুলোতে মোবাইল ফটোগ্রাফি করে আয় করার পথ তৈরি হয়েছে।

ক্যামেরা নেই বলে যদি মনে করে থাকেন ছবি তুলে আয় করা সম্ভব নয়, তাহলে আপনার ধারণা আজ পরিবর্তন করতে আজ আমরা মোবাইল ফটোগ্রাফি করে আয় করার সাইট ও অ্যাপ নিয়ে কথা বলবো।

মোবাইলে ফটোগ্রাফি করে যেভাবে আয় করবেন

আপনি আপনার মোবাইল দিয়ে যে ছবিগুলো প্রতিদিন শখের বসে উঠান এবং যত্ন  করে গ্যালারিতে রেখে দিচ্ছেন, সেগুলোই যদি আপনি একটি সাইটে আপলোড দিয়ে রাখেন, তবে সেই ছবি বিক্রি  হতে পারে ১০-৫০০  ডলার কিংবা তারচেয়েও বেশি দামে। এজন্য আপনি বিভিন্ন সাইট সার্চ করলে খুজে পাবেন, কিন্তু আমি আপনাকে  বলবো Foap এর কথা।

মোবাইল ফটোগ্রাফি করে আয় করার-সাইট

ওয়েবসাইট  এবং অ্যাপস দুটি ভার্সনেই কাজ  করতে  পারবেন  তবে যদি  আপনি অ্যাপস ডাউনলোড করে নেন, তাহলে সহজে  ছবি  আপলোড করতে পারবেন,  তাছাড়া আপনার  ছবি বিক্রির সম্ভাবনাও বেড়ে যাবে। কেননা, ছবিটা আপনি  সুন্দরভাবে  উপস্থাপনের সুযোগ  পাবেন অ্যাপসের মাধ্যমে।

১) প্রতিযোগিতায় ছবি দিয়ে

এখানে আপনার ছবি বিক্রি এবং বেশি দাম পাওয়ার  সম্ভাবণা সবচেয়ে বেশি। কারণ, এখানে  আপনি ছবি  পোস্ট করলে আপনি যদি Foap এ নতুন হন  কিংবা আপনার প্রোফাইল রেটিং ভাল নাও  হয়, তবুও সকল ক্রেতা আপনার ছবি দেখবে।

কেননা সকল বিক্রেতা এবং ক্রেতার ই এই প্রতিযোগিতায় নজর থাকে সবচেয়ে বেশি।

২) নিজের ছবি আপলোড না করেই আয়

হ্যা এটাই Foap কে রেফার করার অন্যতম কারণ। আপনি এখানে কোন ছবি আপলোড না করেও  টাকা আয়  করতে পারেন। আপনি যদি Foap এ থাকা ছবি দিয়ে একটা  গ্যালারি তৈরি করেন, এবং সেই গ্যালারির কোন ছবি বিক্রি হয় তবে আপনি পাবেন বিক্রয় মূল্যের  ২৫%।

সুন্দর সুন্দর চাহিদা সম্পন্ন ছবি দিয়ে তাই  আপনি ভাল মানের গ্যালারি করে টাকা আয় করতে পারবেন বিনা পরিশ্রমে। সান-সেট,সান-রাইজ, সী-বিচ  এসবই হট কেক ছবির জগতে। আরো ভাল খবর হচ্ছে আপনি যতখুশি ততগুলো গ্যালারি তৈরি করতে পারবেন, নো লিমিট।

প্রতিযোগিতায় অংশ নিব কিভাবে?

এই সাইটে দুই ধরনের প্রতিযোগিতা থাকে, একটি উম্মুক্ত অন্যটি প্রিমিয়াম। উম্মুক্ত প্রতিযোগিতায় আপনি যতখুশি প্রতিযোগিতা রিলেটেড ছবি আপলোড দিতে পারবেন কোন খরচ ছাড়াই। প্রায় ৬ থেকে ৮টি প্রতিযোগিতা থাকে।

প্রিমিয়াম প্রতিযোগিতায় আপনাকে অংশ নিতে হলে ফোপ কয়েন খরচ করতে হবে। ভয়  নেই, টাকা দিয়ে কিনতে না চাইলে আপনি ১৫ এবং ৩০ সেকেন্ড এর অ্যাড দেখে কয়েন আয় করতেপারবেন ।

প্রোফাইল ভ্যালু বাড়ানোর উপায়

আপনার প্রোফাইল ভ্যালু যত বেশি হবে, আপনার ছবি বিক্রির সম্ভাবণা এবং দাম ততোবেশি হবে ।  কেননা প্রোফাইল ভ্যালু বেশি হলে আপনার ছবি আরো বেশি ক্রেতার চোখে পড়বে।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে কিভাবে  বাড়াবেন আপনার প্রোফাইল ভ্যালু?

আপনি প্রতিমাসে ২০০ ছবিতে যদি রিভিউ দেন,  তবে আপনার উপস্থিতি  সম্পর্কে  এই  ২০ জন ব্যাক্তি টের পাবে, তারা আপনার ছবি রিভিউ করবে।

যখন এভাবে আপনার প্রোফাইল রেটিং বাড়বে তখন আপনি ছবি আপলোড করলেই  সকলের প্রোফাইলে দেখাবে এবং ক্রেতাদের মনোযোগ আকৃষ্ট করবে।

মোবাইল ফটোগ্রাফি বিষয়ে পরিশেষ

আশা করি সবকিছু বুঝতে পেরেছেন? Foap অ্যাপ ডাউনলোড করে সাইন ইন করুন। ছবি তুলুন আর মোবাইল ফটোগ্রাফি করে আয় করুন।

সবার প্রতি শুভ কামনা, কোন সমস্যায় পরলে অবশ্যই  আমাকে স্মরণ  করতে ভুলবেন না। এখন একটা প্রশ্ন, শখের ফটোগ্রাফার কে আছেন? একটু কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না কিন্তু।


Abdullah

বর্তমানে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদে অধ্যয়নরত। জানার আগ্রহ থেকে whyorwhen এবং Pratiborton এ লেখালেখি করি।

4 Comments

Abdullah · সেপ্টেম্বর 4, 2020 at 8:35 পূর্বাহ্ন

আপনি 5MB সাইজ পর্যন্ত আপলোড করতে পারবেন।

Unknown · সেপ্টেম্বর 3, 2020 at 5:27 অপরাহ্ন

D-SLR এ তোলা ছবি আপলোড করা যাবে ? ছবির রেস্যুলেসন কি হবে ?

Abdullah · আগস্ট 16, 2020 at 8:24 অপরাহ্ন

Kaje lege jaaan

Zishan · আগস্ট 14, 2020 at 5:53 অপরাহ্ন

আমি আছি শখের ফোটোগ্রাফার

মন্তব্য করুন

Avatar placeholder

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

thirteen − 2 =

error: Content is protected !!