গুগল এডমব থেকে ইনকাম করার উপায় ( Google admob থেকে আয় )

গুগল এডমব থেকে ইনকাম করার উপায়

গুগল এডমব থেকে ইনকাম করার উপায়; ডিজিটালাইজেশনের এই যুগে মানুষ অনলাইন থেকে আয় করার দিকে বেশি ঝুঁকে পরছেন। অনেকেই জানেন গুগল থেকে বিভিন্নভাবে আয় করা যায়। কিন্তু কিভাবে গুগল থেকে টাকা আয় করা যায় সে সম্পর্কে অনেকের ধারনা নেই। অ্যাপস ডেভেলপাররা কিভাবে আয় করে জানতে চান! আপনার ব্যবহৃত মোবাইল অ্যাপসগুলোয় বিজ্ঞাপন নিশ্চয়ই দেখেন। Google admob থেকে আসা বিজ্ঞাপন দেখিয়েই তারা আয় করেন।

স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে কর্মজীবী কিংবা যে যে পেশায়ই জড়িত, তার পাশাপাশি অনলাইনের মাধ্যমে আয় করাটাকে নিজের জীবনের সাথে যুক্ত করে নিচ্ছেন অনেকেই।

বর্তমানে এন্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করেন না এমন মানুষের সংখ্যা লাখে একজনও হবে কি না সন্দেহ আছে। আর এই এন্ড্রয়েড ফোন দিয়ে “গুগল প্লে স্টোর” থেকে প্রতিনিয়ত ডাউনলোড করা হচ্ছে কত-শত অ্যাপস।

আর এই এপস গুলো ইনস্টল করার পর অ্যাপসের ভেতর ঢুকতে না ঢুকতেই ফোনের স্ক্রিনে ভেসে উঠে বিজ্ঞাপন। মূলত গুগল এডমবের দ্বারাই এই কাজটা করে বর্তমানে অ্যাপস দিয়ে অনেকে আয় করছেন।

অনলাইন থেকে আয় করার অনেক উপায় রয়েছে। তারই একটা জনপ্রিয় উপায় হল “গুগল এডমব (Google admob)”। মোবাইলে অ্যাপসের মধ্যে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে গুগল এডমব থেকে ইনকাম করা যায় খুব সহজেই।

তবে অনেকেই এ বিষয়ে সঠিক তথ্য না জেনে কাজ শুরু করে দেন। ফলস্বরূপ মাঝপথে দিশা হারিয়ে হতাশায় ডুব দেন।

আপনিও কি গুগল এডমবের মাধ্যমে আয় করার চিন্তা করছেন? কিন্তু জানেন না ঠিক কিভাবে গুগল এডমব থেকে আয় করা যায়?

তাহলে এই আর্টিকেলটা আপনার জন্যই। চলুন দেরি না করে এখনই জেনে নেয়া যাক Google admob থেকে ইনকাম করার উপায়। 

গুগল এডমব কী (What is Google AdMobe in Bangla?) 

AdMob হচ্ছে গুগলের একটি product বা service যার মাধ্যমে ” iOS” কিংবা “android ” মোবাইলের এপস গুলোতে বিজ্ঞাপন (Advertisements) প্রদর্শন করে ইনকাম করা যায়। 

মূলত Admob হচ্ছে গুগলের একটি “Mobile advertisement platform”।

সহজ ভাষায় বলতে গেলে,আমরা যখন Google Play Store থেকে কোনো অ্যাপস ডাউনলোড করে,ইনস্টোল করে ব্যবহার করতে যাই, তখন ফোনের স্কিনে যে ad গুলো প্রদর্শিত হয় সেগুলো মূলত গুগল এডমব দিয়ে করা হয়। আর এই এপস যত বেশি সংখ্যক মানুষ ডাউনলোড করে ওপেন করবেন ঠিক ততো বেশি ইনকাম হবে।

এডমবে দুই ধরনের এড সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। ব্যানার এড এবং ইন্টারেস্টিশিয়াল এড বেশি দৃষ্টি আকর্ষণ করে সকলের। ব্যানার ads application এর স্কিনেই দেখা যায়, যার সাইজগুলো সাধারণত  ৩২০ বাই ৫০ পিক্সেল হয়ে থাকে।

অপরদিকে অ্যাপসের এক পেইজ পরিবর্তন করলে কিংবা এপস থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় ইন্টারেস্টিশিয়াল ads পুরো স্কিন জুড়ে প্রদর্শিত হয়।ডিভাইস  ভেদে এর সাইজ বিভিন্ন হয়ে থাকে।

গুগল এডমব থেকে আয় করার উপায়

গুগল এডমব থেকে আয় করা খুব সহজ এবং বর্তমানে এটি খুব জনপ্রিয় এবং লাভজনক ব্যবসা। কিছু Steps  অনুসরণ করে খুব সহজেই আয় করা যায় এই গুগল এডমব থেকে।তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক গুগল এডমব থেকে আয় করার উপায়গুলো;

Google AdMob থেকে আয় করার ধাপসমূহ

admob থেকে ইনকাম

1.Mobile Application

গুগল এডমব থেকে আয় করতে চাইলে প্রথমেই আপনার দরকার পরবে একটি mobile application বা apps এর। mobile application তৈরির কথা শুনে ভয় পেয়ে গেলেন নাকি?

ভয় পাওয়ার কিছুই নেই। এর জন্য আপনাকে প্রথমেই mobile application টা কোন বিষয়ের উপর বানাবেন সেটা ভেবে নিবেন।

এরপর একজন ভালো ডেভেলপারের কাছে গিয়ে আপনি আপনার “mobile application ” নিয়ে যে আইডিয়াটা ভেবেছেন সেটা বলবেন।উনিই আপনাকে apps টা বানিয়ে দিবেন।

আর আপনার নিজেরই যদি apps বানানোর দক্ষতা থাকে,তাহলে তো হয়েই গেলো।নিজ দক্ষতা দিয়েই বানিয়ে নিবেন সুন্দর একটা অ্যাপস।

এছাড়াও কিছু ওয়েবসাইটের মাধ্যমে কোনো ধরনের কোডিং নলেজ ছাড়াই আপনি এপস তৈরি করতে পারবেন। তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক তাদের সম্পর্কে। 

নিজেই”Android apps”  তৈরি করার কিছু ওয়েবসাইট 
  • www.appsgeyser.com
  • www.andromo.com
  • www.mobincube.com
  • www.appyet.com
  • www.thunkable.com

উপরের পাঁচটি development website ব্যবহার করে কোনো ধরনের কোডিং (coding) skill বা knowledge ছাড়াই ফ্রিতে  “android application ” তৈরি করতে পারবেন।

২. Admob account

অ্যাপস তৈরির পর আপনার apps এর মধ্যে বিজ্ঞাপন(ads) প্রদর্শন করানোর জন্য আপনার প্রয়োজন পরবে একটি “admob account” এর।

এখন প্রশ্ন হলো এই এডমব একাউন্ট কি করে তৈরি করবেন? খুবই সহজ। আপনি Google AdMob এ গিয়ে আপনার যেকোনো Google account অথবা Gmail account দিয়ে খুব সহজেই Signup করে নিতে পারবেন এডমবে।

3. Add your first apps

এডমবে একাউন্ট খোলার পর dashboard  এর বাম পাশে “Apps” নামে একটি অপশন দেখতে পারবেন। এই অপশনটিতে ক্লিক করার পর আপনি “add your first apps” নামে আরেকটি অপশন পাবেন। এই অপশনটি ক্লিক করে আপনি আপনার apps টি এডমবে জমা করে দিবেন।

4. Create add unit

এডমবে আপনার এপসটি জমা করার পর “create ad unit” নামে একটি অপশন আসবে।

এই “Create ad unit option” এর মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন ধরনের ad যেমন,”banner”,”Interstitial”, “Rewarded”,”Native advanced”  ইত্যাদি বিজ্ঞাপন তৈরি করে আপনার application  এর সাথে যুক্ত করতে পারবেন।

Google Admob থেকে আয় হবে যেভাবে

আপনার কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। এখন আপনার অ্যাপস ( apps) কেউ ডাউনলোড করে ইনস্টল করে ব্যবহার করলেই এই এডমব তার ফোনের স্কিনে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করাবে। আর এইভাবেই এডমবের দ্বারা এপসের মধ্যে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে আয় করতে পারবেন আপনি।

আপনার Admob account  এ মিনিমাম $100  আয় হয়ে গেলে আপনার account এ নিজে নিজেই টাকা পাঠিয়ে দেয়া হবে।

যতো বেশি সংখ্যক মানুষ আপনার অ্যাপস download করে ইনস্টল করে ব্যবহার করবে আপনার ইনকাম ও ততো বেশি হবে।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে এতো বেশি সংখ্যক user কোথায় পাওয়া যাবে?কিংবা কি করেই বা  user  রা আপনার অ্যাপস টি খুঁজে পাবে?

বর্তমানে “Google play store” বিভিন্ন apps ডাউনলোড করার একটা জনপ্রিয় প্লাটফর্ম। যে কারো কোনো এপসের প্রয়োজন পরলে প্রথমেই সে Google play store  এর search  বাটনে চলে যায়।

তাই এই গুগল প্লে স্টোর হতে পারে আপনার এপসটা সবার মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার মাধ্যম। এজন্য আপনাকে আপনার অ্যাপসটি গুগল প্লে স্টোরে জমা দিতে হবে। প্রশ্ন আসতে পারে, আমি আমার অ্যাপস কি করে Google play store  এ জমা দিবো? তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক এ বিষয়ে।

Google play store  এ application  জমা দেয়ার উপায়

এমনিতে আপনি Android  এর যেকোনো application  খুব সহজেই জমা দিতে পারবেন googly play store এ।

তবে এক্ষেত্রে কিছু বিশেষ বিষয় জেনে রাখতে হবে আপনাকে।

১. এর জন্য প্রথমেই আপনাকে একটি ” Google play console account ”  তৈরি করতে হবে।

আপনার যেকোনো Google account  কিংবা Gmail account  ব্যবহার করে খুব সহজেই signup  করতে পারবেন।

২. এ পর্যায়ে আপনার “android application ” টি কে গুগল প্লে স্টোরে জমা দিতে $25 fee প্রদান করতে হবে আপনাকে।

৩. যখন আপনার apps টি Google play store  থেকে ১০০০ ইউজার(user) দ্বারা ডাউনলোড করা হয়ে যাবে তখন আপনি Google Admob এ গিয়ে একটি publisher account  তৈরি করতে পারেন।

৪. আপনার অ্যাপসটি ১০০০ জন users কতৃক ডাউনলোড হলে admob  এপ্রুভাল দিয়ে দিবে।

এরপর আপনি admob account দিয়ে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন তৈরি করে ads এর কোড গুলো application  এ যুক্ত করে দিবেন।

এখন যখনই কেউ Google play store  থেকে আপনার অ্যাপসটি Download  করে ব্যবহার করতে যাবে, তখন admob তাদের ফোনের apps টিতে ads  দেখিয়ে দিবে। আর এইভাবেই গুগল এডমব থেকে আয় হবে আপনার।

এভাবে যতো বেশি সংখ্যক user কতৃক ডাউনলোড হবে আপনার এপসটি ইনকাম ও হবে ঠিক ততো বেশি।

শেষ কথা

বর্তমানে আয় করার জন্য Google AdMob খুবই জনপ্রিয় এবং developer দের কাছে প্রিয় একটি ইনকাম source। যেকেউ চাইলেই খুব সহজে গুগল এডমব থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

আমরা এই আর্টিকেলে গুগল এডমব থেকে ইনকাম করার উপায় বিস্তারিত ভাবে বলেছি। আপনি চাইলেই এই আর্টিকেলটা follow করে খুব সহজে গুগল এডমব থেকে আয় করতে পারবেন।

এছাড়াও গুগল এডমব নিয়ে আরো কিছু জানার থাকলে কমেন্ট বক্সে আমাদের জিজ্ঞেস করতে পারবেন নিঃসংকোচে। 

shimabithi09@gmail.com | + posts

জানার আগ্রহ আর লেখালেখির প্রতি ভালোবাসা থেকেই টুকটাক লেখালেখি করি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *