গুগল একাউন্ট খোলার নিয়ম | How to create Google Account

মোবাইলে গুগল একাউন্ট খোলার নিয়ম

বর্তমানে ইন্টারনেট জগতের সকল সার্ভিস পেতে অবশ্যই একটি গুগল একাউন্ট থাকা প্রয়োজন। এজন্য গুগল একাউন্ট খোলার নিয়ম জানতে হবে। কেননা, আপনার যদি গুগল একাউন্ট না থাকে তাহলে আপনি গুগলের কোন পরিষেবাই ব্যবহার করতে পারবেন না৷

বর্তমান যুগে ইন্টারনেট ব্যবহার করে অথচ গুগলের পরিষেবাগুলো গ্রহন করার দরকার হয় না, এমন ইন্টারনেট ব্যবহারকারী খুঁজে পাওয়া দুষ্কর৷  জিমেইল, প্লে-স্টোর, ইউটিউব চ্যানেল খোলা, গুগল সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহার করা, গুগল ম্যাপ, মোবাইল ইউজার একাউন্ট, গুগল নিউজ, গুগল ড্রাইভ, গুগল ফটো, ক্লাসরুম, গুগল ডক, ব্লগার, পডকাস্ট ইত্যাদি পরিষেবাগুলোর পাশাপাশি বিভিন্ন থার্ড পার্টি পরিষেবার জন্যও গুগল একাউন্ট অপরিহার্য। তাই, গুগল একাউন্ট কিভাবে খুলে তা আপনাকে জানতেই হবে।

গুগল একাউন্ট করা কতটা প্রয়োজনীয় তা নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন। তাহলে চলুন কম্পিউটার ও মোবাইলে গুগল একাউন্ট খোলার নিয়ম, গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে করণীয় এবং কিভাবে গুগল একাউন্ট ডিলিট করা যায় সেসম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জেনে নেওয়া যাক।

গুগল একাউন্ট কি | What is Google Account?

গুগল একাউন্ট হলো একটি ইউজার অ্যাকাউন্ট যা কিছু নির্দিষ্ট অনলাইন গুগল পরিষেবাগুলিতে অ্যাক্সেস, প্রমাণীকরণ (authentication) এবং অনুমোদনের (authorization) জন্য প্রয়োজন হয়৷

এছাড়া, বিভিন্ন থার্ড পার্টি পরিষেবাগুলোর জন্যও এখন গুগল একাউন্ট প্রয়োজন হয়। গুগল কি এবং গুগল কিভাবে কাজ করে এবিষয়ে জানতে আমাদের আর্টিকেলগুলো পড়ে নিতে পারেন।

গুগল একাউন্ট খোলার নিয়ম | How to create Google Account

১ম ধাপ: গুগল একাউন্ট টাইপ নির্বাচন করুন

ব্রাউজার ব্যবহার করে গুগল একাউন্ট খোলার জন্য প্রথমে কোন ব্রাউজার ওপেন করুন৷ google.com ভিজিট করুন। মোবাইল থেকে ব্রাউজ করলে ডানপাশের আইকনে, কম্পিউটার থেকে ব্রাউজ করলে সাইন ইন করুন বাটনে ক্লিক করুন।গুগল একাউন্ট

অথবা, সরাসরি এই লিঙ্ক ভিজিট করুন। ক্লিক করার পর নিচের মতো একটি পেজ চলে আসবে, সেখানে create account অথবা অ্যাকাউন্ট তৈরি করুন অপশনে ক্লিক করতে হবে।

গুগল একাউন্ট খোলার নিয়ম

Create new account এ ক্লিক করলে তিনটি অপশন পাবেন, আপনি কি কাজে গুগল একাউন্ট ব্যবহার করবেন, তার উপর নির্ভর করে একাউন্ট টাইপ নির্বাচন করুন:

  • নিজের জন্য হলে : For Myself সিলেক্ট করুন
  • ব্যবসার জন্য হলে : For My Business সিলেক্ট করুন
  • সন্তানের জন্য হলে : For My Child সিলেক্ট করুন
Related:  সার্চ ইঞ্জিন কি? Search Engine কীভাবে কাজ করে?

২য় ধাপ: গুগল একাউন্ট ফরম পূরণ করুন

একাউন্ট টাইপ সিলেক্ট করলে আপনাকে নিচের পেজে নিয়ে আসা হবে যেখানে একটি ফরম পাবেন। ফরমটি আপনার তথ্য দিয়ে পূরণ করতে হবে।

গুগল একাউন্ট খোলার ফরম

  • First Name : আপনার নামের প্রথম অংশ দিন
  • Last Name : আপনার নামের শেষ অংশ দিন
  • Username : যে নামে গুগল একাউন্ট টি চালাতে চান তা এখানে দিন
  • Password : একটি শক্তিশালী পাসওয়ার্ড দিন
  • Confirm : পাসওয়ার্ড টি আবার দিন

বি.দ্র.: আপনার দেয়া পাসওয়ার্ডটি প্রাথমিকভাবে দেখতে পারবেন না৷ পাসওয়ার্ডটি দেখতে চাইলে ‘Show Password’ এর পাশের ঘরে ক্লিক করুন।

সবগুলো তথ্য পূরণ করতে গিয়ে এখানে আপনি হয়তো username নিয়ে কিছুটা সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। ইউজার নেম ব্যবহার করার ক্ষেত্রে নিচের সমস্যাটার সম্মুখীন হননি এমন ভাগ্যবান গুগল একাউন্ট ইউজার কমই আছেন।

জিমেইল একাউন্ট ইউজারনেম

ইউজার নেম দেওয়ার সময় উপরের ছবির মতো কোন লেখা আসলে আপনাকে সাজেস্ট করা ইউজার নেম বেছে নিতে পারেন অথবা, আপনার ইউজার নেমটি পরিবর্তন করতে থাকুন যতক্ষণ না সেটি ইউনিক হচ্ছে।

সকল তথ্য সঠিক ভাবে দেওয়া হয়ে গেলে ‘Next’ বাটনে ক্লিক করুন৷

৩য় ধাপ: কন্টাক্ট তথ্য দিন

”Next” বাটনে ক্লিক করার পরে আপনাকে এই পেজে নিয়ে আসা হবে।

নিউ গুগল একাউন্ট খোলার ফরম

এখানে প্রথমে দেশ সিলেক্ট করুন (যদিও অনেক সময় সিলেক্ট অবস্থায় দেয়া থাকে)

  • Phone Number : আপনার একটি একটিভ ফোন নম্বরটি দিন
  • E-mail : আপনার গুগল একাউন্টটি যদি কখনও কোন সমস্যা হলে এখানে যে মেইল এড্রেসটি দিবেন সেটা দিয়ে পরবর্তীতে ভেরিফাই করে একাউন্ট রিকভার করতে পারবেন৷
  • Month : আপনি যে মাসে জন্ম গ্রহন করেছেন
  • Day : আপনার জন্ম তারিখ লিখুন
  • Year : আপনার জন্ম সাল দিন
  • Gender : আপনার কি পুরুষ/মহিলা তা সিলেক্ট করুন

সকল তথ্য সঠিকভাবে দেওয়া হয়ে গেলে ‘Next’ বাটনে ক্লিক করুন৷

৪র্থ ধাপ: ফোন নাম্বার ভেরিফাই করুন

এই ধাপে আপনাকে আপনার ফোন নম্বরটি ভেরিফাই করতে বলা হবে৷ ফোন নম্বরটি সঠিক আছে কি না তা চেক করে নিন৷ সঠিক না থাকলে ”Back’ বাটনে চাপ দিয়ে নম্বরটি আবার সেট করে নিন৷ ফোন নম্বরটি সঠিক থাকলে ‘Send’ বাটনে চাপ দিন৷

গুগল একাউন্ট নাম্বার ভেরিফিকেশন

আপনার ফোন নম্বরে একটি ৬ সংখ্যার ওয়ান টাইম পিন কোড পাঠানো হবে৷

আপনি চাইলে অন্য উপায়েও কোডটি নিতে পারেন৷ তার জন্য ”Call Instead” এ চাপ দিন৷ ”Call instead” এ চাপ দিলে আপনার নম্বরে একটি কল করা হবে। সেই কলে আপনাকে ৬ সংখ্যার কোডটি জানিয়ে দেওয়া হবে।

Related:  গুগল কিভাবে কাজ করে | How google search works

কোডটি পেয়ে গেলে বক্সে কোডটি বসিয়ে ‘Verify’ বাটনে ক্লিক করুন তথা, ভেরিফিকেশন সম্পন্ন করুন।

৬ষ্ঠ ধাপ: ফোন নাম্বার এক্সেস

কোডটি ভেরিফাই হয়ে গেলে আপনাকে নিচের পেজে নিয়ে আসা হবে৷ গুগলের কিছু পরিষেবা আছে যেগুলোতে ই-মেইল এর পাশাপাশি মোবাইল নম্বর প্রয়োজন হয়৷ আপনি যদি আপনার ফোন নম্বরটি ব্যবহার করতে অনিচ্ছুক হন তাহলে ‘Skip’ বাটন চাপুন। ফোন নম্বরটি ব্যবহার করে ম্যাসেজ কিংবা ভিডিও কল ও অন্যান্য সার্ভিস পেতে চাইলে ‘Yes, I’m in’ বাটনে ক্লিক করুন।

৭ম ধাপ: গুগল একাউন্ট প্রাইভেসি এন্ড টার্মস

এখন আপনাকে গুগলের সকল প্রাইভেসি এন্ড টার্মসগুলো মেনে নিতে হবে৷ তাহলেই আপনার গুগল একাউন্ট তৈরি হয়ে যাবে।

৬ষ্ঠ ধাপের কাজ শেষে আপনাকে গুগল প্রাইভেসি এন্ড টার্মস পেজে নেওয়া হবে। সবগুলো ভালোভাবে পড়ার পড়ে স্ক্রল করে নিচে এসে  ‘I Agree’ তে ক্লিক করুন৷

ব্যাস, আপনার গুগল একাউন্ট এখন ব্যবহারের জন্য তৈরি হয়ে গেছে। গুগল একাউন্ট খোলার নিয়ম মেনে একাউন্ট তৈরি করায় ইতিমধ্যে গুগলের কাছ থেকে আপনি একটি ওয়েলকাম ই-মেইল পেয়ে যাবেন।

গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে করণীয়

মোবাইলে গুগল একাউন্ট সবসময় লগইন করা থাকে বলে অনেকদিন পর অন্য কোন ডিভাইসে লগইন করতে গেলেই আমাদের মাথায় প্রশ্ন জাগে, আমার গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড কত!

আপনি যদি আমাদের টিউটোরিয়ালে উল্লেখ করা গুগল একাউন্ট খোলার নিয়ম মেনে নতুন একাউন্ট করে থাকেন, তাহলে গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলেও চিন্তা নেই। মাত্র কয়েকটি ক্লিকেই আপনি আপনার গুগল একাউন্টে পাসওয়ার্ড পেয়ে যেতে পারেন।

গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে একাউন্ট ফিরে পেতে যা করতে হবে:

1. প্রথমে গুগল একাউন্ট লগইন পেজ ভিজিট করুন।

2. আপনার ইমেইল আইডি তথা ইউজার নেম বা ফোন নাম্বার লিখে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন।

3. পাসওয়ার্ড মনে নেই এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে

4. গুগল একাউন্ট খোলার সময় যে ফোন নাম্বার ব্যবহার করেছিলেন, সেটি লিখে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন

5. আপনার নাম্বারে ৬ ডিজিটের একটি কোড আসবে

6. কোডটি ব্যবহার করে একাউন্ট ভেরিফাই করুন

7. এবার শক্তিশালী একটি নতুন পাসওয়ার্ড সেট করুন এবং

8. পরবর্তী পেজে পুনরায় একই পাসওয়ার্ড লিখে কনফার্ম করুন

ব্যস, আপনার গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড রিকভারি সম্পন্ন। এবার নতুন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে আপনার গুগল একাউন্টে লগইন করতে পারবেন।

কিভাবে গুগল একাউন্ট ডিলিট করা যায়

প্রথমে আপনার মেবাইলে বা কম্পিউটারে যেকোন ব্রাউজার ওপেন করে গুগল একাউন্টে লগইন করুন। তারপর গুগল একাউন্ট ডিলিট করার পেজটি ভিজিট করুন। এবার ”Delete your account” এ ক্লিক করুন।কিভাবে গুগল একাউন্ট ডিলিট করা যায়

”Delete your account” এ ক্লিক করার পরে নিম্নের পেজটি পাবেন৷ এখানে দুইটি চেকবক্সে টিক চিহ্ন দিন। তারপর ”Delete your account’ চাপুন৷গুগল একাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম

Related:  গুগলে ব্লগ র‍্যাঙ্ক করার উপায় - কার্যকরী ৬ পদ্ধতি

এই কাজের মধ্যে দিয়ে আপনার একাউন্ট ডিলিট করা হলো। একাউন্ট ডিলেট করার আগে নিশ্চিত হয়ে নিবেন যে একাউন্ট টি ডিলিট করতে চান, তা কোন গুরুত্বপূর্ণ একাউন্টের সাথে জড়িত নয়। যেমন: অনেকের গুগল ড্রাইভে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকে, যা পরবর্তীতে দরকার হতে পারে।

অনেকের থার্ড পার্টি বিভিন্ন সাইটে একাউন্ট করা থাকে যেমন: সরকারি কাজের জন্য বিভিন্ন সরকারি ওয়েবসাইটে পার্সোনাল একাউন্ট, কিংবা ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কোন ফ্রিল্যান্স মার্কেটে ফ্রিল্যান্সার একাউন্ট, ইত্যাদি।

এমন কোন গুরুত্বপূর্ণ একাউন্ট যদি আপনি এই গুগল একাউন্ট দিয়ে করে থাকেন, তবে প্রথমে সেসব একাউন্টে নতুন গুগল একাউন্ট তথা জিমেইল আইডি যুক্ত করে নিন, তারপর গুগল একাউন্ট ডিলিট করুন নয়তো, আপনার একাউন্ট এর সকল তথ্য হারাবেন।

গুগল একাউন্ট এর সুবিধা সমূহ

১. গুগল একাউন্ট মূলত একটি জিমেইল একাউন্ট। তাই গুগল একাউন্ট দিয়ে জিমেইল সেবা নিতে পারবেন।

২. গুগল ফটো, গুগল নিউজ, ইউটিউবসহ ২৫০+ গুগলের পরিষেবায় এক্সেস পাবেন।

৩. গুগল ড্রাইভ গুগলের একটি পরিষেবা। প্রত্যক গুগলের গ্রাহক কে গুগল ১৫ জিবি অনলাইন স্টোরেজ দিয়ে থাকে৷ সেখানে আপনি আপনার ইচ্ছামতো ফাইল, অডিও, ভিডিও রাখতে পারবেন৷ প্রয়োজন মতো সেগুলো ডাউনলোড করতে পারবেন।

৪. অনলাইনে এমন অনেক ওয়েবসাইট ও অ্যাপ আছে সেগুলোতে একাউন্ট করতে চাইলে জিমেইল একাউন্ট প্রয়োজন হয়।

৫. গুগল একাউন্টে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় সকল মোবাইল নাম্বর ব্যাকআপ রেখে দিতে পারবেন। পরবর্তীতে মোবাইল পরিবর্তন করলে খুব সহজেই নাম্বারগুলো পেয়ে যাবেন।

গুগল একাউন্ট না থাকার অসুবিধা সমূহ

গুগল একাউন্ট না করার সবচেয়ে বড় অসুবিধা হলো আপনি গুগলের বেশীরভাগ পরিষেবাই গ্রহন করতে পারবেন না। হাতেগোনা যে কয়েকটি পরিষেবা নিতে পারবেন সেগুলোও সম্পূর্ণ সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন না।

আমরা ফোনে সবচেয়ে বেশী গুগলের পরিষেবাগুলোই ব্যবহার করি৷ প্লে স্টোর, গুগল ফাইল, গুগল ফটো, ইউটিউব, গুগল অ্যাসিস্টেন্ট। এই পরিষেবাগুলো আমরা প্রতিনিয়তই ব্যবহার করে আসছি। আর এসব সুবিধা আপনিও নিতে চাইলে অবশ্যই একটি গুগল একাউন্ট খুলতে হবে।

গুগল একাউন্ট খোলার নিয়ম নিয়ে শেষ কথা

এখানে আমি গুগল একাউন্ট খোলার নিয়ম পর্যায়ক্রমে জানানোর চেষ্টা করেছি। আশা করি গুগল একাউন্ট কিভাবে খুলে সেবিষয়ে আপনি এখন নিজেই এক্সপার্ট হয়ে গেছেন।

গুগলের সবগুলো পরিষেবা আমরা সম্পূর্ণ ফ্রিতেই ব্যবহার করতে পারছি তাও আবার মাত্র একটি গুগল একাউন্ট খোলার মাধ্যমে।

কিভাবে গুগল একাউন্ট তৈরি করতে হয় তা যখন জেনে নিয়েছেন, তাহলে এখনই নিউ গুগল একাউন্ট খুলে নিন, আর উপভোগ করুন গুগলের সকল পরিষেবা৷

1 thought on “গুগল একাউন্ট খোলার নিয়ম | How to create Google Account”

Leave a Comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।